ঢাকা ০৯:৫৯ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ১৬ জুলাই ২০২৪, ১ শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম :
Logo নিরাপত্তার স্বার্থে শাবি শিক্ষার্থীদের আইডিকার্ড সাথে রাখার আহবান বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনের Logo জনস্বাস্থ্যের প্রধান সাধুর যত অসাধু কর্ম: দুর্নীতি ও অর্থ পাচারের অভিযোগ! Logo বিআইডব্লিউটিএ বন্দর শাখা যুগ্ম পরিচালক আলমগীরের দুর্নীতি ও ঘুষ বাণিজ্য  Logo রাজশাহীতে এটিএন বাংলার সাংবাদিক সুজাউদ্দিন ছোটনকে হয়রানিমূলক মামলায় বএিমইউজরে নিন্দা ও প্রতিবাদ Logo শিক্ষার্থীদের তথ্য প্রযুক্তিতে দক্ষ হয়ে স্মার্ট বাংলাদেশ গড়ায় অবদান রাখতে হবেঃ ড. তৌফিক রহমান চৌধুরী Logo ‘কানামাছি শিশুসাহিত্য পুরস্কার ২০২৪’ পেলেন লেখক Logo মধ্যরাতে শাবি ছাত্রলীগের ‘ তুমি কে, আমি কে- বাঙ্গালী, বাঙ্গালী’ শ্লোগানে উত্তাল ক্যাম্পাস Logo আম নিয়ে কষ্টগাঁথা Logo ঘুমান্ত বিবেক মাতাল আবেগ’ – আকাশমণি Logo পুলিশের হামলার পরও ৬ ঘন্টা ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়ক অবরোধে কুবি শিক্ষার্থীর




বেতন-বোনাসের দাবিতে মিরপুরে সড়ক অবরোধ

প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ০৪:২৫:৩১ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ৮ অগাস্ট ২০১৯ ৭৬ বার পড়া হয়েছে

নিজস্ব প্রতিবেদক : বকেয়া বেতন ও ঈদ বোনাসের দাবিতে মিরপুরে সড়ক অবরোধ করেছেন গার্মেন্ট শ্রমিকরা। বৃহস্পতিবার দুপুর ১টা থেকে মিরপুর সনি সিনেমা হলের সামনের সড়ক অবরোধ করেন জারা জিন্স নামে গার্মেন্ট শ্রমিকরা। এতে সড়কে যান চলাচল বন্ধ রয়েছে।

এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত শ্রমিকরা সড়ক অবরোধ করে রেখেছেন বলে জানিয়েছে মিরপুর বিভাগ পুলিশ।

জারা জিন্স গার্মেন্টের একাধিক কর্মী জানান, আমাদের বেশ কয়েক মাসের বেতন বকেয়া রয়েছে। সেগুলো তো দিচ্ছেই না। বেতন ও বোনাসেরও কোনো খবর নেই। এর আগেও আমরা আন্দোলন করেছি। গতকাল রাতেও আমরা সড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ করেছি। কিন্তু মালিকপক্ষ কোনো কর্ণপাত করছেন না। বাধ্য হয়ে ফের রাস্তায় নামতে বাধ্য হয়েছি।

সবুজ নামে এক গার্মেন্ট কর্মী বলেন, আজই বন্ধ হচ্ছে গার্মেন্টটি। ঈদের পর খুলবে। কিন্তু আমাদের পাওনা বেতন-বোনাস দেয়া হয়নি। কর্মীদের ঈদ কীভাবে হবে বেতন-বোনাস ছাড়া? সেটা একবার ভাবছে না মালিকপক্ষ। বেতন-বোনাস না পাওয়া পর্যন্ত সড়ক অবরোধ-বিক্ষোভ অব্যাহত থাকার কথা জানান তিনি।

মিরপুর বিভাগের মিরপুর জোনের সহকারী কমিশনার (এসি) খাইরুল আমিন বলেন, জারা জিন্স গার্মেন্টটি দারুসসালাম এলাকার মধ্যে পড়েছে। কিন্তু বকেয়া বেতন ও ঈদ বোনাসের দাবিতে বিক্ষোভ-সড়ক অবরোধ করেছে মিরপুর এলাকায় এসে। তারা সনি সিনেমা হলের সামনের সড়ক অবরোধ করেছে। যান চলাচল বন্ধ রয়েছে। আমরা মালিকপক্ষ ও বিজিএমইএ কর্তৃপক্ষকে জানিয়েছি। তাদের দ্রুত বিষয়টি নিষ্পত্তির অনুরোধ জানানো হয়েছে।

এ ব্যাপারে দারুসসালাম জোন পুলিশের সহকারী কমিশনার বলেন, ‘আমি গার্মেন্ট শ্রমিকদের আন্দোলনের মধ্যে আছি। পুলিশ মোতায়েন রয়েছে। তবে বিক্ষুব্ধ গার্মেন্ট শ্রমিকদের বিরুদ্ধে কোনো ব্যবস্থা পুলিশ নেবে না। তাদের অভিযোগ শোনা হচ্ছে। বিজিএমইএ নেতারা আসছেন।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

ট্যাগস :




বেতন-বোনাসের দাবিতে মিরপুরে সড়ক অবরোধ

আপডেট সময় : ০৪:২৫:৩১ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ৮ অগাস্ট ২০১৯

নিজস্ব প্রতিবেদক : বকেয়া বেতন ও ঈদ বোনাসের দাবিতে মিরপুরে সড়ক অবরোধ করেছেন গার্মেন্ট শ্রমিকরা। বৃহস্পতিবার দুপুর ১টা থেকে মিরপুর সনি সিনেমা হলের সামনের সড়ক অবরোধ করেন জারা জিন্স নামে গার্মেন্ট শ্রমিকরা। এতে সড়কে যান চলাচল বন্ধ রয়েছে।

এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত শ্রমিকরা সড়ক অবরোধ করে রেখেছেন বলে জানিয়েছে মিরপুর বিভাগ পুলিশ।

জারা জিন্স গার্মেন্টের একাধিক কর্মী জানান, আমাদের বেশ কয়েক মাসের বেতন বকেয়া রয়েছে। সেগুলো তো দিচ্ছেই না। বেতন ও বোনাসেরও কোনো খবর নেই। এর আগেও আমরা আন্দোলন করেছি। গতকাল রাতেও আমরা সড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ করেছি। কিন্তু মালিকপক্ষ কোনো কর্ণপাত করছেন না। বাধ্য হয়ে ফের রাস্তায় নামতে বাধ্য হয়েছি।

সবুজ নামে এক গার্মেন্ট কর্মী বলেন, আজই বন্ধ হচ্ছে গার্মেন্টটি। ঈদের পর খুলবে। কিন্তু আমাদের পাওনা বেতন-বোনাস দেয়া হয়নি। কর্মীদের ঈদ কীভাবে হবে বেতন-বোনাস ছাড়া? সেটা একবার ভাবছে না মালিকপক্ষ। বেতন-বোনাস না পাওয়া পর্যন্ত সড়ক অবরোধ-বিক্ষোভ অব্যাহত থাকার কথা জানান তিনি।

মিরপুর বিভাগের মিরপুর জোনের সহকারী কমিশনার (এসি) খাইরুল আমিন বলেন, জারা জিন্স গার্মেন্টটি দারুসসালাম এলাকার মধ্যে পড়েছে। কিন্তু বকেয়া বেতন ও ঈদ বোনাসের দাবিতে বিক্ষোভ-সড়ক অবরোধ করেছে মিরপুর এলাকায় এসে। তারা সনি সিনেমা হলের সামনের সড়ক অবরোধ করেছে। যান চলাচল বন্ধ রয়েছে। আমরা মালিকপক্ষ ও বিজিএমইএ কর্তৃপক্ষকে জানিয়েছি। তাদের দ্রুত বিষয়টি নিষ্পত্তির অনুরোধ জানানো হয়েছে।

এ ব্যাপারে দারুসসালাম জোন পুলিশের সহকারী কমিশনার বলেন, ‘আমি গার্মেন্ট শ্রমিকদের আন্দোলনের মধ্যে আছি। পুলিশ মোতায়েন রয়েছে। তবে বিক্ষুব্ধ গার্মেন্ট শ্রমিকদের বিরুদ্ধে কোনো ব্যবস্থা পুলিশ নেবে না। তাদের অভিযোগ শোনা হচ্ছে। বিজিএমইএ নেতারা আসছেন।