ঢাকা ০৭:৫৯ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ১৭ এপ্রিল ২০২৪, ৪ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম :
Logo মঙ্গল শোভাযাত্রা – তাসফিয়া ফারহানা ঐশী Logo সাস্টিয়ান ব্রাহ্মণবাড়িয়া এর ইফতার মাহফিল সম্পন্ন Logo কুবির চট্টগ্রাম স্টুডেন্টস ওয়েলফেয়ার এসোসিয়েশনের ইফতার ও পূর্নমিলনী Logo অধ্যাপক জহীর উদ্দিন আহমেদের মায়ের মৃত্যুতে শাবির মহান মুক্তিযুদ্ধের চেতনা ও মুক্ত চিন্তা চর্চায় ঐক্যবদ্ধ শিক্ষকবৃন্দ পরিষদের শোক প্রকাশ Logo শাবির অধ্যাপক জহীর উদ্দিনের মায়ের মৃত্যুতে উপাচার্যের শোক প্রকাশ Logo বিশ কোটিতে গণপূর্তের প্রধান হওয়ার মিশনে ‘ছাত্রদল ক্যাডার প্রকৌশলী’! Logo দূর্নীতির রাক্ষস ফায়ার সার্ভিসের এডি আনোয়ার! Logo ঝড় ও শিলাবৃষ্টিতে ক্ষতি হওয়া শাহজালাল বিশ্ববিদ্যালয়ে অবকাঠামোর সংস্কার শুরু Logo বুয়েটে নিয়মতান্ত্রিক ছাত্র রাজনীতির দাবিতে শাবিপ্রবি ছাত্রলীগের মানববন্ধন Logo কুবি উপাচার্যের বক্তব্যের প্রমাণ দিতে শিক্ষক সমিতির সাত দিনের আল্টিমেটাম




হলি আর্টিজান মামলার রায় আজ, নিরাপত্তা জোরদার

প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ০৮:২৬:১৯ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ২৭ নভেম্বর ২০১৯ ৭৩ বার পড়া হয়েছে

নিজস্ব প্রতিবেদক ; 
প্রায় সাড়ে তিন বছর পর রাজধানীর গুলশানে হলি আর্টিজানে জঙ্গি হামলা মামলার রায় দেয়া হবে আজ। প্রধান আসামিদের মধ্যে ৮ জন বিভিন্ন অভিযানে এবং ৫ জন নিহত হন হলি আর্টিজনে। নিহত ১৩ জঙ্গিকে বাদ দিয়েই দেয়া হয় চার্জশিট। গ্রেপ্তার আছেন ৮ জন। আর ২১১ সাক্ষীর মধ্যে সাক্ষ্যে দেন ১১৩ জন।

১ জুলাই ২০১৬। দুর্বিষহ সেই রাতটি আতঙ্কে জাগিয়ে রেখেছিলো পুরো দেশবাসীকে। কী হচ্ছে সেখানে, বুঝতে বেশি দেরি হয়নি। সে রাতে হলি আর্টিজান রেস্তোঁরায় বিদেশি নাগরিকসহ ২০ জনকে হত্যা করে জঙ্গিরা। মারা যান দুই পুলিশ সদস্যও। পরে ভোরে সেনাবাহিনীর অপারেশন থান্ডারবোল্টে মারা যায় পাঁচ জঙ্গিও। ওই ঘটনায় সন্ত্রাসবিরোধী আইনে, গুলশান থানায় মামলা করে পুলিশ।

২০১৮ সালে ২৩ জুলাই আটজনের বিরুদ্ধে চার্জশিট দেয় পুলিশের কাউন্টার টেরোরিজম অ্যান্ড ট্রান্সন্যাশনাল ক্রাইম ইউনিট। পরে গত বছরের ২৬ নভেম্বর সন্ত্রাসবিরোধী বিশেষ ট্রাইবুন্যালে শুরু হয় এই হামলার বিচার। ২১১ সাক্ষীর মধ্যে সাক্ষ্যে দেন ১১৩ জন। প্রধান আসামিদের মধ্যে ৮ জন বিভিন্ন অভিযানে আর ৫জন হলি আর্টিজনে নিহত হওয়ায়, অভিযোগপত্র থেকে বাদ যায় তাদের নাম। আর মামলা থেকে অব্যাহতি দেয়া হয় নর্থ সাউথ বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক হাসনাত করিমকে।

আলোচিত এই রায় ঘিরে সারা দেশে নিরাপত্তা জোরদার করেছে র‍্যাব। সদরদপ্তরে সংবাদ সম্মেলনে র‍্যাব মহাপরিচালক বেনজির আহমেদ আশা করেন, রায়ে আসামিরা সর্বোচ্চ শাস্তি পাবে। ন্যায়বিচার পাবেন নিহতদের স্বজনরা।

র‍্যাব মহাপরিচালকের দাবি, হলি আর্টিজান হামলায় গোয়েন্দা ব্যর্থতা থাকলেও, পরে জঙ্গি দমনে সফল আইনশৃঙ্খলা বাহিনী। জঙ্গি হামলা মোকাবেলায় আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সক্ষমতা বেড়েছে বলেও দাবি র‍্যাবের।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

ট্যাগস :




হলি আর্টিজান মামলার রায় আজ, নিরাপত্তা জোরদার

আপডেট সময় : ০৮:২৬:১৯ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ২৭ নভেম্বর ২০১৯

নিজস্ব প্রতিবেদক ; 
প্রায় সাড়ে তিন বছর পর রাজধানীর গুলশানে হলি আর্টিজানে জঙ্গি হামলা মামলার রায় দেয়া হবে আজ। প্রধান আসামিদের মধ্যে ৮ জন বিভিন্ন অভিযানে এবং ৫ জন নিহত হন হলি আর্টিজনে। নিহত ১৩ জঙ্গিকে বাদ দিয়েই দেয়া হয় চার্জশিট। গ্রেপ্তার আছেন ৮ জন। আর ২১১ সাক্ষীর মধ্যে সাক্ষ্যে দেন ১১৩ জন।

১ জুলাই ২০১৬। দুর্বিষহ সেই রাতটি আতঙ্কে জাগিয়ে রেখেছিলো পুরো দেশবাসীকে। কী হচ্ছে সেখানে, বুঝতে বেশি দেরি হয়নি। সে রাতে হলি আর্টিজান রেস্তোঁরায় বিদেশি নাগরিকসহ ২০ জনকে হত্যা করে জঙ্গিরা। মারা যান দুই পুলিশ সদস্যও। পরে ভোরে সেনাবাহিনীর অপারেশন থান্ডারবোল্টে মারা যায় পাঁচ জঙ্গিও। ওই ঘটনায় সন্ত্রাসবিরোধী আইনে, গুলশান থানায় মামলা করে পুলিশ।

২০১৮ সালে ২৩ জুলাই আটজনের বিরুদ্ধে চার্জশিট দেয় পুলিশের কাউন্টার টেরোরিজম অ্যান্ড ট্রান্সন্যাশনাল ক্রাইম ইউনিট। পরে গত বছরের ২৬ নভেম্বর সন্ত্রাসবিরোধী বিশেষ ট্রাইবুন্যালে শুরু হয় এই হামলার বিচার। ২১১ সাক্ষীর মধ্যে সাক্ষ্যে দেন ১১৩ জন। প্রধান আসামিদের মধ্যে ৮ জন বিভিন্ন অভিযানে আর ৫জন হলি আর্টিজনে নিহত হওয়ায়, অভিযোগপত্র থেকে বাদ যায় তাদের নাম। আর মামলা থেকে অব্যাহতি দেয়া হয় নর্থ সাউথ বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক হাসনাত করিমকে।

আলোচিত এই রায় ঘিরে সারা দেশে নিরাপত্তা জোরদার করেছে র‍্যাব। সদরদপ্তরে সংবাদ সম্মেলনে র‍্যাব মহাপরিচালক বেনজির আহমেদ আশা করেন, রায়ে আসামিরা সর্বোচ্চ শাস্তি পাবে। ন্যায়বিচার পাবেন নিহতদের স্বজনরা।

র‍্যাব মহাপরিচালকের দাবি, হলি আর্টিজান হামলায় গোয়েন্দা ব্যর্থতা থাকলেও, পরে জঙ্গি দমনে সফল আইনশৃঙ্খলা বাহিনী। জঙ্গি হামলা মোকাবেলায় আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সক্ষমতা বেড়েছে বলেও দাবি র‍্যাবের।