• ১৮ই অক্টোবর ২০২১ খ্রিস্টাব্দ , ২রা কার্তিক ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

প্রাণ ও আরএফএল এমডি সিআইপি নির্বাচিত

সকালের সংবাদ ডেস্ক;
প্রকাশিত সেপ্টেম্বর ১০, ২০১৯, ০৯:৩০ পূর্বাহ্ণ
প্রাণ ও আরএফএল এমডি সিআইপি নির্বাচিত

নিজস্ব প্রতিবেদক
রফতানি বাণিজ্যে গুরুত্বপূর্ণ অবদানের স্বীকৃতি হিসেবে দেশের বৃহৎ শিল্পপ্রতিষ্ঠান প্রাণ-আরএফএল গ্রুপের ডিউরেবল প্লাস্টিক লিমিটেডের তথা আরএফএলের ব্যবস্থাপনা পরিচালক (এমডি) রথীন্দ্র নাথ পাল (আরএন পাল) এবং প্রাণের ব্যবস্থাপনা পরিচালক (এমডি) মো. ইলিয়াস মৃধাকে সিআইপি (রফতানি) নির্বাচন করেছে সরকার।

প্রাণ-আরএফএল গ্রুপের শীর্ষ এ দুই কর্মকর্তা এর আগেও একাধিকবার ‘বাণিজ্যিকভাবে গুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তি’ (সিআইপি) হিসেবে নির্বাচিত হন।

এবার দেশের রফতানি বাণিজ্যে অবদান রাখার স্বীকৃতি হিসেবে ১৩৬ জনকে বাণিজ্যিকভাবে গুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তি (সিআইপি, রফতানি) নির্বাচন করেছে বাণিজ্য মন্ত্রণালয়। এছাড়া সিআইপি (বাণিজ্য) নির্বাচিত হয়েছেন এফবিসিসিআইয়ের ৪৬ পরিচালক।

২০১৭ সালের জন্য নির্বাচিত এ ব্যক্তিরা সিআইপি কার্ড পাবেন। গত শনিবার (৭ সেপ্টেম্বর) এ-সংক্রান্ত প্রজ্ঞাপন প্রকাশ করে বাণিজ্য মন্ত্রণালয়। প্রজ্ঞপন অনুযায়ী ২০১৭ সালের জন্য সিআইপি (রফতানি) নির্বাচিত হন মো. ইলিয়াস মৃধা। তিনি এগ্রোপ্রসেসিং খাতে প্রাণ এগ্রো লিমিটেডের পরিচালক হিসেবে সিআইপি হয়েছেন।

এছাড়া প্লাষ্টিকজাত পণ্য (গ্রুপ) খাতে প্রাণ আরএফএল গ্রুপের পরিচালক হিসেবে সিআইপি নির্বাচিত হয়েছেন রথীন্দ্র নাথ পাল।

এর আগে রফতানি বাণিজ্যে গুরুত্বপূর্ণ অবদানের স্বীকৃতি হিসেবে রথীন্দ্র নাথ পালকে (আরএন পাল) ২০১৬ সালের সিআইপি (রফতানি) নির্বাচন করে সরকার। তাকে ডিউরেবল প্লাস্টিক লিমিটেডের পরিচালক হিসেবে সিআইপি নির্বাচিত করা হয়। ২০১৫ ও ২০১৪ সালেও একই ক্যাটাগরিতে সিআইপি কার্ড পান তিনি।

এছাড়া রফতানি বাণিজ্যে গুরুত্বপূর্ণ অবদানের জন্য মো. ইলিয়াস মৃধাকেও ২০১৬ সালের বাণিজ্যিক গুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তি (সিআইপি- রফতানি) নির্বাচিত করে সরকার। প্রাণ ডেইরি ও প্রাণ এগ্রো লিমিটেডের পরিচালক হিসেবে তাকে সিআইপি (রফতানি) নির্বাচন করা হয়। ২০১৩ সালেও তাকে সিআইপি কার্ড দেয় সরকার।

সিআইপি কার্ডধারী ব্যক্তিরা সচিবালয়ে প্রবেশে বিশেষ পাস, ব্যবসা-সংক্রান্ত ভ্রমণে বিমান, রেল, সড়ক ও নৌপথে সরকারি যানবাহনে সংরক্ষিত আসনে অগ্রাধিকার, বিমানবন্দরে ভিআইপি লাউঞ্জ-২ ব্যবহার, ব্যবসায়িক কাজে বিদেশ ভ্রমণের ভিসাপ্রাপ্তিতে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় থেকে লেটার অব ইন্ট্রোডাকশন ইস্যু সুবিধা পাবেন।

এছাড়া তাদের স্ত্রী, পুত্র, কন্যা ও নিজের চিকিৎসার জন্য সরকারি হাসপাতালে কেবিন সুবিধার ক্ষেত্রে অগ্রাধিকার পাবেন। সিআইপি (রফতানি) কার্ডের আওতায় এক বছর ও পরবর্তী সিআইপি ঘোষণা না হওয়া পর্যন্ত তারা এ সুবিধা পাবেন। বাণিজ্য সংগঠনে পদ বহাল থাকা বা পরবর্তী সিআইপি ঘোষণার আগ পর্যন্ত সুবিধা পাবেন সিআইপি (বাণিজ্য) নির্বাচিত ব্যক্তিরা।

  • ফজর
  • যোহর
  • আছর
  • মাগরিব
  • এশা
  • সূর্যোদয়
  • ৪:৪৪
  • ১১:৪৮
  • ৩:৫৫
  • ৫:৩৬
  • ৬:৫০
  • ৫:৫৬
error: সাইটের কোন তথ্য কপি করা নিষেধ!!