ঢাকা ১১:১০ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২৩ মে ২০২৪, ৯ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম :
Logo রূপালী ব্যাংকের ডিজিএম কর্তৃক সহকর্মী নারীকে যৌন হয়রানি: ধামাচাপা দিতে মরিয়া তদন্ত কমিটি Logo প্রতিবন্ধী ভাতার টাকা হাতিয়ে বহাল তবিয়তে মাদারীপুরের দুই সহকারী সমাজসেবা অফিসারl Logo যমুনা লাইফের গ্রাহক প্রতারণায় ‘জড়িতরা’ কে কোথায় Logo ঢাকাস্থ ভোলা সাংবাদিক ফোরামের সভাপতি আহসান কামরুল, সম্পাদক জিয়াউর রহমান Logo টাটা মটরস বাংলাদেশে উদ্বোধন করলো টাটা যোদ্ধা Logo আশা শিক্ষা কর্মসূচী কর্তৃক অভিভাবক মতবিনিময় সভা Logo গণপূর্ত প্রধান প্রকৌশলীর গাড়ি চাপায় পিষ্ট সহকারী প্রকৌশলী -উত্তাল গণপূর্ত Logo শাবিপ্রবির বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান হলের উদ্যোগে বৃক্ষরোপণ Logo সওজের উপ-বিভাগীয় প্রকৌশলী নাহিনুরের সীমাহীন সম্পদ ও অনিয়ম -পর্ব-০১ Logo তামাক সেবনের আলাদা কক্ষ বানালেন গণপূর্তের নির্বাহী প্রকৌশলী: রয়েছে দুর্নীতির পাহাড়সম অভিযোগ!




মাদকের তথ্য পেলে নির্ভয়ে পুলিশকে জানান: ডিএমপি কমিশনার

প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ১০:১২:১৮ অপরাহ্ন, বুধবার, ২২ মে ২০১৯ ৯৯ বার পড়া হয়েছে

সকালের সংবাদ প্রতিবেদক;

ঢাকা মহানগর পুলিশ (ডিএমপি) কমিশনার আছাদুজ্জামান মিয়া বলেছেন, মাদক তরুণ প্রজন্ম, সমাজ ও রাষ্ট্রকে ধ্বংস করছে। তাই মাদকের বিরুদ্ধে প্রতিরোধ গড়ে তুলুন। মাদকের তথ্য পেলে নির্ভয়ে পুলিশকে জানান। বুধবার রাজধানীতে দুস্থ ও অসহায় মানুষের মধ্যে ঈদবস্ত্র বিতরণ অনুষ্ঠানে তিনি এসব কথা বলেন। ঈদ উপলক্ষে ঢাকাবাসীর নিরাপত্তায় ডিএমপির নানা তৎপরতার তথ্য জানিয়ে আছাদুজ্জামান মিয়া বলেন, বাস টার্মিনাল, রেলস্টেশন ও লঞ্চ টার্মিনাল ঘিরে বিশেষ নিরাপত্তার ব্যবস্থা করা হয়েছে। রমজানে এখন পর্যন্ত রাজধানীতে উল্লেখযোগ্য কোনো অপরাধ সংঘটিত হয়নি।

মাদককে ক্যান্সারের চেয়ে ভয়াবহ হিসেবে অভিহিত করে নগরবাসীর উদ্দেশে ডিএমপি কমিশনার বলেন, চারপাশে লক্ষ্য রাখুন, কোনো তথ্য পেলে নির্ভয়ে পুলিশকে জানান। তথ্যদাতার পরিচয় গোপন রাখা হবে।

ডিএমপির রমনা ও মতিঝিল বিভাগের উদ্যোগে এদিন দুস্থদের মাঝে দুই হাজার ৭০০ পিস শাড়ি, লুঙ্গি, পাঞ্জাবি ও শিশুদের পোশাক বিতরণ করেন আছাদুজ্জামান মিয়া। এর মধ্যে পল্টন কমিউনিটি সেন্টারের সামনে দেড় হাজার পিস এবং রমনার ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউটের সামনে এক হাজার ২০০ পিস ঈদবস্ত্র বিতরণ করা হয়। এ সময় সবাইকে ঈদের অগ্রিম শুভেচ্ছা জানিয়ে তিনি বলেন, দেশে যেভাবে উন্নয়ন হচ্ছে, আশা করা যায় ২০ বছর পর ঈদের কাপড় দেওয়ার মতো দরিদ্র মানুষ খুঁজে পাওয়া যাবে না।

এই উদ্যোগ প্রসঙ্গে আছাদুজ্জামান মিয়া বলেন, প্রজাতন্ত্রের কর্মচারী হিসেবে পুলিশ কারও ওপর বল প্রয়োগ করে না। লাঠি ঘুরায় না বা ক্ষমতা ও দাপট দেখায় না। জনগণকে ভালোবেসে, ভালো সেবা দিয়ে সবার ভালোবাসা অর্জন করতে চায়। ঈদে সবার গায়ে যেন নতুন পোশাক ওঠে, সেই চেষ্টা থেকে পুলিশ কাপড় বিতরণ করছে। ঈদ তখনই সার্থক হবে, যখন সবার গায়ে নতুন কাপড় উঠবে ও সবাই ঈদের দিন ভালো খাবার পাবেন। এটিই ইসলামের কথা।

অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন ডিএমপির অতিরিক্ত কমিশনার (সিটিটিসি) মনিরুল ইসলাম, অতিরিক্ত কমিশনার (ক্রাইম অ্যান্ড অপস) কৃষ্ণপদ রায়, যুগ্ম কমিশনার (ট্রান্সপোর্ট) আবদুল কুদ্দুস আমিন, যুগ্ম কমিশনার (অপারেশন) মনির হোসেন, রমনা বিভাগের উপকমিশনার মারুফ হোসেন সরদার, মতিঝিল বিভাগের উপকমিশনার মোহাম্মদ আনোয়ার হোসেন প্রমুখ।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

ট্যাগস :




মাদকের তথ্য পেলে নির্ভয়ে পুলিশকে জানান: ডিএমপি কমিশনার

আপডেট সময় : ১০:১২:১৮ অপরাহ্ন, বুধবার, ২২ মে ২০১৯

সকালের সংবাদ প্রতিবেদক;

ঢাকা মহানগর পুলিশ (ডিএমপি) কমিশনার আছাদুজ্জামান মিয়া বলেছেন, মাদক তরুণ প্রজন্ম, সমাজ ও রাষ্ট্রকে ধ্বংস করছে। তাই মাদকের বিরুদ্ধে প্রতিরোধ গড়ে তুলুন। মাদকের তথ্য পেলে নির্ভয়ে পুলিশকে জানান। বুধবার রাজধানীতে দুস্থ ও অসহায় মানুষের মধ্যে ঈদবস্ত্র বিতরণ অনুষ্ঠানে তিনি এসব কথা বলেন। ঈদ উপলক্ষে ঢাকাবাসীর নিরাপত্তায় ডিএমপির নানা তৎপরতার তথ্য জানিয়ে আছাদুজ্জামান মিয়া বলেন, বাস টার্মিনাল, রেলস্টেশন ও লঞ্চ টার্মিনাল ঘিরে বিশেষ নিরাপত্তার ব্যবস্থা করা হয়েছে। রমজানে এখন পর্যন্ত রাজধানীতে উল্লেখযোগ্য কোনো অপরাধ সংঘটিত হয়নি।

মাদককে ক্যান্সারের চেয়ে ভয়াবহ হিসেবে অভিহিত করে নগরবাসীর উদ্দেশে ডিএমপি কমিশনার বলেন, চারপাশে লক্ষ্য রাখুন, কোনো তথ্য পেলে নির্ভয়ে পুলিশকে জানান। তথ্যদাতার পরিচয় গোপন রাখা হবে।

ডিএমপির রমনা ও মতিঝিল বিভাগের উদ্যোগে এদিন দুস্থদের মাঝে দুই হাজার ৭০০ পিস শাড়ি, লুঙ্গি, পাঞ্জাবি ও শিশুদের পোশাক বিতরণ করেন আছাদুজ্জামান মিয়া। এর মধ্যে পল্টন কমিউনিটি সেন্টারের সামনে দেড় হাজার পিস এবং রমনার ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউটের সামনে এক হাজার ২০০ পিস ঈদবস্ত্র বিতরণ করা হয়। এ সময় সবাইকে ঈদের অগ্রিম শুভেচ্ছা জানিয়ে তিনি বলেন, দেশে যেভাবে উন্নয়ন হচ্ছে, আশা করা যায় ২০ বছর পর ঈদের কাপড় দেওয়ার মতো দরিদ্র মানুষ খুঁজে পাওয়া যাবে না।

এই উদ্যোগ প্রসঙ্গে আছাদুজ্জামান মিয়া বলেন, প্রজাতন্ত্রের কর্মচারী হিসেবে পুলিশ কারও ওপর বল প্রয়োগ করে না। লাঠি ঘুরায় না বা ক্ষমতা ও দাপট দেখায় না। জনগণকে ভালোবেসে, ভালো সেবা দিয়ে সবার ভালোবাসা অর্জন করতে চায়। ঈদে সবার গায়ে যেন নতুন পোশাক ওঠে, সেই চেষ্টা থেকে পুলিশ কাপড় বিতরণ করছে। ঈদ তখনই সার্থক হবে, যখন সবার গায়ে নতুন কাপড় উঠবে ও সবাই ঈদের দিন ভালো খাবার পাবেন। এটিই ইসলামের কথা।

অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন ডিএমপির অতিরিক্ত কমিশনার (সিটিটিসি) মনিরুল ইসলাম, অতিরিক্ত কমিশনার (ক্রাইম অ্যান্ড অপস) কৃষ্ণপদ রায়, যুগ্ম কমিশনার (ট্রান্সপোর্ট) আবদুল কুদ্দুস আমিন, যুগ্ম কমিশনার (অপারেশন) মনির হোসেন, রমনা বিভাগের উপকমিশনার মারুফ হোসেন সরদার, মতিঝিল বিভাগের উপকমিশনার মোহাম্মদ আনোয়ার হোসেন প্রমুখ।