ঢাকা ০৭:০৬ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ২৪ মে ২০২৪, ১০ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম :
Logo এমপি আনার খুন: রহস্যময় রূপে শীর্ষ দুই ব্যবসায়ী Logo রূপালী ব্যাংকের ডিজিএম কর্তৃক সহকর্মী নারীকে যৌন হয়রানি: ধামাচাপা দিতে মরিয়া তদন্ত কমিটি Logo প্রতিবন্ধী ভাতার টাকা হাতিয়ে বহাল তবিয়তে মাদারীপুরের দুই সহকারী সমাজসেবা অফিসারl Logo যমুনা লাইফের গ্রাহক প্রতারণায় ‘জড়িতরা’ কে কোথায় Logo ঢাকাস্থ ভোলা সাংবাদিক ফোরামের সভাপতি আহসান কামরুল, সম্পাদক জিয়াউর রহমান Logo টাটা মটরস বাংলাদেশে উদ্বোধন করলো টাটা যোদ্ধা Logo আশা শিক্ষা কর্মসূচী কর্তৃক অভিভাবক মতবিনিময় সভা Logo গণপূর্ত প্রধান প্রকৌশলীর গাড়ি চাপায় পিষ্ট সহকারী প্রকৌশলী -উত্তাল গণপূর্ত Logo শাবিপ্রবির বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান হলের উদ্যোগে বৃক্ষরোপণ Logo সওজের উপ-বিভাগীয় প্রকৌশলী নাহিনুরের সীমাহীন সম্পদ ও অনিয়ম -পর্ব-০১




৩৫০ বউয়ের এক স্বামী !

প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ০৯:১২:১১ পূর্বাহ্ন, রবিবার, ১৯ মে ২০১৯ ৯২ বার পড়া হয়েছে

আন্তর্জাতিক ডেস্ক;
প্রেমিক হিসেবে তিনি পাক্কা। গুনে গুনে সাড়ে তিনশ নারীর সঙ্গে প্রেম করছেন। প্রেম করেই ক্ষান্ত দেননি, সবাইকে বিয়ের ফাঁদেও ফেলেছেন। নাম তার কে ভেঙ্কট রত্না রেড্ডি। বাড়ি ভারতের অন্ধ্রপ্রদেশে।

পুলিশের বরাত দিয়ে রেড্ডি নামের সেই ব্যক্তির তিন শতাধিক বিয়ের খবর জানিয়েছে ভারতীয় সংবাদমাধ্যম ডেইলি হান্ট। রেড্ডি নামের ওই ভারতীয় পুরুষের ‘স্ত্রীরা’ বিভিন্ন দেশের। কেউ ভারতীয়, কেউবা বাংলাদেশি, কেউ আমেরিকান অথবা অন্য কোনো দেশের।

প্রতিবেদন অনুযায়ী, রেড্ডি নামের ওই পুরুষ মিষ্টি মিষ্টি কথা বলে আলাপ জমাতেন নারীদের সঙ্গে। ফলে খুব অল্পদিনের মধ্যেই নারীরা তার প্রেমে পড়ে যেতো। তার ইংরেজি দক্ষতা এত ভালো যে মেয়ে এবং মেয়ের পরিবার অভিভূত হয়ে যেত।

তবে প্রেম করেই তার এই ছলনার গল্প শেষ হতো না। প্রেমে পড়া নারীকে বিয়ে করতেন তিনি। এভাবে ভারতেই তিনি শতাধিক বিয়ে করেন। শেষে বিজনেস ভিসা যোগাড় করে যুক্তরাষ্ট্রে পাড়ি জমান।

ডেইলি হান্ট তাদের প্রতিবেদনে জানিয়েছে, ভারতে বেশকিছু তরুণীকে ফাঁদে ফেলে বিয়ে করার পর যুক্তরাষ্ট্রের পাড়ি দেন স্নাতক পাস না করেও ইংরেজিতে কথা বলতে পারদর্শী এই ভারতীয়। সেখানে শুরু হয় তার বিয়ে ‘উদযাপন’।

নানান কৌশল করে যুক্তরাষ্ট্রে পৌঁছানোর পর দেশটির একটি বিখ্যাত ম্যাট্রিমনিয়াল সাইটে (বিয়ে সংক্রান্ত ওয়েবসাইট) ভেঙ্কট তার প্রোফাইল আপডেট করেন। তারপর থেকেই তার কাছে বিয়ের প্রস্তাব আসতে থাকে।

যুক্তরাষ্ট্রে যাওয়ার পর দেশটিতে বসবাসরত একজন ভারতীয় প্রবাসী নারীকে বিয়ে করার প্রলোভন দেখান। তাকে বিয়েও করেন কিন্তু বিয়ের কিছুদিনের মাথায় ‘স্ত্রীর’ কাছ থেকে ২০ লাখ রুপি হাতিয়ে নিয়ে পালিয়ে যান। এভাবে সেখানেও অনেক মেয়েকে ফাঁদে ফেলেন ভেঙ্কট।

তবে দীর্ঘদিন ধরে এসব করলেও তিনি ছিলেনে ধরাছোঁয়ার বাইরে। অবশেষে পুলিশের জালে ধরা পড়েন এই ভারতীয়। তাকে গ্রেফতারের পর পুলিশ খোঁজ নিয়ে জানতে পারে যে, তার স্ত্রীর সংখ্যা ৩৫০। গোটা বিশ্বের বিভিন্ন দেশে তার ‘স্ত্রী’ আছে।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

ট্যাগস :




৩৫০ বউয়ের এক স্বামী !

আপডেট সময় : ০৯:১২:১১ পূর্বাহ্ন, রবিবার, ১৯ মে ২০১৯

আন্তর্জাতিক ডেস্ক;
প্রেমিক হিসেবে তিনি পাক্কা। গুনে গুনে সাড়ে তিনশ নারীর সঙ্গে প্রেম করছেন। প্রেম করেই ক্ষান্ত দেননি, সবাইকে বিয়ের ফাঁদেও ফেলেছেন। নাম তার কে ভেঙ্কট রত্না রেড্ডি। বাড়ি ভারতের অন্ধ্রপ্রদেশে।

পুলিশের বরাত দিয়ে রেড্ডি নামের সেই ব্যক্তির তিন শতাধিক বিয়ের খবর জানিয়েছে ভারতীয় সংবাদমাধ্যম ডেইলি হান্ট। রেড্ডি নামের ওই ভারতীয় পুরুষের ‘স্ত্রীরা’ বিভিন্ন দেশের। কেউ ভারতীয়, কেউবা বাংলাদেশি, কেউ আমেরিকান অথবা অন্য কোনো দেশের।

প্রতিবেদন অনুযায়ী, রেড্ডি নামের ওই পুরুষ মিষ্টি মিষ্টি কথা বলে আলাপ জমাতেন নারীদের সঙ্গে। ফলে খুব অল্পদিনের মধ্যেই নারীরা তার প্রেমে পড়ে যেতো। তার ইংরেজি দক্ষতা এত ভালো যে মেয়ে এবং মেয়ের পরিবার অভিভূত হয়ে যেত।

তবে প্রেম করেই তার এই ছলনার গল্প শেষ হতো না। প্রেমে পড়া নারীকে বিয়ে করতেন তিনি। এভাবে ভারতেই তিনি শতাধিক বিয়ে করেন। শেষে বিজনেস ভিসা যোগাড় করে যুক্তরাষ্ট্রে পাড়ি জমান।

ডেইলি হান্ট তাদের প্রতিবেদনে জানিয়েছে, ভারতে বেশকিছু তরুণীকে ফাঁদে ফেলে বিয়ে করার পর যুক্তরাষ্ট্রের পাড়ি দেন স্নাতক পাস না করেও ইংরেজিতে কথা বলতে পারদর্শী এই ভারতীয়। সেখানে শুরু হয় তার বিয়ে ‘উদযাপন’।

নানান কৌশল করে যুক্তরাষ্ট্রে পৌঁছানোর পর দেশটির একটি বিখ্যাত ম্যাট্রিমনিয়াল সাইটে (বিয়ে সংক্রান্ত ওয়েবসাইট) ভেঙ্কট তার প্রোফাইল আপডেট করেন। তারপর থেকেই তার কাছে বিয়ের প্রস্তাব আসতে থাকে।

যুক্তরাষ্ট্রে যাওয়ার পর দেশটিতে বসবাসরত একজন ভারতীয় প্রবাসী নারীকে বিয়ে করার প্রলোভন দেখান। তাকে বিয়েও করেন কিন্তু বিয়ের কিছুদিনের মাথায় ‘স্ত্রীর’ কাছ থেকে ২০ লাখ রুপি হাতিয়ে নিয়ে পালিয়ে যান। এভাবে সেখানেও অনেক মেয়েকে ফাঁদে ফেলেন ভেঙ্কট।

তবে দীর্ঘদিন ধরে এসব করলেও তিনি ছিলেনে ধরাছোঁয়ার বাইরে। অবশেষে পুলিশের জালে ধরা পড়েন এই ভারতীয়। তাকে গ্রেফতারের পর পুলিশ খোঁজ নিয়ে জানতে পারে যে, তার স্ত্রীর সংখ্যা ৩৫০। গোটা বিশ্বের বিভিন্ন দেশে তার ‘স্ত্রী’ আছে।