ঢাকা ১১:৫৮ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ১২ জুলাই ২০২৪, ২৮ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম :
Logo পুলিশের হামলার পরও ৬ ঘন্টা ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়ক অবরোধে কুবি শিক্ষার্থীর Logo শাবিপ্রবির প্রো-ভিসি অধ্যাপক ড. কবির হোসেনের সফলতার একবছর পূর্তি Logo এবার আলোচনায় আওয়ামী লীগের থানা ওয়ার্ড কমিটিতে পদ বাণিজ্যে! Logo প্রত্যয় স্কিম প্রত্যাহার দাবি Logo শাবি উপাচার্যের কৃতিত্ব; মাত্র ৪বছরেই আয়োজন করছেন ২ বার কনভোকেশন Logo কুবিতে সমাপ্ত হলো আন্তর্জাতিক নাট্য উৎসব Logo পর্দা নামলো থিয়েটার কুবি আয়োজিত দুই দিনের আন্তর্জাতিক নাট্য উৎসব Logo রেলওয়ের নিরাপত্তা বাহিনীর কমান্ড্যান্ট শহীদ উল্লাহর সম্পদের খনি  Logo সাবরেজিস্ট্রার অফিসের হিসেবে ৬৭৭ কোটি টাকার নয় ছয় Logo সাংবাদিকদের নিয়ে মতিউরের স্ত্রীর বিতর্কিত বক্তব্যের প্রতিবাদ: হাজার কোটি টাকা মানহানী মামলার হুমকি বিএমইউজে’ র




ফতুল্লায় প্রতারণার অভিযোগে যুবলীগ কর্মী আটক

প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ০৯:১৭:৫৬ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ১৭ মে ২০১৯ ১৫৩ বার পড়া হয়েছে

জেলা প্রতিনিধি নারায়ণগঞ্জ; 

নারায়ণগঞ্জের ফতুল্লায় পল্লী চিকিৎসককে প্রতারণার মাধ্যমে অর্থ হাতিয়ে নেয়ার অভিযোগে ইউসুফ (৩৫) নামের একজনকে আটক করেছে পুলিশ। সে ফতুল্লা থানা যুবলীগের কর্মী বলে জানিয়েছে এলাকাবাসী।

বৃহস্পতিবার (১৬ মে) রাতে ফতুল্লার দাপা ইদ্রাকপুরস্থ রেলস্টেশন এলাকায় অভিযান চালিয়ে ইউসুফকে আটক করা হয়। ইউসুফ ফতুল্লার দাপা ইদ্রাকপুরস্থ রেলস্টেশন এলাকার নুরু ঘটকের ছেলে।

প্রতারণার শিকার ফতুল্লার মুসলিমনগর নয়াবাজার এলাকার মৃত আজহার আলীর ছেলে মিলন হোসেন। তিনি নয়াবাজার এলাকার একজন পল্লী চিকিৎসক। নয়াবাজারে তার ফার্মেসির দোকান রয়েছে।

মিলন হোসেন জানান, ১২ মে দুপুরে ফামের্সির ওষুধ নিতে ঢাকায় যাওয়ার জন্য ফতুল্লা রেল স্টেশনে যায় মিলন। স্টেশনে ট্রেনের অপেক্ষা করার সময় ৫-৬ লোক অস্ত্রের মুখে তাকে একটু দূরে নিয়ে কিছু বলার আগেই মারধর এবং পকেটে থাকা ১০ হাজার টাকা ও একটি স্বর্ণের আংটি ছিনিয়ে নেয়। এরপর নারী দিয়ে ফাঁসানো ভয় দেখিয়ে আরও ৫০ হাজার টাকা দাবি করে। এ সময় জান ও মান বাঁচাতে মিলন বিকাশের মাধ্যমে তাৎক্ষণিক ৩০ হাজার টাকা এনে দিলে ছেড়ে দেয়া হয়। ছাড়া পাওয়ার পর খোঁজ নিয়ে মিলন জানতে পারে তারা প্রতারক চক্রের সদস্য। তারা ফতুল্লার রেলস্টেশনসহ আশপাশের এলাকায় নারী দিয়ে ফাসানোর ভয় দেখনোসহ বিভিন্ন পন্থা অবলম্বন করে অর্থ হাতিয়ে নেয়। এ ঘটনায় মিলন হোসেন বাদী হয়ে ফতুল্লার দাপা ইদ্রাকপুর এলাকার শাহজামালের ছেলে রুবেল, নুরু ঘটকের ছেলে ইউসুফ, শাহার ছেলে সানী, শাহজালালের ছেলে জুয়েলকে আসামি করে ফতুল্লা মডেল থানায় অভিযোগ করেন।

তিনি আরও জানান, ফতুল্লা রেলস্টেশনসহ আশপাশের এলাকায় একটি প্রতারক চক্র রয়েছে। চক্রটি ফতুল্লা থানা যুবলীগের সভাপতি মীর সোহেল আলীর সঙ্গে রাজনীতি করে। তারা যুবলীগ নেতার পরিচয় দিয়ে এসব অপকর্ম করে। মীর সোহেলের লোক হওয়ায় কেউ কোনো প্রতিবাদ করে না।

ফতুল্লা মডেল থানার পরিদর্শক (তদন্ত) হাসানুজ্জামান বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, প্রতারণার করে বিকাশের মাধ্যমে টাকা নেয়া ও মারধরের ঘটনায় ইউসুফ নামের একজনকে আটক করা হয়েছে। এ ঘটনায় মামলা এবং অন্যদের আটকের চেষ্টা চলছে।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

ট্যাগস :




ফতুল্লায় প্রতারণার অভিযোগে যুবলীগ কর্মী আটক

আপডেট সময় : ০৯:১৭:৫৬ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ১৭ মে ২০১৯

জেলা প্রতিনিধি নারায়ণগঞ্জ; 

নারায়ণগঞ্জের ফতুল্লায় পল্লী চিকিৎসককে প্রতারণার মাধ্যমে অর্থ হাতিয়ে নেয়ার অভিযোগে ইউসুফ (৩৫) নামের একজনকে আটক করেছে পুলিশ। সে ফতুল্লা থানা যুবলীগের কর্মী বলে জানিয়েছে এলাকাবাসী।

বৃহস্পতিবার (১৬ মে) রাতে ফতুল্লার দাপা ইদ্রাকপুরস্থ রেলস্টেশন এলাকায় অভিযান চালিয়ে ইউসুফকে আটক করা হয়। ইউসুফ ফতুল্লার দাপা ইদ্রাকপুরস্থ রেলস্টেশন এলাকার নুরু ঘটকের ছেলে।

প্রতারণার শিকার ফতুল্লার মুসলিমনগর নয়াবাজার এলাকার মৃত আজহার আলীর ছেলে মিলন হোসেন। তিনি নয়াবাজার এলাকার একজন পল্লী চিকিৎসক। নয়াবাজারে তার ফার্মেসির দোকান রয়েছে।

মিলন হোসেন জানান, ১২ মে দুপুরে ফামের্সির ওষুধ নিতে ঢাকায় যাওয়ার জন্য ফতুল্লা রেল স্টেশনে যায় মিলন। স্টেশনে ট্রেনের অপেক্ষা করার সময় ৫-৬ লোক অস্ত্রের মুখে তাকে একটু দূরে নিয়ে কিছু বলার আগেই মারধর এবং পকেটে থাকা ১০ হাজার টাকা ও একটি স্বর্ণের আংটি ছিনিয়ে নেয়। এরপর নারী দিয়ে ফাঁসানো ভয় দেখিয়ে আরও ৫০ হাজার টাকা দাবি করে। এ সময় জান ও মান বাঁচাতে মিলন বিকাশের মাধ্যমে তাৎক্ষণিক ৩০ হাজার টাকা এনে দিলে ছেড়ে দেয়া হয়। ছাড়া পাওয়ার পর খোঁজ নিয়ে মিলন জানতে পারে তারা প্রতারক চক্রের সদস্য। তারা ফতুল্লার রেলস্টেশনসহ আশপাশের এলাকায় নারী দিয়ে ফাসানোর ভয় দেখনোসহ বিভিন্ন পন্থা অবলম্বন করে অর্থ হাতিয়ে নেয়। এ ঘটনায় মিলন হোসেন বাদী হয়ে ফতুল্লার দাপা ইদ্রাকপুর এলাকার শাহজামালের ছেলে রুবেল, নুরু ঘটকের ছেলে ইউসুফ, শাহার ছেলে সানী, শাহজালালের ছেলে জুয়েলকে আসামি করে ফতুল্লা মডেল থানায় অভিযোগ করেন।

তিনি আরও জানান, ফতুল্লা রেলস্টেশনসহ আশপাশের এলাকায় একটি প্রতারক চক্র রয়েছে। চক্রটি ফতুল্লা থানা যুবলীগের সভাপতি মীর সোহেল আলীর সঙ্গে রাজনীতি করে। তারা যুবলীগ নেতার পরিচয় দিয়ে এসব অপকর্ম করে। মীর সোহেলের লোক হওয়ায় কেউ কোনো প্রতিবাদ করে না।

ফতুল্লা মডেল থানার পরিদর্শক (তদন্ত) হাসানুজ্জামান বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, প্রতারণার করে বিকাশের মাধ্যমে টাকা নেয়া ও মারধরের ঘটনায় ইউসুফ নামের একজনকে আটক করা হয়েছে। এ ঘটনায় মামলা এবং অন্যদের আটকের চেষ্টা চলছে।