ঢাকা ১২:৪২ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ১৩ জুলাই ২০২৪, ২৮ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম :
Logo পুলিশের হামলার পরও ৬ ঘন্টা ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়ক অবরোধে কুবি শিক্ষার্থীর Logo শাবিপ্রবির প্রো-ভিসি অধ্যাপক ড. কবির হোসেনের সফলতার একবছর পূর্তি Logo এবার আলোচনায় আওয়ামী লীগের থানা ওয়ার্ড কমিটিতে পদ বাণিজ্যে! Logo প্রত্যয় স্কিম প্রত্যাহার দাবি Logo শাবি উপাচার্যের কৃতিত্ব; মাত্র ৪বছরেই আয়োজন করছেন ২ বার কনভোকেশন Logo কুবিতে সমাপ্ত হলো আন্তর্জাতিক নাট্য উৎসব Logo পর্দা নামলো থিয়েটার কুবি আয়োজিত দুই দিনের আন্তর্জাতিক নাট্য উৎসব Logo রেলওয়ের নিরাপত্তা বাহিনীর কমান্ড্যান্ট শহীদ উল্লাহর সম্পদের খনি  Logo সাবরেজিস্ট্রার অফিসের হিসেবে ৬৭৭ কোটি টাকার নয় ছয় Logo সাংবাদিকদের নিয়ে মতিউরের স্ত্রীর বিতর্কিত বক্তব্যের প্রতিবাদ: হাজার কোটি টাকা মানহানী মামলার হুমকি বিএমইউজে’ র




মেয়রকে দেখে ৮০ টাকার কাঁচামরিচ ৪২ টাকা!

প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ০৪:৫০:৪১ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ১৪ মে ২০১৯ ১৪৪ বার পড়া হয়েছে

নিজস্ব প্রতিবেদক |
কাঁচামরিচের কেজি ৮০ টাকা। এই দরে বিক্রি করছেন সকাল থেকেই। দুপুর ১২টার দিকে হঠাৎ ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের (ডিএনসিসি) মেয়র আতিকুল ইসলাম বাজারে ঢোকা মাত্র তাকে দেখে মরিচের দর নেমে এল ৪২ টাকায়। কিন্তু শেষ রক্ষা হয়নি, ধরা পড়ে এই অসাধু ব্যবসায়ীকে ১৫ হাজার টাকা জরিমানা গুনতে হয়েছে।

সোমবার উত্তরা ৬ নম্বর সেক্টর কাঁচাবাজারের চিত্র এটি। এদিন বাজারের নিত্যপণ্যের মূল্য যাচাইয়ে আকস্মিক পরিদর্শনে আসেন আতিকুল ইসলাম। তখন তার সঙ্গে থাকা ডিএনসিসির নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট সাজিদ আনোয়ার ওই ব্যবসায়ীকে বেশি মূল্যে পণ্য বিক্রির জন্য জরিমানা করেন।

এছাড়া দুইটি দোকানে বিভিন্ন পণ্যের লেভেল না থাকায় ২০ হাজার করে ৪০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়। মেয়াদোত্তীর্ণ পণ্য বিক্রয়ের অভিযোগে ২টি মুদি দোকানকে ১৫ হাজার টাকা করে ৩০ হাজার টাকা এবং ফুটপাত দখল করে ব্যবসা করায় ২ জনকে মোট ১৫ হাজার টাকা জরিমানা করেন মেয়রের সঙ্গে থাকা আরেক নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট সোহেল রানা। এ সময় কয়েকটি দোকানে গিয়ে কাউকে খুঁজে পাওয়া যায়নি। মেয়রকে দেখেই তারা পগারপাড়। এদিন মেয়রের নির্দেশে রাস্তা ও ফুটপাত থেকে প্রায় ৩০ টি অস্থায়ী দোকান উচ্ছেদ করা হয়।

ক্রেতাদের মূল্যতালিকা দেখে পণ্য কেনার আহ্বান জানিয়ে এ সময় মেয়র বলেন, ‘নির্ধারিত মূল্যের অতিরিক্ত নেয়া হলে অসাধু ব্যবসায়ীদের আইন অনুযায়ী জেল ও জরিমানা করা হবে। বাজারে সকল পণ্যের যথেষ্ট সরবরাহ রয়েছে।’ তিনি পর্যায়ক্রমে ডিএনসিসির অন্যান্য বাজারও পরিদর্শন করবেন বলে জানান।

এদিকে মেয়রের পরিদর্শন শেষে ম্যাজিস্ট্রেট সাজিদ আনোয়ার ভ্রাম্যমাণ আদালত অব্যাহত রাখেন। এসময় উত্তরায় সুপারশপ ‘মীনা বাজারে’ ধূমপানের বিজ্ঞাপন প্রদর্শন করায় ১ লক্ষ টাকা এবং ডাল, রসুন ও আদা নির্ধারিত দামের চেয়ে বেশি নেয়া এবং বিএসটিআই এর অনুমোদন না থাকা ও অন্যান্য অভিযোগে মোট তিন লক্ষ টাকা জরিমানা করা হয়। ‘শপ এন সেভ’ নামে আরেকটি সুপারশপে কাঁচা মরিচ ও বেগুন নির্ধারিত মূল্যের বেশি নেয়ায় এবং বিএসটিআই অনুমোদন না থাকায় ও অন্যান্য অভিযোগে ভোক্তা অধিকার আইন অনুযায়ী ১ লক্ষ টাকা জরিমানা করা হয়।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

ট্যাগস :




মেয়রকে দেখে ৮০ টাকার কাঁচামরিচ ৪২ টাকা!

আপডেট সময় : ০৪:৫০:৪১ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ১৪ মে ২০১৯

নিজস্ব প্রতিবেদক |
কাঁচামরিচের কেজি ৮০ টাকা। এই দরে বিক্রি করছেন সকাল থেকেই। দুপুর ১২টার দিকে হঠাৎ ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের (ডিএনসিসি) মেয়র আতিকুল ইসলাম বাজারে ঢোকা মাত্র তাকে দেখে মরিচের দর নেমে এল ৪২ টাকায়। কিন্তু শেষ রক্ষা হয়নি, ধরা পড়ে এই অসাধু ব্যবসায়ীকে ১৫ হাজার টাকা জরিমানা গুনতে হয়েছে।

সোমবার উত্তরা ৬ নম্বর সেক্টর কাঁচাবাজারের চিত্র এটি। এদিন বাজারের নিত্যপণ্যের মূল্য যাচাইয়ে আকস্মিক পরিদর্শনে আসেন আতিকুল ইসলাম। তখন তার সঙ্গে থাকা ডিএনসিসির নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট সাজিদ আনোয়ার ওই ব্যবসায়ীকে বেশি মূল্যে পণ্য বিক্রির জন্য জরিমানা করেন।

এছাড়া দুইটি দোকানে বিভিন্ন পণ্যের লেভেল না থাকায় ২০ হাজার করে ৪০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়। মেয়াদোত্তীর্ণ পণ্য বিক্রয়ের অভিযোগে ২টি মুদি দোকানকে ১৫ হাজার টাকা করে ৩০ হাজার টাকা এবং ফুটপাত দখল করে ব্যবসা করায় ২ জনকে মোট ১৫ হাজার টাকা জরিমানা করেন মেয়রের সঙ্গে থাকা আরেক নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট সোহেল রানা। এ সময় কয়েকটি দোকানে গিয়ে কাউকে খুঁজে পাওয়া যায়নি। মেয়রকে দেখেই তারা পগারপাড়। এদিন মেয়রের নির্দেশে রাস্তা ও ফুটপাত থেকে প্রায় ৩০ টি অস্থায়ী দোকান উচ্ছেদ করা হয়।

ক্রেতাদের মূল্যতালিকা দেখে পণ্য কেনার আহ্বান জানিয়ে এ সময় মেয়র বলেন, ‘নির্ধারিত মূল্যের অতিরিক্ত নেয়া হলে অসাধু ব্যবসায়ীদের আইন অনুযায়ী জেল ও জরিমানা করা হবে। বাজারে সকল পণ্যের যথেষ্ট সরবরাহ রয়েছে।’ তিনি পর্যায়ক্রমে ডিএনসিসির অন্যান্য বাজারও পরিদর্শন করবেন বলে জানান।

এদিকে মেয়রের পরিদর্শন শেষে ম্যাজিস্ট্রেট সাজিদ আনোয়ার ভ্রাম্যমাণ আদালত অব্যাহত রাখেন। এসময় উত্তরায় সুপারশপ ‘মীনা বাজারে’ ধূমপানের বিজ্ঞাপন প্রদর্শন করায় ১ লক্ষ টাকা এবং ডাল, রসুন ও আদা নির্ধারিত দামের চেয়ে বেশি নেয়া এবং বিএসটিআই এর অনুমোদন না থাকা ও অন্যান্য অভিযোগে মোট তিন লক্ষ টাকা জরিমানা করা হয়। ‘শপ এন সেভ’ নামে আরেকটি সুপারশপে কাঁচা মরিচ ও বেগুন নির্ধারিত মূল্যের বেশি নেয়ায় এবং বিএসটিআই অনুমোদন না থাকায় ও অন্যান্য অভিযোগে ভোক্তা অধিকার আইন অনুযায়ী ১ লক্ষ টাকা জরিমানা করা হয়।