ঢাকা ০৮:০৮ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ১৯ জুন ২০২৪, ৫ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ




অভিনেত্রীকে ধর্ষণ করে গ্রেফতার চিকিৎসক

প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ০১:১১:৩৪ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ৯ মে ২০১৯ ১০৭ বার পড়া হয়েছে

বিনোদন ডেস্ক;
২১ বছরের একজন উঠতি মডেল-অভিনেত্রীকে ধর্ষণ করে গ্রেফতার হয়েছেন চিকিৎসক। এই বিষয়টি বেশ আলোচনায় এসেছে। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে শুরু হয়েছে তুমুল সমালোচনা। সবাই ওই নীতিহিন চিকিৎসকের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি প্রত্যাশা করেছেন।

ঘটনাটি ঘটেছে ভারতের মুম্বাইয়ে। জানা গেছে ওই মডেল ও অভিনেত্রীকে একাধিকবার ধর্ষণের পর সেই ভিডিওচিত্র ধারণ করেছে ৫২ বছরের এক চিকিৎসক। সেই ভিডিও দিয়ে তিনি প্রতিনিয়ত ব্ল্যাকমেইল করতেন অভিনেত্রীকে।

অবশেষে বাধ্য হয়ে থানায় অভিযোগ দায়ের করেন ওই অভিনেত্রী। সেই অভিযোগের ভিত্তিতে অভিযুক্ত চিকিৎসককে গ্রেফতারও করা হয়েছে।

পুলিশ সূত্রে খবর, একটি হিন্দি ধারাবাহিকের সূত্রে চিকিৎসকের সঙ্গে মুম্বাইয়ে পরিচয় হয়েছিল ওই মডেলের। সেখান থেকেই প্রেম। পরবর্তীতে এক সঙ্গে থাকার সিদ্ধান্ত নেন তারা। লিভ ইন করতেন দু’জনে।

ভারতীয় গণমাধ্যম জানায়, ওই মডেল-অভিনেত্রীর অভিযোগের ভিত্তিতেই চিকিৎসকের বিরুদ্ধে মামলা হয়। পরে চিকিৎসককে তার বাড়ি থেকেই গ্রেফতার করা হয়।

মডেলের অভিযোগ, বন্ধুত্ব ছিল তাদের। সেই বন্ধুত্বের সূত্র ধরেই পরে এক সঙ্গে থাকতে শুরু করেন তারা। তরুণীর অভিযোগ, তাকে ধর্ষণ করে ওই চিকিৎসক এবং আপত্তিকর ছবিও তুলে রাখেন। এই ছবি ও ভিডিও প্রকাশ করে দেওয়ার ভয় দেখিয়ে তাকে বারবার ধর্ষণ করেছে ওই চিকিৎসক।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

ট্যাগস :




অভিনেত্রীকে ধর্ষণ করে গ্রেফতার চিকিৎসক

আপডেট সময় : ০১:১১:৩৪ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ৯ মে ২০১৯

বিনোদন ডেস্ক;
২১ বছরের একজন উঠতি মডেল-অভিনেত্রীকে ধর্ষণ করে গ্রেফতার হয়েছেন চিকিৎসক। এই বিষয়টি বেশ আলোচনায় এসেছে। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে শুরু হয়েছে তুমুল সমালোচনা। সবাই ওই নীতিহিন চিকিৎসকের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি প্রত্যাশা করেছেন।

ঘটনাটি ঘটেছে ভারতের মুম্বাইয়ে। জানা গেছে ওই মডেল ও অভিনেত্রীকে একাধিকবার ধর্ষণের পর সেই ভিডিওচিত্র ধারণ করেছে ৫২ বছরের এক চিকিৎসক। সেই ভিডিও দিয়ে তিনি প্রতিনিয়ত ব্ল্যাকমেইল করতেন অভিনেত্রীকে।

অবশেষে বাধ্য হয়ে থানায় অভিযোগ দায়ের করেন ওই অভিনেত্রী। সেই অভিযোগের ভিত্তিতে অভিযুক্ত চিকিৎসককে গ্রেফতারও করা হয়েছে।

পুলিশ সূত্রে খবর, একটি হিন্দি ধারাবাহিকের সূত্রে চিকিৎসকের সঙ্গে মুম্বাইয়ে পরিচয় হয়েছিল ওই মডেলের। সেখান থেকেই প্রেম। পরবর্তীতে এক সঙ্গে থাকার সিদ্ধান্ত নেন তারা। লিভ ইন করতেন দু’জনে।

ভারতীয় গণমাধ্যম জানায়, ওই মডেল-অভিনেত্রীর অভিযোগের ভিত্তিতেই চিকিৎসকের বিরুদ্ধে মামলা হয়। পরে চিকিৎসককে তার বাড়ি থেকেই গ্রেফতার করা হয়।

মডেলের অভিযোগ, বন্ধুত্ব ছিল তাদের। সেই বন্ধুত্বের সূত্র ধরেই পরে এক সঙ্গে থাকতে শুরু করেন তারা। তরুণীর অভিযোগ, তাকে ধর্ষণ করে ওই চিকিৎসক এবং আপত্তিকর ছবিও তুলে রাখেন। এই ছবি ও ভিডিও প্রকাশ করে দেওয়ার ভয় দেখিয়ে তাকে বারবার ধর্ষণ করেছে ওই চিকিৎসক।