• ১০ই আগস্ট ২০২২ খ্রিস্টাব্দ , ২৬শে শ্রাবণ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

‘শিবচরে স্কুলছাত্রীকে ‘দলবেঁধে ধর্ষণ

সকালের সংবাদ ডেস্ক;
প্রকাশিত মে ৮, ২০১৯, ১৮:১৯ অপরাহ্ণ
‘শিবচরে স্কুলছাত্রীকে ‘দলবেঁধে ধর্ষণ

ধর্ষক পারভেজ

মাদারীপুর প্রতিনিধি:
মাদারীপুরের শিবচরে এক স্কুলছাত্রীকে দল বেধে ধর্ষণের ঘটনায় মামলা করায় বিপাকে পড়েছে ধর্ষিতার পরিবার। এদিকে মামলা হওয়ার পরে ধর্ষকদের হুমকিতে স্কুলে যাওয়া বন্ধ হয়ে গেছে ধর্ষিতা স্কুলছাত্রীর।

মামলা নথি ও সংশ্লিষ্ট একাধিক সূত্রে জানা গেছে, গত ১ এপ্রিল বাড়ি যাওয়ার পথে তিন বন্ধু মিলে ইজিবাইকে তুলে নিয়ে দত্তপাড়া ইউনিয়নের মগড়া পুকুর পাড় এলাকার রতন বিশ্বাসের বাড়িতে আটকে রেখে ওই স্কুলছাত্রীকে পারভেজ ও তার দুই সহযোগী দল বেধে ধর্ষণ করে। পরে ধর্ষণের চিত্র ইন্টারনেটে ছড়িয়ে দেয়ার দেখিয়ে শারিরীক সম্পর্কের জন্য চাপ সৃষ্টি করে স্কুলছাত্রীকে। তাদের আহবানে সারা না দেয়ায় সেই ধর্ষণের ভিডিও ইন্টারনেটে ছেড়ে দেয় ধর্ষকরা। এরপর ধর্ষিতার পরিবার থানায় মামলা করে।

এদিকে মামলা করে বিপাকে পড়েছে ধর্ষিতার পরিবার। একদিকে মামলা তুলে নেয়ার হুমিকে দিচ্ছে। অপরদিকে ধর্ষিতাকে খুন ও এসিড দিয়ে পুড়িয়ে দেয়ার হুমকিতে স্কুলে যাওয়া বন্ধ হয়ে গেছে।
ধর্ষিতার মা বলেন, মামলা তুলে না নিলে হত্যা করে ফেলবে মেয়েকে এমন হুমকি দিচ্ছে। এতে স্কুলে যাওয়া বন্ধ হয়ে গেছে। এ ব্যাপারে মেয়েটির বাবা মাদারীপুর আদালতে মামলা দায়ের করলে পারভেজকে গ্রেফতার করে পুলিশ। তবে তার সহযোগিরা গাঁ ঢাকা দেয়। ধর্ষকদের ভয়ে বিদ্যালয়ে যেতে পারছে না স্কুলছাত্রী। এতে অনিশ্চিত হয়ে পড়েছে ওই ধর্ষিতার পড়াশুনা।

আটককৃত পারভেজের দুই সহযোগী ভাঙ্গা উপজেলার ব্রাহ্মনপাড়া গ্রামের নিকা মুন্সীর ছেলে সজিব মুন্সী এবং শিবচর উপজেলার দত্তপাড়া মগড়া গ্রামের দাদন শেখের ছেলে সাকিব শেখ।

শিবচর থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা জাকির হোসেন মোল্লা জানান, ধর্ষণের ঘটনায় ভিকটিমের পরিবার মামলা দায়ের করলে ধর্ষক পারভেজকে গ্রেফতার করা হয়। বাকী আসামিদের গ্রেফতারে অভিযান চলছে। হুমকির বিষয়টিও আমাদের নলেজে রয়েছে। পুলিশ দ্রুত সময়ের মধ্যেই গ্রেফতার করবে।

error: Content is protected !!