• ১০ই আগস্ট ২০২২ খ্রিস্টাব্দ , ২৬শে শ্রাবণ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

দুই জিনের বাদশাহ গ্রেফতার

সকালের সংবাদ ডেস্ক;
প্রকাশিত মে ৫, ২০১৯, ২৩:৫০ অপরাহ্ণ
দুই জিনের বাদশাহ গ্রেফতার

টাঙ্গাইল প্রতিনিধি:

টাঙ্গাইলের কালিহাতীতে টাকা নিতে এসে এলাকাবাসীর হাতে ধরা পড়েছে কথিত দুই জিনের বাদশাহ। পরে ওই দুই জনকে উত্তম-মধ্যম দিয়ে পুলিশের কাছে সোপর্দ করেছেন স্থানীয়রা। রবিবার দুপুরে উপজেলার দেউপুর গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

গ্রেফতারকৃতরা হলো- গাইবান্ধার গোবিন্দগঞ্জ উপজেলার নদাপুর গ্রামের ডিপ্তি আকন্দের ছেলে মোখলেছুর রহমান (২৮) ও একই এলাকার মৃত আব্দুস ছাত্তারের ছেলে আবু তাহের (৩৩)। এসময় তাদের কাছ থেকে একটি পিতলের পুতুল উদ্ধার করা হয়েছে।

জানা যায়, বৃহস্পতিবার রাতে জিনের বাদশাহ পরিচয়ে উপজেলার দেউপুর গ্রামের সুরুজ্জামানের সাথে মোবাইল ফোনে কথা বলেন মোখলেছুর রহমান ও আবু তাহের। এক পর্যায়ে কথিত ওই জিনের বাদশাহ সুরুজ্জামানকে বলেন, ৫ হাজার একশ টাকা দিলে তুই একটা সোনার পুতুল পাবি। পরে তাদের কথামত সুরুজ্জামান পাশের এক মসজিদের দান বাক্সের উপর টাকা দিয়ে পুতুল নিয়ে আসেন। কথা ছিল পুতুলের প্যাকেট যেন আগেই না খোলা হয়। এরমধ্যে জিনের বাদশাহরা আবার বলেন, যদি ৫০ হাজার একশ টাকা দেস তাহলে তুই সোনার কলসি পাবি। এদিকে প্যাকেট খুলে দেখা যায় স্বর্ণের পুতুলটি পিতলের। সুরুজ্জামান বিষয়টি এলাকার কয়েক জনকে জানিয়ে মসজিদের দান বাক্সের উপরে কিছু পাঁচশ টাকার নোট আর কাগজ দিয়ে মোড়ানো একটি বান্ডেল রাখেন। রাতে ওই দুই প্রতারক টাকা নিতে আসলে এলাকাবাসী তাদের হাতেনাতে ধরে ফেলেন। পরে পিটুনি দিয়ে তাদের পুলিশে সোপর্দ করা হয়।

সল্লা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আব্দুল আলীম বলেন, যারা ধর্মের নাম ব্যবহার করে এই ধরনের প্রতারণা করে, তাদের দৃষ্টামূলক শাস্তি হওয়া দরকার।

এ বিষয়ে কালিহাতী থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) মোহাম্মদ ওয়াহাব বলেন, গ্রামবাসী কথিত দুই জিনের বাদশাহকে ধরে খবর দেন। আমরা ঘটনাস্থল থেকে তাদের আটক করে থানায় নিয়ে এসেছি। দুই জনের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করার প্রস্ততি চলছে।

error: Content is protected !!