ঢাকা ০৫:২৩ পূর্বাহ্ন, রবিবার, ২৩ জুন ২০২৪, ৮ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম :




উপমন্ত্রী-প্রতিমন্ত্রীকে দেখে জনতার স্লোগান, ত্রাণ চাই না

প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ০৮:০৪:২৮ অপরাহ্ন, রবিবার, ৫ মে ২০১৯ ১০১ বার পড়া হয়েছে

জেলা প্রতিনিধি;

ঘূর্ণিঝড় ফণী আঘাত হানার পরদিন সাতক্ষীরার শ্যামনগর উপজেলার উপকূলীয় এলাকা পরিদর্শন করেছেন দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ প্রতিমন্ত্রী ডা. এনামুর রহমান, পানিসম্পদ উপমন্ত্রী একেএম এনামুল হক শামীম ও মন্ত্রিপরিষদ সচিব মোহাম্মদ শফিউল আলম।

রোববার বেলা ১১টার দিকে বিমান বাহিনীর একটি হেলিকপ্টারযোগে উপকূলীয় এলাকা পরিদর্শন করেন তারা।
হেলিকপ্টার থেকে অবতরণের পর স্পিডবোটযোগে খোলপেটুয়া নদীর ২৭টি ঝূঁকিপূর্ণ পয়েন্ট পরিদর্শন করেন তারা।

প্রতিমন্ত্রী-উপমন্ত্রী ও সচিবকে দেখে এ সময় নদীর দুই পাশে অবস্থান করা হাজার হাজার মানুষ স্লোগান দেন, ‘ত্রাণ নয়, আমরা বেড়িবাঁধ চাই, বাঁধ নির্মাণ করুন, আমাদের বাঁচান’। এসব স্লোগানে নদীর চারদিক মুখরিত করে তোলেন স্থানীয়রা। হাতে প্ল্যাকার্ড নিয়ে প্রতিমন্ত্রী-উপমন্ত্রী ও সচিবের দৃষ্টি আকর্ষণ করেন স্থানীয়রা।

শ্যামনগরের গাবুরা ইউনিয়ন ও উপকূল পরিদর্শন শেষে দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ প্রতিমন্ত্রী ডা. এনামুর রহমান এবং পানিসম্পদ উপমন্ত্রী একেএম এনামুল হক শামীম বলেন, আগামী দুই সপ্তাহের মধ্যে ঝূঁকিপূর্ণ বাঁধ সংস্কার করে টেকসই বেড়িবাঁধ নির্মাণ করা হবে। একই সঙ্গে ৪০টি সাইক্লোন শেল্টার নির্মাণের ব্যবস্থা করা হবে। আগামীকাল থেকেই বাঁধ সংস্কারের কাজ শুরু করা হবে। কোনোভাবেই নতুন করে আর এলাকাবাসীদের ক্ষতিগ্রস্ত হতে দিতে চাই না।

পরিদর্শনকালে সাতক্ষীরা-৪ আসনের সংসদ সদস্য এসএম জগলুল হায়দার, জেলা প্রশাসক এসএম মোস্তফা কামাল, পুলিশ সুপার মো. সাজ্জাদুর রহমান, শ্যামনগর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আতাউল হক দোলন, শ্যামনগর উপজেলার ভারপ্রাপ্ত উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সুজন সাহাসহ সরকারি দফতরের বিভিন্ন পর্যায়ের কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

ট্যাগস :




উপমন্ত্রী-প্রতিমন্ত্রীকে দেখে জনতার স্লোগান, ত্রাণ চাই না

আপডেট সময় : ০৮:০৪:২৮ অপরাহ্ন, রবিবার, ৫ মে ২০১৯

জেলা প্রতিনিধি;

ঘূর্ণিঝড় ফণী আঘাত হানার পরদিন সাতক্ষীরার শ্যামনগর উপজেলার উপকূলীয় এলাকা পরিদর্শন করেছেন দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ প্রতিমন্ত্রী ডা. এনামুর রহমান, পানিসম্পদ উপমন্ত্রী একেএম এনামুল হক শামীম ও মন্ত্রিপরিষদ সচিব মোহাম্মদ শফিউল আলম।

রোববার বেলা ১১টার দিকে বিমান বাহিনীর একটি হেলিকপ্টারযোগে উপকূলীয় এলাকা পরিদর্শন করেন তারা।
হেলিকপ্টার থেকে অবতরণের পর স্পিডবোটযোগে খোলপেটুয়া নদীর ২৭টি ঝূঁকিপূর্ণ পয়েন্ট পরিদর্শন করেন তারা।

প্রতিমন্ত্রী-উপমন্ত্রী ও সচিবকে দেখে এ সময় নদীর দুই পাশে অবস্থান করা হাজার হাজার মানুষ স্লোগান দেন, ‘ত্রাণ নয়, আমরা বেড়িবাঁধ চাই, বাঁধ নির্মাণ করুন, আমাদের বাঁচান’। এসব স্লোগানে নদীর চারদিক মুখরিত করে তোলেন স্থানীয়রা। হাতে প্ল্যাকার্ড নিয়ে প্রতিমন্ত্রী-উপমন্ত্রী ও সচিবের দৃষ্টি আকর্ষণ করেন স্থানীয়রা।

শ্যামনগরের গাবুরা ইউনিয়ন ও উপকূল পরিদর্শন শেষে দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ প্রতিমন্ত্রী ডা. এনামুর রহমান এবং পানিসম্পদ উপমন্ত্রী একেএম এনামুল হক শামীম বলেন, আগামী দুই সপ্তাহের মধ্যে ঝূঁকিপূর্ণ বাঁধ সংস্কার করে টেকসই বেড়িবাঁধ নির্মাণ করা হবে। একই সঙ্গে ৪০টি সাইক্লোন শেল্টার নির্মাণের ব্যবস্থা করা হবে। আগামীকাল থেকেই বাঁধ সংস্কারের কাজ শুরু করা হবে। কোনোভাবেই নতুন করে আর এলাকাবাসীদের ক্ষতিগ্রস্ত হতে দিতে চাই না।

পরিদর্শনকালে সাতক্ষীরা-৪ আসনের সংসদ সদস্য এসএম জগলুল হায়দার, জেলা প্রশাসক এসএম মোস্তফা কামাল, পুলিশ সুপার মো. সাজ্জাদুর রহমান, শ্যামনগর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আতাউল হক দোলন, শ্যামনগর উপজেলার ভারপ্রাপ্ত উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সুজন সাহাসহ সরকারি দফতরের বিভিন্ন পর্যায়ের কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।