ঢাকা ০১:১০ পূর্বাহ্ন, রবিবার, ১৯ মে ২০২৪, ৪ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম :
Logo গণপূর্ত প্রধান প্রকৌশলীর গাড়ি চাপায় পিষ্ট সহকারী প্রকৌশলী -উত্তাল গণপূর্ত Logo শাবিপ্রবির বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান হলের উদ্যোগে বৃক্ষরোপণ Logo সওজের উপ-বিভাগীয় প্রকৌশলী নাহিনুরের সীমাহীন সম্পদ ও অনিয়ম -পর্ব-০১ Logo তামাক সেবনের আলাদা কক্ষ বানালেন গণপূর্তের নির্বাহী প্রকৌশলী: রয়েছে দুর্নীতির পাহাড়সম অভিযোগ! Logo দেশের সর্বোচ্চ আদালতকে বৃদ্ধাঙ্গুলি: কালবে সর্বোচ্চ পদ দখলে রেখেছে আগস্টিন! Logo আইআইএফসি ও মার্কটেল বাংলাদেশ’র মধ্যে কৌশলগত সহযোগিতা ও সমঝোতা স্মারক স্বাক্ষর Logo ফায়ার সার্ভিস সদর দপ্তর পরিদর্শনে দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ প্রতিমন্ত্রী Logo সর্বজনীন পেনশন প্রত্যাহারে শাবি শিক্ষক সমিতি মৌন মিছিল ও কালোব্যাজ ধারণ Logo শাবিপ্রবিতে কুমিল্লা স্টুডেন্টস এসোসিয়েশনের নবীনবরণ অনুষ্ঠিত Logo শাবিপ্রবি কেন্দ্রে সুষ্ঠভাবে গুচ্ছভর্তির তিন ইউনিটের পরীক্ষা সম্পন্ন




ইভিএম বিকলের অভিযোগ দিয়ে ভারতে চলছে চতুর্থ দফায় ভোট

প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ১০:৫৫:৩০ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ২৯ এপ্রিল ২০১৯ ১০৮ বার পড়া হয়েছে

আজ সকাল থেকে শুরু হয়েছে ভারতে লোকসভা নির্বাচনের চতুর্থ দফায় ভোটগ্রহণ। এ পর্বে ৯ রাজ্যের ৭২ আসনে ভোটারের সংখ্যা প্রায় ১২ কোটি ৭৯ লাখ। এসব ভোটার ৯৬১ প্রার্থীর ভাগ্য নির্ধারণ করবেন আজ।

এ পর্বে বেশ কয়েকজন হেভিওয়েট প্রার্থীর ভাগ্য নির্ধারিত হবে। বেশিরভাগ ভোটকেন্দ্রেই ইভিএম ব্যবহার করা হচ্ছে।

তবে ইতিমধ্যে ভারতীয় সংবাদমাধ্যমগুলোর যে খবর, সকালে ভোট শুরু হতেই নানা প্রান্ত থেকে ইভিএম বিকলের অভিযোগ পাওয়া গেছে। যে কারণে বেশ কয়েকটি কেন্দ্রে ভোটগ্রহণ বাধাগ্রস্ত হয়েছে।

জানা গেছে, দ্রুত ইভিএম ঠিক করে ভোটগ্রহণ শুরু করেছে দেশটির নির্বাচন কমিশন।

চতুর্থ দফায় ভোট হবে রাজস্থানের ১৩, মহারাষ্ট্রের ১৭, বিহারের ৫ ও ঝাড়খণ্ডের তিনটি আসনে। এই ৩৮ আসনের প্রতিটিই রয়েছে বিজেপি ও তার শরিক দলের কব্জায়। মধ্যপ্রদেশের ছয় আসনের মধ্যে একটি আসন (ছিন্দওয়ারা) কংগ্রেসের দখলে। বাকিগুলো বিজেপির হাতে।

উত্তরপ্রদেশের ১৩ আসনের মধ্যে ১২টি বিজেপির দখলে। শুধু কানৌজ আসন সমাজবাদী পার্টির (সপা), যেটি দলটির পারিবারিক দুর্গ।

উত্তরপ্রদেশের ফারুকাবাদ কেন্দ্রের দুইবারের সংসদ সদস্য সালমান খুরশিদ এবারও কংগ্রেসের প্রার্থী হয়েছেন।

মুম্বাই উত্তর কেন্দ্রের প্রার্থী উর্মিলা মাতন্ডকর, অনন্তনাগ কেন্দ্রের পিডিপি প্রার্থী তথা জম্মু-কাশ্মীরের সাবেক মুখ্যমন্ত্রী মেহবুবা মুফতি, কংগ্রেসের মিলিন্দ দেওরা, সমাজবাদী পার্টির ডিম্পল যাদবের মতো হেভিওয়েটদের আজ ভাগ্য নির্ধারণ করবেন ভোটাররা।

গতবার পশ্চিমবঙ্গ ও উড়িষ্যায় বিজেপির ভরাডুবি হয়েছিল। এবার পশ্চিমবঙ্গকে বেশ গুরুত্ব দিয়েই মাঠে নেমেছেন মোদি-অমিত শাহ। পশ্চিমবঙ্গের আসনগুলোতে গিয়ে সভা-রোড শোয়ে অংশ নিয়ে মমতার বিরুদ্ধে আক্রমণ শানিয়েছেন তারা।

তৃণমূল নেত্রী মমতাও বসে থাকেননি। পাল্টা জবাবে তিনি বলেছেন, ‘এবার বাংলায় তৃণমূল বিয়াল্লিশে বিয়াল্লিশ আর বিজেপি রসগোল্লা।’

টালিপাড়ার তারকাদের দিয়ে বাজিমাত করতে চাইছে দুদলই।

এবার পশ্চিমবঙ্গে বিজেপির কব্জায় থাকা আসানসোল আসনে তৃণমূলের তারকা প্রার্থী মুনমুন সেন। এখানকার সংসদ সদস্য ছিলেন তারকা শিল্পী-সুরকার বাবুল সুপ্রিয়। হাড্ডাহাড্ডি লড়াইয়ের আভাস এসেছে দুপক্ষ থেকেই।

এদিকে বীরভূম থেকে তৃণমূলের আরেক নায়িকা শতাব্দী রায় হ্যাটট্রিক করতে মঞ্চে নেমেছেন। ২০০৯ ও ২০১৪ সালে দুইবারের এমপি তিনি। বিজেপিও এখানে টালিউড তারকা জয় ব্যানার্জিকে প্রার্থী করেছেন।

চতুর্থ দফায় ভোটে উড়িষ্যার চলছে ছয়টি আসনে ভোটগ্রহণ। এখানে বিজু জনতা দলের বিরুদ্ধে প্রার্থী দিয়েছে বিজেপি। কংগ্রেসের প্রার্থীও রয়েছে। আসনগুলো নিজের করে নিতে ব্যাপক প্রচার চালিয়েছে ক্ষমতাসীন বিজেপি।

জম্মু-কাশ্মীরের অনন্তনাগ থেকে লড়ছেন হেভিওয়েট প্রার্থী রাজ্যের সাবেক মুখ্যমন্ত্রী মেহবুবা মুফতি। পিপলস ডেমোক্র্যাটিক পার্টির এ নেত্রীর সামনে ত্রিমুখী লড়াই অপেক্ষা করছে।

স্থানীয় জম্মু-কাশ্মীর ন্যাশনাল কংগ্রেস মির্জা মাহবুব বেগ ও বিজেপি মুশতাক আহমেদ মালিককে প্রার্থী করেছে। ভোটের আগে বিশ্লেষকরা নানা অঙ্ক কষছেন।

ভারতের নির্বাচন কমিশন সূত্রে জানা গেছে, চতুর্থ দফায় ৭২ আসনের মধ্যে বিজেপির দখলে ছিল ৫৬টি আসন। কংগ্রেস জিতেছিল মাত্র দুটিতে। বাকি আসনগুলো ছিল তৃণমূল কংগ্রেস, বিজু জনতা দলগুলোর মতো আঞ্চলিক দলের দখলে।

তবে রাজনীতি বিশ্লেষকদের মতে, এবার পরিস্থিতি আগেরবার থেকে অনেক পাল্টেছে। পশ্চিমবঙ্গে নিজের অবস্থান শক্ত করতে বিজেপি মরিয়া। সব মিলিয়ে দেশটির ৯টি রাজ্যের ভোটগ্রহণ ঘিরে দিনভর উৎকণ্ঠা, উদ্বেগ থাকবে সারা দিনই।

তবে বিশ্লেষকদের সব হিসাব-নিকাশের কূলকিনারা মিলবে আগামী ২৩ মের চূড়ান্ত ফলে।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

ট্যাগস :




ইভিএম বিকলের অভিযোগ দিয়ে ভারতে চলছে চতুর্থ দফায় ভোট

আপডেট সময় : ১০:৫৫:৩০ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ২৯ এপ্রিল ২০১৯

আজ সকাল থেকে শুরু হয়েছে ভারতে লোকসভা নির্বাচনের চতুর্থ দফায় ভোটগ্রহণ। এ পর্বে ৯ রাজ্যের ৭২ আসনে ভোটারের সংখ্যা প্রায় ১২ কোটি ৭৯ লাখ। এসব ভোটার ৯৬১ প্রার্থীর ভাগ্য নির্ধারণ করবেন আজ।

এ পর্বে বেশ কয়েকজন হেভিওয়েট প্রার্থীর ভাগ্য নির্ধারিত হবে। বেশিরভাগ ভোটকেন্দ্রেই ইভিএম ব্যবহার করা হচ্ছে।

তবে ইতিমধ্যে ভারতীয় সংবাদমাধ্যমগুলোর যে খবর, সকালে ভোট শুরু হতেই নানা প্রান্ত থেকে ইভিএম বিকলের অভিযোগ পাওয়া গেছে। যে কারণে বেশ কয়েকটি কেন্দ্রে ভোটগ্রহণ বাধাগ্রস্ত হয়েছে।

জানা গেছে, দ্রুত ইভিএম ঠিক করে ভোটগ্রহণ শুরু করেছে দেশটির নির্বাচন কমিশন।

চতুর্থ দফায় ভোট হবে রাজস্থানের ১৩, মহারাষ্ট্রের ১৭, বিহারের ৫ ও ঝাড়খণ্ডের তিনটি আসনে। এই ৩৮ আসনের প্রতিটিই রয়েছে বিজেপি ও তার শরিক দলের কব্জায়। মধ্যপ্রদেশের ছয় আসনের মধ্যে একটি আসন (ছিন্দওয়ারা) কংগ্রেসের দখলে। বাকিগুলো বিজেপির হাতে।

উত্তরপ্রদেশের ১৩ আসনের মধ্যে ১২টি বিজেপির দখলে। শুধু কানৌজ আসন সমাজবাদী পার্টির (সপা), যেটি দলটির পারিবারিক দুর্গ।

উত্তরপ্রদেশের ফারুকাবাদ কেন্দ্রের দুইবারের সংসদ সদস্য সালমান খুরশিদ এবারও কংগ্রেসের প্রার্থী হয়েছেন।

মুম্বাই উত্তর কেন্দ্রের প্রার্থী উর্মিলা মাতন্ডকর, অনন্তনাগ কেন্দ্রের পিডিপি প্রার্থী তথা জম্মু-কাশ্মীরের সাবেক মুখ্যমন্ত্রী মেহবুবা মুফতি, কংগ্রেসের মিলিন্দ দেওরা, সমাজবাদী পার্টির ডিম্পল যাদবের মতো হেভিওয়েটদের আজ ভাগ্য নির্ধারণ করবেন ভোটাররা।

গতবার পশ্চিমবঙ্গ ও উড়িষ্যায় বিজেপির ভরাডুবি হয়েছিল। এবার পশ্চিমবঙ্গকে বেশ গুরুত্ব দিয়েই মাঠে নেমেছেন মোদি-অমিত শাহ। পশ্চিমবঙ্গের আসনগুলোতে গিয়ে সভা-রোড শোয়ে অংশ নিয়ে মমতার বিরুদ্ধে আক্রমণ শানিয়েছেন তারা।

তৃণমূল নেত্রী মমতাও বসে থাকেননি। পাল্টা জবাবে তিনি বলেছেন, ‘এবার বাংলায় তৃণমূল বিয়াল্লিশে বিয়াল্লিশ আর বিজেপি রসগোল্লা।’

টালিপাড়ার তারকাদের দিয়ে বাজিমাত করতে চাইছে দুদলই।

এবার পশ্চিমবঙ্গে বিজেপির কব্জায় থাকা আসানসোল আসনে তৃণমূলের তারকা প্রার্থী মুনমুন সেন। এখানকার সংসদ সদস্য ছিলেন তারকা শিল্পী-সুরকার বাবুল সুপ্রিয়। হাড্ডাহাড্ডি লড়াইয়ের আভাস এসেছে দুপক্ষ থেকেই।

এদিকে বীরভূম থেকে তৃণমূলের আরেক নায়িকা শতাব্দী রায় হ্যাটট্রিক করতে মঞ্চে নেমেছেন। ২০০৯ ও ২০১৪ সালে দুইবারের এমপি তিনি। বিজেপিও এখানে টালিউড তারকা জয় ব্যানার্জিকে প্রার্থী করেছেন।

চতুর্থ দফায় ভোটে উড়িষ্যার চলছে ছয়টি আসনে ভোটগ্রহণ। এখানে বিজু জনতা দলের বিরুদ্ধে প্রার্থী দিয়েছে বিজেপি। কংগ্রেসের প্রার্থীও রয়েছে। আসনগুলো নিজের করে নিতে ব্যাপক প্রচার চালিয়েছে ক্ষমতাসীন বিজেপি।

জম্মু-কাশ্মীরের অনন্তনাগ থেকে লড়ছেন হেভিওয়েট প্রার্থী রাজ্যের সাবেক মুখ্যমন্ত্রী মেহবুবা মুফতি। পিপলস ডেমোক্র্যাটিক পার্টির এ নেত্রীর সামনে ত্রিমুখী লড়াই অপেক্ষা করছে।

স্থানীয় জম্মু-কাশ্মীর ন্যাশনাল কংগ্রেস মির্জা মাহবুব বেগ ও বিজেপি মুশতাক আহমেদ মালিককে প্রার্থী করেছে। ভোটের আগে বিশ্লেষকরা নানা অঙ্ক কষছেন।

ভারতের নির্বাচন কমিশন সূত্রে জানা গেছে, চতুর্থ দফায় ৭২ আসনের মধ্যে বিজেপির দখলে ছিল ৫৬টি আসন। কংগ্রেস জিতেছিল মাত্র দুটিতে। বাকি আসনগুলো ছিল তৃণমূল কংগ্রেস, বিজু জনতা দলগুলোর মতো আঞ্চলিক দলের দখলে।

তবে রাজনীতি বিশ্লেষকদের মতে, এবার পরিস্থিতি আগেরবার থেকে অনেক পাল্টেছে। পশ্চিমবঙ্গে নিজের অবস্থান শক্ত করতে বিজেপি মরিয়া। সব মিলিয়ে দেশটির ৯টি রাজ্যের ভোটগ্রহণ ঘিরে দিনভর উৎকণ্ঠা, উদ্বেগ থাকবে সারা দিনই।

তবে বিশ্লেষকদের সব হিসাব-নিকাশের কূলকিনারা মিলবে আগামী ২৩ মের চূড়ান্ত ফলে।