• ১৫ই আগস্ট ২০২২ খ্রিস্টাব্দ , ৩১শে শ্রাবণ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

উপসচিবদের সুদমুক্ত গাড়ি ঋণে সার্ভিস চার্জ আরোপ

সকালের সংবাদ ডেস্ক;
প্রকাশিত এপ্রিল ২৮, ২০১৯, ১৫:৫৫ অপরাহ্ণ
উপসচিবদের সুদমুক্ত গাড়ি ঋণে সার্ভিস চার্জ আরোপ

নিজস্ব প্রতিবেদক; 
প্রাধিকারপ্রাপ্ত কর্মকর্তাদের গাড়ি কেনার জন্য সুদমুক্ত ঋণ পাওয়ার ক্ষেত্রে এক শতাংশ হারে সার্ভিস চার্জ আরোপ করেছে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়। এর ফলে উপসচিবদের গাড়ির ঋণ পেতে অতিরিক্ত ৩০ হাজার টাকা সার্ভিস চার্জ দিতে হবে। গত বৃহস্পতিবার এ-সংক্রান্ত প্রজ্ঞাপন জারি করেছে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়।

প্রাধিকারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা হিসেবে সরকারের উপসচিবরা ব্যক্তিগত গাড়ি কেনা, রেজিস্ট্রেশন, ফিটনেস ও ট্যাক্সের জন্য এককালীন ৩০ লাখ টাকা সুদমুক্ত ঋণ পান। গাড়ি রক্ষণাবেক্ষণের জন্য তারা প্রতি মাসে ৫০ হাজার টাকা গাড়িভাতা পান। আগে যুগ্ম সচিবরা প্রাধিকারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা হিসেবে গাড়ি কেনা ও রক্ষণাবেক্ষণের জন্য এ ঋণ পেতেন। কিন্তু ২০১৭ সালের জুন থেকে উপসচিবদেরও প্রাধিকারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা হিসেবে স্বীকৃতি দেয় সরকার। এরপর থেকে তারাও গাড়ি কেনা ও রক্ষণাবেক্ষণের এ সুবিধা পাচ্ছেন।

সরকারের এ সেবা নিয়ে প্রশাসন ক্যাডার ছাড়া অন্য সব ক্যাডারের আপত্তি রয়েছে। কারণ গাড়ি কেনার এ ঋণ ও রক্ষণাবেক্ষণ ভাতা সুবিধা পান শুধুমাত্র উপসচিবরা। সরকারের বিশেষ পদ উপসচিব পদে পদোন্নতি পান প্রশাসন ক্যাডারের সিনিয়র সহকারী সচিবরা। অন্যান্য ক্যাডার থেকেও উপসচিব পদে পদোন্নতির বিধান রয়েছে। তবে এ সুযোগ নিতে গিয়ে প্রশাসন ক্যাডারের কর্মকর্তাদের তুলনায় অন্যান্য ক্যাডারের কর্মকর্তারা পদোন্নতি ও পদায়নের ক্ষেত্রে পিছিয়ে পড়েন।

বাকি ২৬ ক্যাডারের কর্মকর্তারা উপসচিব না হওয়ায় তারা এ সুবিধা পান না। শুধুমাত্র গাড়ি  সুবিধা পেতে অন্যান্য ক্যাডারের অনেক কর্মকর্তা ক্যাডার বদল করে উপসচিব পদে পদোন্নতি নেন। এতে ক্ষতিগ্রস্ত হয় সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তা যে ক্যাডারটি ত্যাগ করেছেন সেই ক্যাডার। কারণ বিসিএস পরীক্ষায় পাস করে প্রথম শ্রেণির সরকারি চাকরিতে নিয়োগ পাওয়ার পর কর্মকর্তাদের যে দীর্ঘমেয়াদি বুনিয়াদি প্রশিক্ষণ দেওয়া হয় তা হয় ক্যাডারভিত্তিক।

সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তা যখন সেই ক্যাডার ত্যাগ করেন, তখন এ-সংক্রান্ত প্রশিক্ষণ তার কোনো কাজে আসে না।

error: Content is protected !!