ঢাকা ০৪:১৭ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ২১ জুন ২০২৪, ৬ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম :




গ্রেফতার এড়াতে সাবেক প্রেসিডেন্টের আত্মহত্যা

প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ১২:০৪:৩০ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১৮ এপ্রিল ২০১৯ ৮৭ বার পড়া হয়েছে

আন্তর্জাতিক ডেস্ক;
নিজের মাথায় গুলি করে আত্মহত্যা করেছেন পেরুর সাবেক প্রেসিডেন্ট এলান গার্সিয়া। ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসি জানিয়েছে, ঘুষ কেলেঙ্কারির অভিযোগে এলান গার্সিয়াকে গ্রেফতার করতে তার বাসায় অভিযান চালায় পুলিশ। গ্রেফতার এড়াতে তখন তিনি নিজের মাথায় গুলি চালিয়ে আত্মহত্যা করেন।

পেরুর বর্তমান প্রেসিডেন্ট মার্টিন ভিজকারা এক টুইট বার্তায় সাবেক প্রেসিডেন্টের মৃত্যুর খবরটি নিশ্চিত করেছেন।

বিবিসি সংবাদে আরও বলা হয়েছে, মাথায় গুলি করার পরই পুলিশ তাকে স্থানীয় হাসপাতালে নিয়ে ভর্তি করে। সেখানে দ্রুত তার অস্ত্রপচার করা হলেও মৃতু হয় সাবেক ওই প্রেসিডেন্টের।

এর আগে দেশটির সাবেক এই প্রেসিডেন্টের বিরুদ্ধে ব্রাজিলের একটি নির্মাণ প্রতিষ্ঠান থেকে ঘুষ গ্রহণের অভিযোগ ওঠে। যদিও তিনি অভিযোগ অস্বীকার করেছিলেন। এমন অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে সাবেক প্রেসিডেন্টকে গ্রেফতারের জন্য রাজধানী লিমায় তার বাড়িতে হানা দেয় পুলিশ।

দেশটির স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী কার্লোস মোরান সংবাদমাধ্যমকে জানিয়েছেন গ্রেফতার এড়াতেই তিনি মাথায় গুলি চালিয়ে আত্মহত্যা করেছেন। এছাড়া তিনি বলেন, ‘পুলিশ সাবেক প্রেসিডেন্ট এলান গার্সিয়ার বাড়িতে পৌঁছার পর তিনি একটি ফোন কল করার জন্য অন্য ঘরে যান। সেখানে তিনি নিজের মাথায় গুলি করেন।’

এলান গার্সিয়া ১৯৮৫ থেকে ১৯৯০ এবং ২০০৬ থেকে ২০১১ পর্যন্ত দুই মেয়াদে পেরুর প্রেসিডেন্ট হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছেন।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

ট্যাগস :




গ্রেফতার এড়াতে সাবেক প্রেসিডেন্টের আত্মহত্যা

আপডেট সময় : ১২:০৪:৩০ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১৮ এপ্রিল ২০১৯

আন্তর্জাতিক ডেস্ক;
নিজের মাথায় গুলি করে আত্মহত্যা করেছেন পেরুর সাবেক প্রেসিডেন্ট এলান গার্সিয়া। ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসি জানিয়েছে, ঘুষ কেলেঙ্কারির অভিযোগে এলান গার্সিয়াকে গ্রেফতার করতে তার বাসায় অভিযান চালায় পুলিশ। গ্রেফতার এড়াতে তখন তিনি নিজের মাথায় গুলি চালিয়ে আত্মহত্যা করেন।

পেরুর বর্তমান প্রেসিডেন্ট মার্টিন ভিজকারা এক টুইট বার্তায় সাবেক প্রেসিডেন্টের মৃত্যুর খবরটি নিশ্চিত করেছেন।

বিবিসি সংবাদে আরও বলা হয়েছে, মাথায় গুলি করার পরই পুলিশ তাকে স্থানীয় হাসপাতালে নিয়ে ভর্তি করে। সেখানে দ্রুত তার অস্ত্রপচার করা হলেও মৃতু হয় সাবেক ওই প্রেসিডেন্টের।

এর আগে দেশটির সাবেক এই প্রেসিডেন্টের বিরুদ্ধে ব্রাজিলের একটি নির্মাণ প্রতিষ্ঠান থেকে ঘুষ গ্রহণের অভিযোগ ওঠে। যদিও তিনি অভিযোগ অস্বীকার করেছিলেন। এমন অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে সাবেক প্রেসিডেন্টকে গ্রেফতারের জন্য রাজধানী লিমায় তার বাড়িতে হানা দেয় পুলিশ।

দেশটির স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী কার্লোস মোরান সংবাদমাধ্যমকে জানিয়েছেন গ্রেফতার এড়াতেই তিনি মাথায় গুলি চালিয়ে আত্মহত্যা করেছেন। এছাড়া তিনি বলেন, ‘পুলিশ সাবেক প্রেসিডেন্ট এলান গার্সিয়ার বাড়িতে পৌঁছার পর তিনি একটি ফোন কল করার জন্য অন্য ঘরে যান। সেখানে তিনি নিজের মাথায় গুলি করেন।’

এলান গার্সিয়া ১৯৮৫ থেকে ১৯৯০ এবং ২০০৬ থেকে ২০১১ পর্যন্ত দুই মেয়াদে পেরুর প্রেসিডেন্ট হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছেন।