ঢাকা ০৪:২৭ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ০১ ডিসেম্বর ২০২২, ১৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম :




বিএনপি নেতা ব্যারিস্টার রফিকুল গ্রেফতার

প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ১১:২৫:৫০ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ২০ নভেম্বর ২০১৮ ১৬ বার পড়া হয়েছে

নিজস্ব প্রতিবেদক; বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ব্যারিস্টার রফিকুল ইসলাম মিয়াকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। মঙ্গলবার সন্ধ্যা ৭টার দিকে রাজধানীর নিউ ইস্কাটনের বাসা থেকে তাকে গোয়েন্দা (ডিবি) পুলিশ পরিচয়ে তুলে নিয়ে যাওয়া হয় বলে জানিয়েছেন তার ব্যক্তিগত সহকারী মোকসেদুর রহমান আবির।

এর আগে, সম্পদের হিসাব বিবরণী জমা না দেওয়ার অভিযোগে দুদকের দায়ের করা মামলায় রফিকুল ইসলাম মিয়াকে তিন বছরের কারাদণ্ড দেন আদালত। একইসঙ্গে তাকে ৫০ হাজার টাকা অর্থদণ্ডে দণ্ডিত করা হয়। অনাদায়ে আরও তিন মাসের সশ্রম কারাদণ্ডাদেশ দেওয়া হয়। মঙ্গলবার (২০ নভেম্বর) ঢাকার বিশেষ জজ আদালত-৬ এর বিচারক ড. শেখ গোলাম মাহাবুব এই রায় দেন।

রায় ঘোষণার সময় রফিকুল ইসলাম মিয়া অনুপস্থিত থাকায় আদালত তার বিরুদ্ধে সাজা পরোয়ানা জারি করেন।

মামলার বিরবণে জানা যায়, ২০০১ সালে তৎকালীন দুর্নীতি দমন ব্যুরো সম্পদের হিসাব বিবরণী দাখিলের জন্য রফিকুল ইসলাম মিয়াকে নোটিশ দেয়। তিনি সম্পদের হিসাব দাখিল না করায় ২০০৪ সালের ১৫ জানুয়ারি উত্তরা থানায় এই মামলা দায়ের করা হয়। মামলাটি তদন্ত শেষে একই বছর ৩০ নভেম্বর আদালতে চার্জশিট দাখিল করেন দুর্নীতি দমন ব্যুরো কর্মকর্তা লিয়াকত হোসেন।

২০১৭ সালের ১৪ নভেম্বর রফিকুল ইসলাম মিয়ার বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠন করে আদালত। এরপর ছয় সাক্ষীর সাক্ষ্যগ্রহণ শেষে আদালত রায়ের দিন ধার্য করে।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

ট্যাগস :




বিএনপি নেতা ব্যারিস্টার রফিকুল গ্রেফতার

আপডেট সময় : ১১:২৫:৫০ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ২০ নভেম্বর ২০১৮

নিজস্ব প্রতিবেদক; বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ব্যারিস্টার রফিকুল ইসলাম মিয়াকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। মঙ্গলবার সন্ধ্যা ৭টার দিকে রাজধানীর নিউ ইস্কাটনের বাসা থেকে তাকে গোয়েন্দা (ডিবি) পুলিশ পরিচয়ে তুলে নিয়ে যাওয়া হয় বলে জানিয়েছেন তার ব্যক্তিগত সহকারী মোকসেদুর রহমান আবির।

এর আগে, সম্পদের হিসাব বিবরণী জমা না দেওয়ার অভিযোগে দুদকের দায়ের করা মামলায় রফিকুল ইসলাম মিয়াকে তিন বছরের কারাদণ্ড দেন আদালত। একইসঙ্গে তাকে ৫০ হাজার টাকা অর্থদণ্ডে দণ্ডিত করা হয়। অনাদায়ে আরও তিন মাসের সশ্রম কারাদণ্ডাদেশ দেওয়া হয়। মঙ্গলবার (২০ নভেম্বর) ঢাকার বিশেষ জজ আদালত-৬ এর বিচারক ড. শেখ গোলাম মাহাবুব এই রায় দেন।

রায় ঘোষণার সময় রফিকুল ইসলাম মিয়া অনুপস্থিত থাকায় আদালত তার বিরুদ্ধে সাজা পরোয়ানা জারি করেন।

মামলার বিরবণে জানা যায়, ২০০১ সালে তৎকালীন দুর্নীতি দমন ব্যুরো সম্পদের হিসাব বিবরণী দাখিলের জন্য রফিকুল ইসলাম মিয়াকে নোটিশ দেয়। তিনি সম্পদের হিসাব দাখিল না করায় ২০০৪ সালের ১৫ জানুয়ারি উত্তরা থানায় এই মামলা দায়ের করা হয়। মামলাটি তদন্ত শেষে একই বছর ৩০ নভেম্বর আদালতে চার্জশিট দাখিল করেন দুর্নীতি দমন ব্যুরো কর্মকর্তা লিয়াকত হোসেন।

২০১৭ সালের ১৪ নভেম্বর রফিকুল ইসলাম মিয়ার বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠন করে আদালত। এরপর ছয় সাক্ষীর সাক্ষ্যগ্রহণ শেষে আদালত রায়ের দিন ধার্য করে।