ঢাকা ০৩:২৮ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ২১ জুন ২০২৪, ৬ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম :




শাবিপ্রবি ছাত্রীর শৃঙ্খলা পরিপন্থী কাজে জড়িত থাকায় তদন্ত কমিটি গঠন

শাবিপ্রবি প্রতিনিধি
  • আপডেট সময় : ০৭:০০:৩৮ অপরাহ্ন, রবিবার, ৯ জুন ২০২৪ ৫১ বার পড়া হয়েছে

শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের বেগম ফজিলাতুন্নেছা মুজিব হলের এক ছাত্রীর বিরুদ্ধে শৃঙ্খলা পরিপন্থী কাজে জড়িত থাকার অভিযোগ উঠেছে। ঘটনাটি অধিকতর তদন্তের জন্য ৫ সদস্য বিশিষ্ট কমিটি গঠন করা হয়েছে।

রোববার (৯ জুন) বিকেলে বিষয়টি নিশ্চিত করেন উপাচার্য অধ্যাপক ফরিদ উদ্দিন আহমেদ।

পাঁচ সদস্য বিশিষ্ট তদন্ত কমিটিতে আহ্বায়ক হিসেবে রয়েছেন স্কুল অব এগ্রিকালচার অ্যান্ড মিনারেল সায়েন্সেস অনুষদের ডিন অধ্যাপক ড. মো. আবু সাঈদ আরেফিন খান। সদস্য হিসেবে রয়েছেন বাংলা বিভাগের অধ্যাপক ড. নিলুফা আক্তার, পরিসংখ্যান বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক ড. কানিজ ফাতেমা ফেরদৌসী, শাহপরাণ হলের প্রভোস্ট কৌশিক সাহা, সহকারী প্রক্টর মো. মিজানুর রহমান

জানা যায়, বেগম ফজিলাতুন্নেছা মুজিব হলের এক ছাত্রীর বিরুদ্ধে শৃঙ্খলা বিরোধী কর্মকাণ্ডের অভিযোগ পাওয়া গেছে। অভিযুক্ত তিনি হলে বিশৃঙ্খলা তৈরি করার জন্য ঘুমের বড়ি খাওয়ার ভান করেছিলেন। পরে চিকিৎসক জানিয়েছেন, তিনি কোনো ঘুমের ওষুধ খাননি।এছাড়া তার বিরুদ্ধে প্রভোস্টের সঙ্গে অসদাচরণসহ আরও অনেক অভিযোগ পাওয়া গেছে। আমরা তদন্ত কমিটি গঠন করে দিয়েছি। তদন্ত সাপেক্ষে হল কর্তৃপক্ষ ব্যবস্থা নেবে।

এছাড়া গত ৩ জুন বিশ্ববিদ্যালয়ের বেগম ফজিলাতুন্নেসা মুজিব হলের এ ব্লকের ১০৭ নম্বর কক্ষে রাজিয়া পারভীন নামে এক শিক্ষার্থী ঘুমের বড়ি খেয়ে আত্মহত্যা চেষ্টা করের, এমন অভিযোগ ওঠে। পরে ঘটনাটি অধিকতর তদন্তের জন্য কমিটি গঠন করা হয়।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

ট্যাগস :




শাবিপ্রবি ছাত্রীর শৃঙ্খলা পরিপন্থী কাজে জড়িত থাকায় তদন্ত কমিটি গঠন

আপডেট সময় : ০৭:০০:৩৮ অপরাহ্ন, রবিবার, ৯ জুন ২০২৪

শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের বেগম ফজিলাতুন্নেছা মুজিব হলের এক ছাত্রীর বিরুদ্ধে শৃঙ্খলা পরিপন্থী কাজে জড়িত থাকার অভিযোগ উঠেছে। ঘটনাটি অধিকতর তদন্তের জন্য ৫ সদস্য বিশিষ্ট কমিটি গঠন করা হয়েছে।

রোববার (৯ জুন) বিকেলে বিষয়টি নিশ্চিত করেন উপাচার্য অধ্যাপক ফরিদ উদ্দিন আহমেদ।

পাঁচ সদস্য বিশিষ্ট তদন্ত কমিটিতে আহ্বায়ক হিসেবে রয়েছেন স্কুল অব এগ্রিকালচার অ্যান্ড মিনারেল সায়েন্সেস অনুষদের ডিন অধ্যাপক ড. মো. আবু সাঈদ আরেফিন খান। সদস্য হিসেবে রয়েছেন বাংলা বিভাগের অধ্যাপক ড. নিলুফা আক্তার, পরিসংখ্যান বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক ড. কানিজ ফাতেমা ফেরদৌসী, শাহপরাণ হলের প্রভোস্ট কৌশিক সাহা, সহকারী প্রক্টর মো. মিজানুর রহমান

জানা যায়, বেগম ফজিলাতুন্নেছা মুজিব হলের এক ছাত্রীর বিরুদ্ধে শৃঙ্খলা বিরোধী কর্মকাণ্ডের অভিযোগ পাওয়া গেছে। অভিযুক্ত তিনি হলে বিশৃঙ্খলা তৈরি করার জন্য ঘুমের বড়ি খাওয়ার ভান করেছিলেন। পরে চিকিৎসক জানিয়েছেন, তিনি কোনো ঘুমের ওষুধ খাননি।এছাড়া তার বিরুদ্ধে প্রভোস্টের সঙ্গে অসদাচরণসহ আরও অনেক অভিযোগ পাওয়া গেছে। আমরা তদন্ত কমিটি গঠন করে দিয়েছি। তদন্ত সাপেক্ষে হল কর্তৃপক্ষ ব্যবস্থা নেবে।

এছাড়া গত ৩ জুন বিশ্ববিদ্যালয়ের বেগম ফজিলাতুন্নেসা মুজিব হলের এ ব্লকের ১০৭ নম্বর কক্ষে রাজিয়া পারভীন নামে এক শিক্ষার্থী ঘুমের বড়ি খেয়ে আত্মহত্যা চেষ্টা করের, এমন অভিযোগ ওঠে। পরে ঘটনাটি অধিকতর তদন্তের জন্য কমিটি গঠন করা হয়।