ঢাকা ০৯:০১ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২৯ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ১৭ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ




আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা ইনস্টিটিউটের উদ্যোগে অনুষ্ঠিত হল ‘লিঙ্গুইস্টিক অলিম্পিয়াড’

দেলোয়ার হোসেন, সিলেট প্রতিনিধি
  • আপডেট সময় : ১০:১৭:৫৭ অপরাহ্ন, শনিবার, ৩ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ ৪৭ বার পড়া হয়েছে

সিলেটে মহান শহিদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস-২০২৪ উদ্‌যাপন উপলক্ষ্যে কোমলমতি শিক্ষার্থীদের মাঝে মাতৃভাষা চর্চা, প্রচার ও প্রসার ঘটানোর লক্ষ্যে লিঙ্গুইস্টিক অলিম্পিয়াড আয়োজন করছে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা ইনস্টিটিউট। 

শনিবার (৩ ফেব্রুয়ারি) সকাল সাড়ে নয়টায় পতাকা উত্তোলন করার মাধ্যমে এই অনুষ্ঠানের সূচনা হয়। পতাকা উত্তোলন করেন সিলেটের জেলা প্রশাসক পক্ষে অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (রাজস্ব) এস.এম আবুল কাসেম।

জাতীয় সংগীত পরিবেশন এবং বেলুন ও ফেষ্টুন উড়ানোর মাধ্যমে লিঙ্গুইস্টিক অলিম্পিয়াড-এর শুভ উদ্বোধন করা হয়। এ সময় সভাপতি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন মোঃ আজহারুল আমিন পরিচালক (প্রশাসন, অর্থ ও প্রশিক্ষণ) আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা ইনস্টিটিউট। প্রধান অতিথির আসন অলংকৃত করেন লিঙ্গুইস্টিক অলিম্পিয়াড-এর বিশেষজ্ঞ ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ভাষাবিজ্ঞান বিভাগের চেয়ারম্যান অধ্যাপক ড. মুহাম্মদ আসাদুজ্জামান, বিশেষ অতিথি অধ্যাপক ফারজানা সিদ্দিকা, বাংলা বিভাগের বিভাগীয় প্রধান, শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়, সিলেট। লিঙ্গুইস্টিক অলিম্পিয়াড এর সিলেট অঞ্চলের আহবায়ক প্রফেসর আব্দুল মান্নান খান, আঞ্চলিক পরিচালক, মাউশি, সিলেট এবং অন্যান্য বিশেষ অতিথি ও আমন্ত্রিত অতিথিবৃন্দ। এতে স্বাগত বক্তব্য প্রদান করেন সিলেট সরকারি পাইলট উচ্চ বিদ্যালয় প্রধান শিক্ষক মো. কবির খান।

এ অলিম্পিয়াডে সিলেট অঞ্চলের ৬ষ্ঠ থেকে নবম ক্যাটেগরিতে ৫৫০ জন এবং দশম থেকে দ্বাদশ ক্যাটেগরিতে ২৫০ জন শিক্ষার্থী অংশগ্রহণ করে। সকাল ১০.৩০ ঘটিকা থেকে ১২ ঘটিকা পর্যন্ত অংশগ্রহণকারী শিক্ষার্থীরা ১ ঘণ্টা ৩০ মিনিট ব্যাপী লিঙ্গুইস্টিক অলিম্পিয়াড-এর নির্ধারিত পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করেন। লিঙ্গুইস্টিক অলিম্পিয়াড-এর মূল্যায়ন ও ফলাফল ঘোষণা পর্বে অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি ও লিঙ্গুইস্টিক অলিম্পিয়াড-এর বিশেষজ্ঞ ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ভাষাবিজ্ঞান বিভাগের চেয়ারম্যান অধ্যাপক ড. মুহাম্মদ আসাদুজ্জামান; সভাপতি, মোঃ আজহারুল আমিন পরিচালক (প্রশাসন, অর্থ ও প্রশিক্ষণ) আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা ইনস্টিটিউট; লিঙ্গুইস্টিক অলিম্পিয়াড এর সিলেট অঞ্চলের আহবায়ক প্রফেসর আব্দুল মান্নান খান, আঞ্চলিক পরিচালক, মাউশি, সিলেট: প্রফেসর ওয়াহিদুজ্জামান ,উপপরিচালক (কলেজ-১) মাউশি; মোঃ আবদুল কাদের, উপপরিচালক, আমাই; নিগার সুলতানা, উপপরিচালক, আমাই; এ.এস.এম আব্দুল ওয়াদুদ, জেলা শিক্ষা অফিসার, সিলেট; জনাব পুলক কুমার ধর, সহকারী পরিচালক, আমাই এবং সিলেট সরকারি পাইলট উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মো. কবির খান প্রমুখ প্রশ্নোত্তরপর্ব ও উন্মুক্ত আলোচনায় অংশগ্রহণ করেন।প্রধান অতিথির বক্তব্যে ভাষা বিশেষজ্ঞ ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ভাষাবিজ্ঞান বিভাগের অধ্যাপক ও চেয়ারম্যান অধ্যাপক ড.মুহাম্মদ আসাদুজ্জামান বলেন,”ভাষা মানুষের পরম সম্পদ। মাতৃভাষা চর্চার মধ্য দিয়েই একটি জনগোষ্টি তার মনন, মেধা ও চিন্তা প্রকাশ করে। পৃথিবীতে অনেক মাতৃভাষা বিপন্ন অবস্থায় রয়েছে এসব ভাষা সঠিকভাবে চর্চা না করলে তা মৃত্যুমুখে পতিত হবে। কাজেই বিপন্ন ভাষা চর্চা, অনুশীলন, পুনরুজ্জীবন, নথিবদ্ধকরণ আবশ্যক। এই লক্ষকে সামনে রেখে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা ইনস্টিটিউট প্রথবারের মতো লিঙ্গুইস্টিক অলিম্পিয়াড ২০২৪ আয়োজন করেছে এর মাধ্যমে বিশ্বের প্রতিটি মাতৃভাষা চর্চাকে উৎসাহিত করা। মাতৃভাষা হারিয়ে যাওয়া মানে ঐ ভাষার কৃষ্টি, সংস্কৃতি ও সভ্যতা বিলিন হয়ে যাওয়া। ভাষা বিজ্ঞানীদের অনুমান আগামী ৫০/৬০ বছরের মধ্যে বিশ্বের শতকরা ৯০% ভাষা পৃথিবী থেকে হারিয়ে যাবে। ভাষা হোক সবার মত প্রকাশের স্বাধীনতার ভাষা। আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা ইনস্টিটিউট এ কাজটি করে যাচ্ছে।”

বিশেষ অতিথির বক্তব্যে অধ্যাপক ফারজানা সিদ্দিকা বলেন, মাতৃভাষার শক্তি সত্য বলা। মাতৃভাষার দৌড় আজকের আয়োজনের মাধ্যমে শুধু ঢাকা পরযন্ত পৌঁছানো নয়, পৃথিবীব্যাপী আধিপত্য বিস্তার করা। কিছু হও বা না হও পৃথিবীময় মাতৃভাষা ছড়িয়ে দাও। সভাপতি তাঁর ভাষণে বলেন, পৃথিবীতে বাংলাভাষা প্রতিনিয়ত প্রতিধ্বনিত হচ্ছে। পৃথিবীর বাহিরেও বাংলা ভাষা প্রতিধ্বনিত হচ্ছে।’ নমস্কার বাংলা ভাষাকে শুভেচ্ছা’। এ আওয়াজে মহাশুন্যেও প্রতিধ্বনিত হচ্ছে। ভাষা শক্তিশালী হলে সুফল পাওয়া যাবে।

লিঙ্গুইস্টিক অলিম্পিয়াড এর সদস্য এবং উপপরিচালক (প্রকাশনা, প্রচার, তথ্য ও জনসংযোগ) আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা ইনস্টিটিউট জনাব মোঃ আবদুল কাদের বলেন, রাজশাহী, খুলনা, চট্টগ্রাম, সিলেট, ঢাকা এই পাঁচটি অঞ্চল থেকে ক-ক্যাটেগরি থেকে ১০জন করে মোট ৫০জন এবং খ- ক্যাটেগরি থেকে ১০জন করে মোট ৫০জন ফাইনাল রাউন্ডে ঢাকায় অনুষ্ঠিতব্য প্রতিযোগিতায় অংশ নিবে। ফাইনাল রাউন্ডে ২ ক্যাটেগরিতে ৩জন করে মোট ৬জন মাননীয় প্রধান মন্ত্রীর নিকট থেকে একুশের অনুষ্ঠানমালায় পুরস্কার গ্রহণ করবেন এবং এই ৬জন এ বছর ব্রাজিলে অনুষ্ঠিতব্য আন্তর্জাতিক লিঙ্গুইস্টিক অলিম্পিয়াডের জন্য বিবেচিত হবেন।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

ট্যাগস :




আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা ইনস্টিটিউটের উদ্যোগে অনুষ্ঠিত হল ‘লিঙ্গুইস্টিক অলিম্পিয়াড’

আপডেট সময় : ১০:১৭:৫৭ অপরাহ্ন, শনিবার, ৩ ফেব্রুয়ারী ২০২৪

সিলেটে মহান শহিদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস-২০২৪ উদ্‌যাপন উপলক্ষ্যে কোমলমতি শিক্ষার্থীদের মাঝে মাতৃভাষা চর্চা, প্রচার ও প্রসার ঘটানোর লক্ষ্যে লিঙ্গুইস্টিক অলিম্পিয়াড আয়োজন করছে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা ইনস্টিটিউট। 

শনিবার (৩ ফেব্রুয়ারি) সকাল সাড়ে নয়টায় পতাকা উত্তোলন করার মাধ্যমে এই অনুষ্ঠানের সূচনা হয়। পতাকা উত্তোলন করেন সিলেটের জেলা প্রশাসক পক্ষে অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (রাজস্ব) এস.এম আবুল কাসেম।

জাতীয় সংগীত পরিবেশন এবং বেলুন ও ফেষ্টুন উড়ানোর মাধ্যমে লিঙ্গুইস্টিক অলিম্পিয়াড-এর শুভ উদ্বোধন করা হয়। এ সময় সভাপতি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন মোঃ আজহারুল আমিন পরিচালক (প্রশাসন, অর্থ ও প্রশিক্ষণ) আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা ইনস্টিটিউট। প্রধান অতিথির আসন অলংকৃত করেন লিঙ্গুইস্টিক অলিম্পিয়াড-এর বিশেষজ্ঞ ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ভাষাবিজ্ঞান বিভাগের চেয়ারম্যান অধ্যাপক ড. মুহাম্মদ আসাদুজ্জামান, বিশেষ অতিথি অধ্যাপক ফারজানা সিদ্দিকা, বাংলা বিভাগের বিভাগীয় প্রধান, শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়, সিলেট। লিঙ্গুইস্টিক অলিম্পিয়াড এর সিলেট অঞ্চলের আহবায়ক প্রফেসর আব্দুল মান্নান খান, আঞ্চলিক পরিচালক, মাউশি, সিলেট এবং অন্যান্য বিশেষ অতিথি ও আমন্ত্রিত অতিথিবৃন্দ। এতে স্বাগত বক্তব্য প্রদান করেন সিলেট সরকারি পাইলট উচ্চ বিদ্যালয় প্রধান শিক্ষক মো. কবির খান।

এ অলিম্পিয়াডে সিলেট অঞ্চলের ৬ষ্ঠ থেকে নবম ক্যাটেগরিতে ৫৫০ জন এবং দশম থেকে দ্বাদশ ক্যাটেগরিতে ২৫০ জন শিক্ষার্থী অংশগ্রহণ করে। সকাল ১০.৩০ ঘটিকা থেকে ১২ ঘটিকা পর্যন্ত অংশগ্রহণকারী শিক্ষার্থীরা ১ ঘণ্টা ৩০ মিনিট ব্যাপী লিঙ্গুইস্টিক অলিম্পিয়াড-এর নির্ধারিত পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করেন। লিঙ্গুইস্টিক অলিম্পিয়াড-এর মূল্যায়ন ও ফলাফল ঘোষণা পর্বে অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি ও লিঙ্গুইস্টিক অলিম্পিয়াড-এর বিশেষজ্ঞ ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ভাষাবিজ্ঞান বিভাগের চেয়ারম্যান অধ্যাপক ড. মুহাম্মদ আসাদুজ্জামান; সভাপতি, মোঃ আজহারুল আমিন পরিচালক (প্রশাসন, অর্থ ও প্রশিক্ষণ) আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা ইনস্টিটিউট; লিঙ্গুইস্টিক অলিম্পিয়াড এর সিলেট অঞ্চলের আহবায়ক প্রফেসর আব্দুল মান্নান খান, আঞ্চলিক পরিচালক, মাউশি, সিলেট: প্রফেসর ওয়াহিদুজ্জামান ,উপপরিচালক (কলেজ-১) মাউশি; মোঃ আবদুল কাদের, উপপরিচালক, আমাই; নিগার সুলতানা, উপপরিচালক, আমাই; এ.এস.এম আব্দুল ওয়াদুদ, জেলা শিক্ষা অফিসার, সিলেট; জনাব পুলক কুমার ধর, সহকারী পরিচালক, আমাই এবং সিলেট সরকারি পাইলট উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মো. কবির খান প্রমুখ প্রশ্নোত্তরপর্ব ও উন্মুক্ত আলোচনায় অংশগ্রহণ করেন।প্রধান অতিথির বক্তব্যে ভাষা বিশেষজ্ঞ ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ভাষাবিজ্ঞান বিভাগের অধ্যাপক ও চেয়ারম্যান অধ্যাপক ড.মুহাম্মদ আসাদুজ্জামান বলেন,”ভাষা মানুষের পরম সম্পদ। মাতৃভাষা চর্চার মধ্য দিয়েই একটি জনগোষ্টি তার মনন, মেধা ও চিন্তা প্রকাশ করে। পৃথিবীতে অনেক মাতৃভাষা বিপন্ন অবস্থায় রয়েছে এসব ভাষা সঠিকভাবে চর্চা না করলে তা মৃত্যুমুখে পতিত হবে। কাজেই বিপন্ন ভাষা চর্চা, অনুশীলন, পুনরুজ্জীবন, নথিবদ্ধকরণ আবশ্যক। এই লক্ষকে সামনে রেখে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা ইনস্টিটিউট প্রথবারের মতো লিঙ্গুইস্টিক অলিম্পিয়াড ২০২৪ আয়োজন করেছে এর মাধ্যমে বিশ্বের প্রতিটি মাতৃভাষা চর্চাকে উৎসাহিত করা। মাতৃভাষা হারিয়ে যাওয়া মানে ঐ ভাষার কৃষ্টি, সংস্কৃতি ও সভ্যতা বিলিন হয়ে যাওয়া। ভাষা বিজ্ঞানীদের অনুমান আগামী ৫০/৬০ বছরের মধ্যে বিশ্বের শতকরা ৯০% ভাষা পৃথিবী থেকে হারিয়ে যাবে। ভাষা হোক সবার মত প্রকাশের স্বাধীনতার ভাষা। আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা ইনস্টিটিউট এ কাজটি করে যাচ্ছে।”

বিশেষ অতিথির বক্তব্যে অধ্যাপক ফারজানা সিদ্দিকা বলেন, মাতৃভাষার শক্তি সত্য বলা। মাতৃভাষার দৌড় আজকের আয়োজনের মাধ্যমে শুধু ঢাকা পরযন্ত পৌঁছানো নয়, পৃথিবীব্যাপী আধিপত্য বিস্তার করা। কিছু হও বা না হও পৃথিবীময় মাতৃভাষা ছড়িয়ে দাও। সভাপতি তাঁর ভাষণে বলেন, পৃথিবীতে বাংলাভাষা প্রতিনিয়ত প্রতিধ্বনিত হচ্ছে। পৃথিবীর বাহিরেও বাংলা ভাষা প্রতিধ্বনিত হচ্ছে।’ নমস্কার বাংলা ভাষাকে শুভেচ্ছা’। এ আওয়াজে মহাশুন্যেও প্রতিধ্বনিত হচ্ছে। ভাষা শক্তিশালী হলে সুফল পাওয়া যাবে।

লিঙ্গুইস্টিক অলিম্পিয়াড এর সদস্য এবং উপপরিচালক (প্রকাশনা, প্রচার, তথ্য ও জনসংযোগ) আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা ইনস্টিটিউট জনাব মোঃ আবদুল কাদের বলেন, রাজশাহী, খুলনা, চট্টগ্রাম, সিলেট, ঢাকা এই পাঁচটি অঞ্চল থেকে ক-ক্যাটেগরি থেকে ১০জন করে মোট ৫০জন এবং খ- ক্যাটেগরি থেকে ১০জন করে মোট ৫০জন ফাইনাল রাউন্ডে ঢাকায় অনুষ্ঠিতব্য প্রতিযোগিতায় অংশ নিবে। ফাইনাল রাউন্ডে ২ ক্যাটেগরিতে ৩জন করে মোট ৬জন মাননীয় প্রধান মন্ত্রীর নিকট থেকে একুশের অনুষ্ঠানমালায় পুরস্কার গ্রহণ করবেন এবং এই ৬জন এ বছর ব্রাজিলে অনুষ্ঠিতব্য আন্তর্জাতিক লিঙ্গুইস্টিক অলিম্পিয়াডের জন্য বিবেচিত হবেন।