ঢাকা ০২:৫০ অপরাহ্ন, শনিবার, ২৪ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ১২ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম :
Logo শাবিপ্রবিতে ২য় দিনে ঢাবির ভর্তি পরীক্ষা সুষ্ঠভাবে সম্পন্ন, উপস্থিতি ৯৪.৩৫ শতাংশ Logo রাজস্ব কর্মকর্তা মতিউরের শত কোটি টাকার সম্পদ অর্জন ও গোপন রাখার অভিযোগ Logo শাবিতে সুষ্ঠভাবে সম্পন্ন ঢাবির ভর্তি পরীক্ষা, উপস্থিতি ৯২ শতাংশ Logo ঢাবির ভর্তি পরীক্ষায় শাবিপ্রবিতে স্বেচ্ছাসেবকের দায়িত্বে থাকবে শাবি ছাত্রলীগ Logo এনবিআর সদস্য ড. মতিউর রহমানের সম্পদের পাহাড় শীর্ষক সংবাদের প্রতিবাদ ও প্রতিবেদকের বক্তব্য Logo খুলনায় স্ত্রীসহ খাদ্য কর্মকর্তার বিরুদ্ধে দুদকের মামলা Logo বঙ্গবন্ধু এক্সপ্রেসওয়েতে বাস-ট্রাক সংঘর্ষে নিহত ৩ Logo পাসপোর্ট করতে আসা লোকজনকে ভেতরে ঢুকতে দেন না দালালরা Logo এনবিআর কর্তা মতিউর রাহমান ও তার পরিবারের সম্পদের পাহাড়! পর্ব- ১ Logo কুবি শিক্ষক সমিতির মৌন মানববন্ধন




এবার চাল রপ্তানিতে শুল্ক আরোপ করল ভারত

প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ০৫:৩০:২৭ অপরাহ্ন, শনিবার, ২৬ অগাস্ট ২০২৩ ১৮০ বার পড়া হয়েছে

অনলাইন ডেস্ক: ভারত এবার সিদ্ধ চাল রপ্তানিতে ২০ শতাংশ শুল্ক আরোপের ঘোষণা দিয়েছে। দেশটি বিশ্বের শীর্ষ চাল রপ্তানিকারক দেশ হওয়ায় এই সিদ্ধান্তের ফলে বিশ্ববাজারে চালের দাম আরও বাড়বে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে। শুক্রবার (২৫ আগস্ট) দেশটির কেন্দ্রীয় বাণিজ্য মন্ত্রণালয় শুক্রবার এই নির্দেশনা দিয়েছে।

গত সপ্তাহে ভারত সরকার পেঁয়াজ রপ্তানির ওপর ৪০ শতাংশ শুল্ক আরোপ করে। চলতি বছরের ৩১ ডিসেম্বর পর্যন্ত পেঁয়াজ রপ্তানির ওপর এই শুল্ক বহাল থাকবে।

গত মাসে বাসমতি ছাড়া সব ধরনের সাদা বা আতপ চাল রপ্তানিতে নিষেধাজ্ঞা জারি করে ভারত। এই সিদ্ধান্ত আন্তর্জাতিক বাজারে একটা বড় ধাক্কা দেয়। তার আগে গত বছর ভাঙা চালেও নিষেধাজ্ঞা দেয় দেশটি।

ভারতের নিষেধাজ্ঞার পর থেকেই বাড়তে শুরু করেছে চালের দাম। বর্তমানে আন্তর্জাতিক বাজারে যে দামে চাল বিক্রি হচ্ছে, তা গত ১২ বছরের মধ্যে সর্বোচ্চ।

এবার চাল রপ্তানিতে শুল্ক আরোপ করল ভারত
পেঁয়াজ রপ্তানি ঠেকাতে ৪০ শতাংশ শুল্কারোপ ভারত সরকারের
সেদ্ধ চাল রপ্তানিতে নিষেধাজ্ঞার পর আতপ চালের রপ্তানি বৃদ্ধি পাচ্ছিল। তাতে লাগাম টানতেই এই অতিরিক্ত রপ্তানি শুল্ক আরোপ করা হয়েছে বলে মনে করছেন ভারতীয় রপ্তানিকারকরা।

ভারত বিশ্বের বৃহত্তম চাল রপ্তানিকারী দেশ। আন্তর্জাতিক বাজারে মোট চালের জোগানের ৪০ শতাংশেরও বেশি আসে ভারত থেকে। ২০২২ সালে ৭৪ লাখ টন আতপ চাল রপ্তানি করেছিল ভারত। কিন্তু বৈরী আবহাওয়ার কারণে চলতি মৌসুমে চালের উৎপাদন কম হওয়ায় গত মাসে বাসমতি ব্যতীত সব প্রকার সেদ্ধ চাল রপ্তানিতে নিষেধাজ্ঞা দেয় ভারতের কেন্দ্রীয় সরকার। বাণিজ্য মন্ত্রণালয় থেকে বলা হয়, অভ্যন্তরীণ বাজার স্থিতিশীল রাখতে এই পদক্ষেপ নেওয়া হয়েছে।

ভারতের মুম্বাইয়ের এক আন্তর্জাতিক চাল ব্যবসায়ী রয়টার্সকে বলেন, অতিরিক্ত শুল্প আরোপ করায় ভারতের সিদ্ধ চালের দাম অনেকে বেড়ে যাবে। ভারতের সিদ্ধা চালের দাম থাইল্যান্ড ও পাকিস্তানের সিদ্ধ চালের সমান বেড়ে যেতে পারে। ডিলারদের জন্য এসব দেশের বাইরে সিদ্ধা চালের জন্য আপাতত নতুন কোনো বিকল্প নেই।

একদিকে ইউক্রেন যুদ্ধের কারণে আন্তর্জাতিক বাজারে গমসহ অন্য শস্যের সরবরাহ কমেছে। অন্যদিকে বৈরী আবহাওয়ার কারণে ভারতে চাল, গম ও আখের উৎপাদন হ্রাস পেয়েছে। ফলে ভারতের অভ্যন্তরীণ বাজারে এসব পণ্যের দাম অনেকে বেড়েছে।

নিত্যপণ্যের দাম বেড়ে যাওয়াটা আগামী নির্বাচনে প্রভাব ফেলতে পারে। এ শঙ্কা থেকে দেশের বাজার স্থিতিশীল রাখতে উল্লিখিত পণ্যগুলোর রপ্তানিতে নানা ধরনের কড়াকড়ি আরোপ করছে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি সরকার।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

ট্যাগস :




এবার চাল রপ্তানিতে শুল্ক আরোপ করল ভারত

আপডেট সময় : ০৫:৩০:২৭ অপরাহ্ন, শনিবার, ২৬ অগাস্ট ২০২৩

অনলাইন ডেস্ক: ভারত এবার সিদ্ধ চাল রপ্তানিতে ২০ শতাংশ শুল্ক আরোপের ঘোষণা দিয়েছে। দেশটি বিশ্বের শীর্ষ চাল রপ্তানিকারক দেশ হওয়ায় এই সিদ্ধান্তের ফলে বিশ্ববাজারে চালের দাম আরও বাড়বে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে। শুক্রবার (২৫ আগস্ট) দেশটির কেন্দ্রীয় বাণিজ্য মন্ত্রণালয় শুক্রবার এই নির্দেশনা দিয়েছে।

গত সপ্তাহে ভারত সরকার পেঁয়াজ রপ্তানির ওপর ৪০ শতাংশ শুল্ক আরোপ করে। চলতি বছরের ৩১ ডিসেম্বর পর্যন্ত পেঁয়াজ রপ্তানির ওপর এই শুল্ক বহাল থাকবে।

গত মাসে বাসমতি ছাড়া সব ধরনের সাদা বা আতপ চাল রপ্তানিতে নিষেধাজ্ঞা জারি করে ভারত। এই সিদ্ধান্ত আন্তর্জাতিক বাজারে একটা বড় ধাক্কা দেয়। তার আগে গত বছর ভাঙা চালেও নিষেধাজ্ঞা দেয় দেশটি।

ভারতের নিষেধাজ্ঞার পর থেকেই বাড়তে শুরু করেছে চালের দাম। বর্তমানে আন্তর্জাতিক বাজারে যে দামে চাল বিক্রি হচ্ছে, তা গত ১২ বছরের মধ্যে সর্বোচ্চ।

এবার চাল রপ্তানিতে শুল্ক আরোপ করল ভারত
পেঁয়াজ রপ্তানি ঠেকাতে ৪০ শতাংশ শুল্কারোপ ভারত সরকারের
সেদ্ধ চাল রপ্তানিতে নিষেধাজ্ঞার পর আতপ চালের রপ্তানি বৃদ্ধি পাচ্ছিল। তাতে লাগাম টানতেই এই অতিরিক্ত রপ্তানি শুল্ক আরোপ করা হয়েছে বলে মনে করছেন ভারতীয় রপ্তানিকারকরা।

ভারত বিশ্বের বৃহত্তম চাল রপ্তানিকারী দেশ। আন্তর্জাতিক বাজারে মোট চালের জোগানের ৪০ শতাংশেরও বেশি আসে ভারত থেকে। ২০২২ সালে ৭৪ লাখ টন আতপ চাল রপ্তানি করেছিল ভারত। কিন্তু বৈরী আবহাওয়ার কারণে চলতি মৌসুমে চালের উৎপাদন কম হওয়ায় গত মাসে বাসমতি ব্যতীত সব প্রকার সেদ্ধ চাল রপ্তানিতে নিষেধাজ্ঞা দেয় ভারতের কেন্দ্রীয় সরকার। বাণিজ্য মন্ত্রণালয় থেকে বলা হয়, অভ্যন্তরীণ বাজার স্থিতিশীল রাখতে এই পদক্ষেপ নেওয়া হয়েছে।

ভারতের মুম্বাইয়ের এক আন্তর্জাতিক চাল ব্যবসায়ী রয়টার্সকে বলেন, অতিরিক্ত শুল্প আরোপ করায় ভারতের সিদ্ধ চালের দাম অনেকে বেড়ে যাবে। ভারতের সিদ্ধা চালের দাম থাইল্যান্ড ও পাকিস্তানের সিদ্ধ চালের সমান বেড়ে যেতে পারে। ডিলারদের জন্য এসব দেশের বাইরে সিদ্ধা চালের জন্য আপাতত নতুন কোনো বিকল্প নেই।

একদিকে ইউক্রেন যুদ্ধের কারণে আন্তর্জাতিক বাজারে গমসহ অন্য শস্যের সরবরাহ কমেছে। অন্যদিকে বৈরী আবহাওয়ার কারণে ভারতে চাল, গম ও আখের উৎপাদন হ্রাস পেয়েছে। ফলে ভারতের অভ্যন্তরীণ বাজারে এসব পণ্যের দাম অনেকে বেড়েছে।

নিত্যপণ্যের দাম বেড়ে যাওয়াটা আগামী নির্বাচনে প্রভাব ফেলতে পারে। এ শঙ্কা থেকে দেশের বাজার স্থিতিশীল রাখতে উল্লিখিত পণ্যগুলোর রপ্তানিতে নানা ধরনের কড়াকড়ি আরোপ করছে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি সরকার।