ঢাকা ০৮:২০ অপরাহ্ন, বুধবার, ১২ জুন ২০২৪, ২৯ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম :




১ হাজার ৬৭৬ জন শিক্ষার্থীকে ৫৫ লাখ টাকা বৃত্তি উপহার জবির

প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ০৮:৪১:৩৩ অপরাহ্ন, সোমবার, ১০ জুলাই ২০২৩ ৮৩ বার পড়া হয়েছে

১ হাজার ৬৭৬ জন শিক্ষার্থীকে ৫৫ লাখ টাকা বৃত্তি উপহার জবির

জবি প্রতিনিধি:জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ে (জবি) স্নাতক ও স্নাতকোত্তরে অধ্যয়নরত বৃত্তি দিয়েছে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ। মেধা ও অবৈতনিক এই দুই ক্যাটাগরিতে মোট ৫৫ লাখ ৩৩ হাজার টাকার বৃত্তি দেওয়া হয়েছে।

রোববার বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার দপ্তর এবং বৃত্তি শাখা সূত্রে এসব তথ্য জানা যায়।শিক্ষার্থীদের একাউন্টে বৃত্তির টাকা পাঠানো হচ্ছে৷ বৃত্তি সংশ্লিষ্ট যেকোন সমস্যায় শিক্ষার্থীদের বিশ্ববিদ্যালয়ের বৃত্তি শাখায় যোগাযোগের পরামর্শ কর্তৃপক্ষের।

বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার দপ্তর সূত্রে জানা যায়, মেধা ও অবৈতনিক এই দুই ক্যাটাগরির বৃত্তির জন্য মোট আবেদন করে ১ হাজার ৯৩৬ জন শিক্ষার্থী। যার মধ্যে ৫৯৪ জন মেধাবৃত্তি এবং ১ হাজার ৮২জন অবৈতনিক বৃত্তি পেয়েছে। মোট ১ হাজার ৬৭৬ জন শিক্ষার্থীকে বৃত্তি প্রদান করা হয়।

মেধাবৃত্তি প্রাপ্ত শিক্ষার্থীরা প্রতি মাসে ৬৫০ টাকা হারে ১২ মাসে (এককালীন) ৭ হাজার ৮০০ টাকা পাবেন। অর্থাৎ ৫৯৪ শিক্ষার্থীকে মোট ৪৬ লাখ ৩৩ হাজার ২০০ টাকার শিক্ষাবৃত্তি দেয়া হয়েছে। পাশাপাশি এই ক্যাটাগরিতে বৃত্তিপ্রাপ্ত শিক্ষার্থীরা দুইটি সেমিস্টার বিনা বেতনে অধ্যয়নের সুযোগ পাবেন। অবৈতনিক বৃত্তিপ্রাপ্ত শিক্ষার্থীরাও দুইটি সেমিস্টার বিনা বেতনে অধ্যয়নের সুযোগ পাবেন।

অপরদিকে গতবছর থেকে চালু হওয়া প্রতিরক্ষা বৃত্তি রোভার স্কাউটস, বিএনসিসি ও রেঞ্জার ইউনিট থেকে মোট ২৫০ জন শিক্ষার্থীকে প্রদান করা হয়েছে। এর মধ্যে রোভার স্কাউটসের ১০০ জন,বিএনসিসিরি’র ১০০জন এবং রেঞ্জার ইউনিটের ৫০ জন বৃত্তি পেয়েছেন।

এই সাধারণ বৃত্তির আওতায় সংশ্লিষ্ট শিক্ষার্থীরা প্রতি মাসে ৩০০ টাকা করে বছরে ৩ হাজার ৬০০ টাকা পাবেন। অর্থাৎ উক্ত ২৫০ জনকে মোট ৯ লাখ টাকার শিক্ষাবৃত্তি দেওয়া হয়েছে। পাশাপাশি রোভার স্কাউটসের ১০৮জন শিক্ষার্থীকে অবৈতনিক বৃত্তি প্রদান করা হয়েছে।

জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের ‘বৃত্তি নীতিমালা ২০১৩’ অনুযায়ী মেধাবৃত্তি প্রাপ্তির জন্য প্রতিটি বিভাগের প্রতি ব্যাচ থেকে সর্বোচ্চ সিজিপিএ অর্জনকারী তিনজনকে মনোনীত করতে হবে। রিঅ্যাডমিশন, বোর্ড বা অন্যান্য সংস্থা থেকে বৃত্তিপ্রাপ্ত শিক্ষার্থীরা এর আওতায় এলে বৃত্তি পাবেন না বলে নীতিমালায় উল্লেখ রয়েছে। নীতিমালা অনুসারে অবৈতনিক ক্যাটাগরিতে প্রতিটি বিভাগের প্রতি ব্যাচের ১০ শতাংশ শিক্ষার্থীকে মনোনীত করা হয়।

এ বিষয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের বৃত্তি শাখার দায়িত্বে থাকা সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তা বলেন, বৃত্তিপ্রাপ্ত শিক্ষার্থীদের তালিকা বিভাগে ইতিমধ্যেই পাঠানো হয়েছে। বৃত্তি সংক্রান্ত যেকোন সমস্যা সরাসরি বৃত্তি শাখায় জানাতে পারবে শিক্ষার্থীরা। তাহলে সেটি সমাধানে উদ্যোগ নেওয়া হবে৷

বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার (চুক্তিভিত্তিক) প্রকৌশলী মো. ওহিদুজ্জামান বলেন, মেধাবৃত্তি প্রাপ্ত শিক্ষার্থীদের এককালীন অর্থ প্রদান করা হবে৷ আগে প্রতি মাসে ৪০০ টাকা হারে দেয়া হলেও এবছর থেকে সেটি বৃদ্ধি করে ৬৫০ টাকা করা হয়েছে। অবৈতনিক বৃত্তিপ্রাপ্ত শিক্ষার্থীরা এক বছর বিনাবেতনে অধ্যয়নের সুযোগ পাবে৷ শিক্ষার্থীদের সুবিধার্থেই আমাদের এই উদ্যোগ।

প্রসঙ্গত, জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ে ২০১৩-১৪ শিক্ষাবর্ষ থেকে শিক্ষার্থীদের জন্য মেধা ও অবৈতনিক বৃত্তি চালু করে কর্তৃপক্ষ। গত বছর ৮১৩ শিক্ষার্থী মেধাবৃত্তি এবং ১ হাজার ১১৭জন শিক্ষার্থী অবৈতনিক বৃত্তি পান।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

ট্যাগস :




১ হাজার ৬৭৬ জন শিক্ষার্থীকে ৫৫ লাখ টাকা বৃত্তি উপহার জবির

আপডেট সময় : ০৮:৪১:৩৩ অপরাহ্ন, সোমবার, ১০ জুলাই ২০২৩

১ হাজার ৬৭৬ জন শিক্ষার্থীকে ৫৫ লাখ টাকা বৃত্তি উপহার জবির

জবি প্রতিনিধি:জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ে (জবি) স্নাতক ও স্নাতকোত্তরে অধ্যয়নরত বৃত্তি দিয়েছে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ। মেধা ও অবৈতনিক এই দুই ক্যাটাগরিতে মোট ৫৫ লাখ ৩৩ হাজার টাকার বৃত্তি দেওয়া হয়েছে।

রোববার বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার দপ্তর এবং বৃত্তি শাখা সূত্রে এসব তথ্য জানা যায়।শিক্ষার্থীদের একাউন্টে বৃত্তির টাকা পাঠানো হচ্ছে৷ বৃত্তি সংশ্লিষ্ট যেকোন সমস্যায় শিক্ষার্থীদের বিশ্ববিদ্যালয়ের বৃত্তি শাখায় যোগাযোগের পরামর্শ কর্তৃপক্ষের।

বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার দপ্তর সূত্রে জানা যায়, মেধা ও অবৈতনিক এই দুই ক্যাটাগরির বৃত্তির জন্য মোট আবেদন করে ১ হাজার ৯৩৬ জন শিক্ষার্থী। যার মধ্যে ৫৯৪ জন মেধাবৃত্তি এবং ১ হাজার ৮২জন অবৈতনিক বৃত্তি পেয়েছে। মোট ১ হাজার ৬৭৬ জন শিক্ষার্থীকে বৃত্তি প্রদান করা হয়।

মেধাবৃত্তি প্রাপ্ত শিক্ষার্থীরা প্রতি মাসে ৬৫০ টাকা হারে ১২ মাসে (এককালীন) ৭ হাজার ৮০০ টাকা পাবেন। অর্থাৎ ৫৯৪ শিক্ষার্থীকে মোট ৪৬ লাখ ৩৩ হাজার ২০০ টাকার শিক্ষাবৃত্তি দেয়া হয়েছে। পাশাপাশি এই ক্যাটাগরিতে বৃত্তিপ্রাপ্ত শিক্ষার্থীরা দুইটি সেমিস্টার বিনা বেতনে অধ্যয়নের সুযোগ পাবেন। অবৈতনিক বৃত্তিপ্রাপ্ত শিক্ষার্থীরাও দুইটি সেমিস্টার বিনা বেতনে অধ্যয়নের সুযোগ পাবেন।

অপরদিকে গতবছর থেকে চালু হওয়া প্রতিরক্ষা বৃত্তি রোভার স্কাউটস, বিএনসিসি ও রেঞ্জার ইউনিট থেকে মোট ২৫০ জন শিক্ষার্থীকে প্রদান করা হয়েছে। এর মধ্যে রোভার স্কাউটসের ১০০ জন,বিএনসিসিরি’র ১০০জন এবং রেঞ্জার ইউনিটের ৫০ জন বৃত্তি পেয়েছেন।

এই সাধারণ বৃত্তির আওতায় সংশ্লিষ্ট শিক্ষার্থীরা প্রতি মাসে ৩০০ টাকা করে বছরে ৩ হাজার ৬০০ টাকা পাবেন। অর্থাৎ উক্ত ২৫০ জনকে মোট ৯ লাখ টাকার শিক্ষাবৃত্তি দেওয়া হয়েছে। পাশাপাশি রোভার স্কাউটসের ১০৮জন শিক্ষার্থীকে অবৈতনিক বৃত্তি প্রদান করা হয়েছে।

জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের ‘বৃত্তি নীতিমালা ২০১৩’ অনুযায়ী মেধাবৃত্তি প্রাপ্তির জন্য প্রতিটি বিভাগের প্রতি ব্যাচ থেকে সর্বোচ্চ সিজিপিএ অর্জনকারী তিনজনকে মনোনীত করতে হবে। রিঅ্যাডমিশন, বোর্ড বা অন্যান্য সংস্থা থেকে বৃত্তিপ্রাপ্ত শিক্ষার্থীরা এর আওতায় এলে বৃত্তি পাবেন না বলে নীতিমালায় উল্লেখ রয়েছে। নীতিমালা অনুসারে অবৈতনিক ক্যাটাগরিতে প্রতিটি বিভাগের প্রতি ব্যাচের ১০ শতাংশ শিক্ষার্থীকে মনোনীত করা হয়।

এ বিষয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের বৃত্তি শাখার দায়িত্বে থাকা সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তা বলেন, বৃত্তিপ্রাপ্ত শিক্ষার্থীদের তালিকা বিভাগে ইতিমধ্যেই পাঠানো হয়েছে। বৃত্তি সংক্রান্ত যেকোন সমস্যা সরাসরি বৃত্তি শাখায় জানাতে পারবে শিক্ষার্থীরা। তাহলে সেটি সমাধানে উদ্যোগ নেওয়া হবে৷

বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার (চুক্তিভিত্তিক) প্রকৌশলী মো. ওহিদুজ্জামান বলেন, মেধাবৃত্তি প্রাপ্ত শিক্ষার্থীদের এককালীন অর্থ প্রদান করা হবে৷ আগে প্রতি মাসে ৪০০ টাকা হারে দেয়া হলেও এবছর থেকে সেটি বৃদ্ধি করে ৬৫০ টাকা করা হয়েছে। অবৈতনিক বৃত্তিপ্রাপ্ত শিক্ষার্থীরা এক বছর বিনাবেতনে অধ্যয়নের সুযোগ পাবে৷ শিক্ষার্থীদের সুবিধার্থেই আমাদের এই উদ্যোগ।

প্রসঙ্গত, জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ে ২০১৩-১৪ শিক্ষাবর্ষ থেকে শিক্ষার্থীদের জন্য মেধা ও অবৈতনিক বৃত্তি চালু করে কর্তৃপক্ষ। গত বছর ৮১৩ শিক্ষার্থী মেধাবৃত্তি এবং ১ হাজার ১১৭জন শিক্ষার্থী অবৈতনিক বৃত্তি পান।