ঢাকা ০৮:৫৬ অপরাহ্ন, বুধবার, ১২ জুন ২০২৪, ২৯ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম :




দূর্নীতির মাধ্যমে অবৈধ সম্পদ অর্জনে রাজউকের পরিকল্পনাবিদ নুর-ই খোদার ক্যারিশমা! পর্ব ১

প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ০৮:১০:১৪ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২২ জুন ২০২৩ ১৭৪ বার পড়া হয়েছে

এইচ আর শফিক: রাজধানী উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ রাজউকের নগর পরিকল্পনা বা উন্নয়ন যথাযথ না হলেও এক পরিকল্পনাবিদের পরিবারিক ও ব্যক্তিগত উন্নয়ন হয়েছে আকাশসম। দুর্নীতির মাধ্যমে অর্জিত আয় বহির্ভূত সম্পদের পাহাড়ে আহরণ করছেন তিনি। গড়েছেন ফ্লাট, প্লট, বাগিয়েছেন একাধিক কোম্পানির শেয়ার, স্ত্রী’র নামে রয়েছে ইট ভাটা পরিবার ও আত্মীয় স্বজনের নামে কোটি কোটি টাকার সম্পদ ও নগদ অর্থ। তিনি রাজউকের অঞ্চল-১ এর উপ-নগর পরিকল্পনাবিদ মোহাম্মদ নুর ই খোদা।

সুত্র মতে, মোহাম্মদ নুর ই খোদা একজন সরকারী কর্মকর্তা হয়ে আইন বহির্ভূত অস্বাভাবিক সম্পদ অর্জন করেছেন। নামে বেনামে এসব সম্পদ আত্মীয়-স্বজন ও পরিবার পরিজনদের মাধ্যমে পরিচালনা করে আসছেন। কোটি কোটি টাকার এসব প্রতিষ্ঠান ও সম্পদ থেকে ব্যাট ট্যাক্স থেকে বঞ্চিত হচ্ছে সরকার। অবৈধ সম্পদ অর্জন এবং চাকরিবি ধি অমান্য করে সরকারের চোখে ফাঁকি দিয়ে একাধিক ব্যবসা প্রতিষ্ঠানের শেয়ার হোল্ডার, আত্মীয়স্বজনের নামে নগদ টাকা ও জমি। তার আত্মীয় আলমগীর, শাকিল ও জামিল এসব সম্পদ অর্থের রক্ষণাবেক্ষণের সহযোগী বলে জানা গেছে। স্ত্রীর নামে রয়েছে একটি ইটের ভাটা। সাভারে আছে দুধের কারখানা, ইসলামপুরে ফুট প্রসেসিং এবং নারায়ণগঞ্জে ওয়াশিং প্ল্যান্ট, দেওয়ানগঞ্জ রাইস ফ্যাক্টরি সহ বিভিন্ন ব্যবসা প্রতিষ্ঠানের মালিক তিনি। এছড়াও রাজধানী সহ বিভিন্ন স্থানে তার রয়েছে প্লট ফ্লাট ও ফসলি জমি।

তার গোপন রাখা অবৈধ সম্পদের পুরো গল্প জানেন এ্যাকাউন্ট অফিসার রাজিব।

এএসব অভিযোগের বিষয়ে জানতে তার মুঠোফোনের একাধিকবার যোগাযোগ করা হলেও তিনি ফোন রিসিভ করেননি। এমনকি মুঠোফোনে খোদ খুদে বার্তা পাঠানো হলেও কোন উত্তর দেননি।

দুর্নীতিবাজ এই কর্মকর্তার সম্পদের বিস্তারিত আমলনামা নিয়ে থাকছে পরবর্তী প্রতিবেদনে…….

Loading

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

ট্যাগস :




দূর্নীতির মাধ্যমে অবৈধ সম্পদ অর্জনে রাজউকের পরিকল্পনাবিদ নুর-ই খোদার ক্যারিশমা! পর্ব ১

আপডেট সময় : ০৮:১০:১৪ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২২ জুন ২০২৩

এইচ আর শফিক: রাজধানী উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ রাজউকের নগর পরিকল্পনা বা উন্নয়ন যথাযথ না হলেও এক পরিকল্পনাবিদের পরিবারিক ও ব্যক্তিগত উন্নয়ন হয়েছে আকাশসম। দুর্নীতির মাধ্যমে অর্জিত আয় বহির্ভূত সম্পদের পাহাড়ে আহরণ করছেন তিনি। গড়েছেন ফ্লাট, প্লট, বাগিয়েছেন একাধিক কোম্পানির শেয়ার, স্ত্রী’র নামে রয়েছে ইট ভাটা পরিবার ও আত্মীয় স্বজনের নামে কোটি কোটি টাকার সম্পদ ও নগদ অর্থ। তিনি রাজউকের অঞ্চল-১ এর উপ-নগর পরিকল্পনাবিদ মোহাম্মদ নুর ই খোদা।

সুত্র মতে, মোহাম্মদ নুর ই খোদা একজন সরকারী কর্মকর্তা হয়ে আইন বহির্ভূত অস্বাভাবিক সম্পদ অর্জন করেছেন। নামে বেনামে এসব সম্পদ আত্মীয়-স্বজন ও পরিবার পরিজনদের মাধ্যমে পরিচালনা করে আসছেন। কোটি কোটি টাকার এসব প্রতিষ্ঠান ও সম্পদ থেকে ব্যাট ট্যাক্স থেকে বঞ্চিত হচ্ছে সরকার। অবৈধ সম্পদ অর্জন এবং চাকরিবি ধি অমান্য করে সরকারের চোখে ফাঁকি দিয়ে একাধিক ব্যবসা প্রতিষ্ঠানের শেয়ার হোল্ডার, আত্মীয়স্বজনের নামে নগদ টাকা ও জমি। তার আত্মীয় আলমগীর, শাকিল ও জামিল এসব সম্পদ অর্থের রক্ষণাবেক্ষণের সহযোগী বলে জানা গেছে। স্ত্রীর নামে রয়েছে একটি ইটের ভাটা। সাভারে আছে দুধের কারখানা, ইসলামপুরে ফুট প্রসেসিং এবং নারায়ণগঞ্জে ওয়াশিং প্ল্যান্ট, দেওয়ানগঞ্জ রাইস ফ্যাক্টরি সহ বিভিন্ন ব্যবসা প্রতিষ্ঠানের মালিক তিনি। এছড়াও রাজধানী সহ বিভিন্ন স্থানে তার রয়েছে প্লট ফ্লাট ও ফসলি জমি।

তার গোপন রাখা অবৈধ সম্পদের পুরো গল্প জানেন এ্যাকাউন্ট অফিসার রাজিব।

এএসব অভিযোগের বিষয়ে জানতে তার মুঠোফোনের একাধিকবার যোগাযোগ করা হলেও তিনি ফোন রিসিভ করেননি। এমনকি মুঠোফোনে খোদ খুদে বার্তা পাঠানো হলেও কোন উত্তর দেননি।

দুর্নীতিবাজ এই কর্মকর্তার সম্পদের বিস্তারিত আমলনামা নিয়ে থাকছে পরবর্তী প্রতিবেদনে…….

Loading