ঢাকা ০৭:৫০ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ০৫ মার্চ ২০২৪, ২২ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ




বরিশাল বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগ কর্তৃক দোকানে হামলা (ফুটেজ সহ)

প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ১১:৩১:৩২ অপরাহ্ন, রবিবার, ১২ মার্চ ২০২৩ ১০৮ বার পড়া হয়েছে

ববি প্রতিবেদক: বরিশাল বিশ্ববিদ্যালয়ের দুই ছাত্রলীগ কর্মীদের বিরুদ্ধে দোকানের সিসি টিভি ফুটেজ না দেওয়ায় এক দোকান মালিকের ওপর হামলার অভিযোগ উঠেছে৷

শনিবার (১১মার্চ) বিশ্ববিদ্যালয়ের মূল ফটকের সামনে জিনিয়াস বিজনেস সেন্টারের কর্ণধার শাহ আলম মারধরের শিকার হন৷

সিসি টিভি ফুটেজ বিশ্লেষণ করে দেখা যায়, শনিবার বিকাল ৪টায় ৩৫ মিনিটে বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রলীগের দুই কর্মী ইংরেজী বিভাগের ২০১৮-১৯ সেশনের তানজীদ মঞ্জু এবং শিহাব উদ্দিন রিফাত ঐ দোকানের মালিকে ওপর হামলা চালানো হয়৷

মারধর ও লাঞ্ছনর শিকার শাহ আলম জানান, দুই ছাত্রলীগ কর্মী সন্ধায় আমার দোকান গিয়ে বাহিরের সিসি টিভি ফুটেজ চায় ৷ আমি বলেছি আমার দোকানের কোন বিষয় হলে সিসি টিভি ফুটেজ আপনাকে দেখাবো ৷ কিন্তু বাহিরের সিসি টিভি ফুটেজ দেয়া দন্ডনীয় অপরাধ ৷ সেজন্য আমি দিতে অপরাগতা প্রকাশ করি ৷ এমনঅবস্থায় আমার ওপরে ফ্রেমের অ্যালুমিনিয়াম ও স্টাপলারের মেশিনের স্টিলের হাতল দ্বারা এলোপাতাড়িভাবে আঘাত করে৷ আমি এর বিচার চাই।

মারধরের ঘটনায় অভিযুক্ত বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রলীগ কর্মী ইংরেজি বিভাগের শিহাব উদ্দিন রিফাতের সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, এ বিষয়ে কোনো কথা বলতে চাই না। আমার কাল পরীক্ষা, আর আমি এ বিষয়েও কিছু জানি না।

আরেক অভিযুক্ত তানজীদ মঞ্জু বলেন, মারামারির তেমন কোন ঘটনা ঘটেনি। আমাদের মাঝে কথা কাটাকাটি হয়েছে। পরে আমি দোকানদারের কাছে মাফও চেয়েছি। কেন এমন করে সবাই আমার বিরুদ্ধে লেগেছে বুঝতে পারছি না।

বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর ড. মো. খোরশেদ আলম জানান, ঘটনা সম্পর্কে আমি কিছু জানিনা ৷ বাজারে মারামারি করলে সে দ্বায়-দায়িত্ব আমার না ৷ এটা ক্যাম্পাসের বাহিরের ঘটনা, সবথেকে ভালো ভুক্তভোগীর আইনি ব্যবস্থা নেওয়া ৷

এ বিষয়ে বিশ্ববিদ্যালয় পুলিশ ক্যাম্পের ইনচার্জ এসআই মশিউর রহমান বলেন, ঘটনা আমরা জেনে ঘটনাস্থলে গেছিলাম ৷ ভিডিও ফুটেজ সংগ্রহের চেষ্টা চলছে ৷ ভুক্তভোগী এখন পর্যন্ত লিখিত অভিযোগ দায়ের করেনি ৷ অভিযোগ পেলে আমরা আইনি ব্যবস্থা গ্রহণ করবো।

উল্লেখ্য, প্রতিষ্ঠার পর থেকে বরিশাল বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রলীগের কোনো সাংগঠনিক কমিটি নেই।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

ট্যাগস :




বরিশাল বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগ কর্তৃক দোকানে হামলা (ফুটেজ সহ)

আপডেট সময় : ১১:৩১:৩২ অপরাহ্ন, রবিবার, ১২ মার্চ ২০২৩

ববি প্রতিবেদক: বরিশাল বিশ্ববিদ্যালয়ের দুই ছাত্রলীগ কর্মীদের বিরুদ্ধে দোকানের সিসি টিভি ফুটেজ না দেওয়ায় এক দোকান মালিকের ওপর হামলার অভিযোগ উঠেছে৷

শনিবার (১১মার্চ) বিশ্ববিদ্যালয়ের মূল ফটকের সামনে জিনিয়াস বিজনেস সেন্টারের কর্ণধার শাহ আলম মারধরের শিকার হন৷

সিসি টিভি ফুটেজ বিশ্লেষণ করে দেখা যায়, শনিবার বিকাল ৪টায় ৩৫ মিনিটে বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রলীগের দুই কর্মী ইংরেজী বিভাগের ২০১৮-১৯ সেশনের তানজীদ মঞ্জু এবং শিহাব উদ্দিন রিফাত ঐ দোকানের মালিকে ওপর হামলা চালানো হয়৷

মারধর ও লাঞ্ছনর শিকার শাহ আলম জানান, দুই ছাত্রলীগ কর্মী সন্ধায় আমার দোকান গিয়ে বাহিরের সিসি টিভি ফুটেজ চায় ৷ আমি বলেছি আমার দোকানের কোন বিষয় হলে সিসি টিভি ফুটেজ আপনাকে দেখাবো ৷ কিন্তু বাহিরের সিসি টিভি ফুটেজ দেয়া দন্ডনীয় অপরাধ ৷ সেজন্য আমি দিতে অপরাগতা প্রকাশ করি ৷ এমনঅবস্থায় আমার ওপরে ফ্রেমের অ্যালুমিনিয়াম ও স্টাপলারের মেশিনের স্টিলের হাতল দ্বারা এলোপাতাড়িভাবে আঘাত করে৷ আমি এর বিচার চাই।

মারধরের ঘটনায় অভিযুক্ত বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রলীগ কর্মী ইংরেজি বিভাগের শিহাব উদ্দিন রিফাতের সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, এ বিষয়ে কোনো কথা বলতে চাই না। আমার কাল পরীক্ষা, আর আমি এ বিষয়েও কিছু জানি না।

আরেক অভিযুক্ত তানজীদ মঞ্জু বলেন, মারামারির তেমন কোন ঘটনা ঘটেনি। আমাদের মাঝে কথা কাটাকাটি হয়েছে। পরে আমি দোকানদারের কাছে মাফও চেয়েছি। কেন এমন করে সবাই আমার বিরুদ্ধে লেগেছে বুঝতে পারছি না।

বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর ড. মো. খোরশেদ আলম জানান, ঘটনা সম্পর্কে আমি কিছু জানিনা ৷ বাজারে মারামারি করলে সে দ্বায়-দায়িত্ব আমার না ৷ এটা ক্যাম্পাসের বাহিরের ঘটনা, সবথেকে ভালো ভুক্তভোগীর আইনি ব্যবস্থা নেওয়া ৷

এ বিষয়ে বিশ্ববিদ্যালয় পুলিশ ক্যাম্পের ইনচার্জ এসআই মশিউর রহমান বলেন, ঘটনা আমরা জেনে ঘটনাস্থলে গেছিলাম ৷ ভিডিও ফুটেজ সংগ্রহের চেষ্টা চলছে ৷ ভুক্তভোগী এখন পর্যন্ত লিখিত অভিযোগ দায়ের করেনি ৷ অভিযোগ পেলে আমরা আইনি ব্যবস্থা গ্রহণ করবো।

উল্লেখ্য, প্রতিষ্ঠার পর থেকে বরিশাল বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রলীগের কোনো সাংগঠনিক কমিটি নেই।