ঢাকা ০৩:৪৯ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ২১ জুন ২০২৪, ৬ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম :




জাতির প্রত্যাশা পূরনে সচেষ্ট থাকবে মেট্রোপলিটন ইউনিভার্সিটিঃ ভাইস চ্যান্সেলর প্রফেসর ড. মোহাম্মদ জহিরুল হক 

প্রতিনিধি, সিলেট
  • আপডেট সময় : ১০:৫১:২০ অপরাহ্ন, শনিবার, ১১ মার্চ ২০২৩ ১৫৮ বার পড়া হয়েছে

দেশের শীর্ষ শিক্ষা প্রতিষ্ঠান মেট্রোপলিটন ইউনিভার্সিটির ভাইস চ্যান্সেলর প্রফেসর ড. মোহাম্মদ জহিরুল হক বলেছেন, “জাতির প্রত্যাশা পূরনে সচেষ্ট থাকবে মেট্রোপলিটন ইউনিভার্সিটি। সিলেটে প্রতিষ্ঠিত হলেও এ বিশ্ববিদ্যালয়ের যুগোপযোগী কারিক্যুলাম, কৃতি ও মেধাবী শিক্ষক ও তাদের পাঠদান পদ্ধতি, শিক্ষার মান, আধুনিক ল্যাব, গ্র্যাজুয়েটদের কর্মক্ষেত্রে প্রবেশ ও উচ্চতর শিক্ষাগ্রহনে সফলতার সুনামের জন্য সিলেট বিভাগের বাইরের বিভিন্ন জেলা থেকে এখানে ছাত্র-ছাত্রীরা লেখাপড়া করতে আসছেন। সিলেটে প্রতিষ্ঠিত হলেও মেট্রোপলিটন ইউনিভার্সিটি সারাদেশের শিক্ষার্থী যাতে সহনশীল টিউশন ফি তে বিভিন্ন প্রোগ্রামে শিক্ষাগ্রহন করতে পারে সে ব্যাপারে প্রতিষ্ঠাতা ও চেয়ারম্যান ড. তৌফিক রহমান চৌধুরী ও ভাইস চেয়ারম্যান তানভীর এমও রহমান চৌধুরী খুবই আন্তরিক। এ বিশ্ববিদ্যালয়ের গ্র্যাজুয়েটরা কেবল দেশের সুনামধন্য প্রতিষ্ঠানে চাকুরী করছেন না; গুগল, অ্যামাজন, নিউইয়র্ক স্টক এক্সেঞ্জের মতো প্রতিষ্ঠানে নিজেদের স্থান করে নিয়েছেন।”

গত ৯ মার্চ বিকেলে মেট্রোপলিটন ইউনিভার্সিটির কনফারেন্স হলে বৃহত্তর সিলেটের বাইরের জেলাসমূহ থেকে কম্পিউটার সায়েন্স এন্ড ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগে ভর্তি হওয়া ছাত্র-ছাত্রীদের সাথে মতবিনিময় সভায় তিনি এ কথা বলেন।

এসময় অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন কম্পিউটার সায়েন্স এন্ড ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের প্রধান মোঃ মাহফুজুল হাসান ও রেজিস্ট্রার তারেক ইসলাম, প্রমূখ।
মেট্রোপলিটন ইউনিভার্সিটির জনসংযোগ দপ্তর জানায়, প্রতি বছরই সিলেট বিভাগের চার জেলা তথা সিলেট, মৌলভীবাজার, সুনামগঞ্জ ও হবিগঞ্জ ছাড়াও দেশের বিভিন্ন জেলা থেকে উল্লেখযোগ্য সংখ্যক শিক্ষার্থী মেট্রোপলিটন ইউনিভার্সিটির বিভিন্ন বিভাগে ভর্তি হন। এ বছর কম্পিউটার সায়েন্স এন্ড ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগে ময়মনসিংহ, কিশোরগঞ্জ, ব্রাহ্মণবাড়িয়া, কুমিল্লা, চাঁদপুর, চট্টগ্রাম, কক্সবাজার, নরসিংদী, নারায়নগঞ্জ, মুন্সিগঞ্জ, ঢাকা, মাদারীপুর, শরিয়তপুর, ফরিদপুর, রাজশাহী, কুষ্টিয়া, বগুড়া, দিনাজপুর, রাজশাহী, সাতক্ষীরা, খুলনা, বরিশাল, পিরোজপুরসহ দেশের বিভিন্ন জেলা থেকে ছাত্র-ছাত্রীরা ভর্তি হয়েছেন। তন্মধ্যে কয়েকজন পাবলিক ইউনিভার্সিটির বিভিন্ন বিভাগে ভর্তি বাতিল করে এখানে পড়তে এসেছেন। ভাইস চ্যান্সেলর প্রতিটি বিভাগের ছাত্র-ছাত্রীর সাথে পৃথক মতবিনিময় করবেন। এরই ধারাবাহিকতায় প্রথম দিকে সিএসই বিভাগের ছাত্র-ছাত্রীর সাথে এ মতবিনিময় সভার আয়োজন করা হয়। পর্যায়ক্রমে তিনি সফটওয়ার ইঞ্জিনিয়ারিং, ইলেকট্রনিক্স ও ইলেকট্রিক্যাল ইঞ্জিনিয়ারিং, ব্যবসায় প্রশাসন, আইন ও বিচার, ইংরেজী ও অর্থনীতি বিভাগে ভর্তিকৃত সিলেট বিভাগের বাইরের জেলাসমূহের শিক্ষার্থীদের সাথে মতবিনিময় করবেন।

ভাইস চ্যান্সেলর আরো বলেন, “মেট্রোপলিটন ইউনিভার্সিটির প্রতিষ্ঠাতা ও চেয়ারম্যান শিক্ষানুরাগী ড. তৌফিক রহমান চৌধুরী ও ভাইস চেয়ারম্যান তানভীর এমও রহমান চৌধুরী এ বিশ্ববিদ্যালয়টিকে সিলেটসহ সমগ্র দেশের আশা-আকাংখার প্রতীক হিসেবে গড়ে তোলার প্রচেষ্ঠায় আমাদের সম্মানীত শিক্ষকবৃন্দ ও প্রশাসন কাজ করে যাচ্ছে। এ প্রচেষ্ঠায় আমি সকলের সহায়তা কামনা করছি।“

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

ট্যাগস :




জাতির প্রত্যাশা পূরনে সচেষ্ট থাকবে মেট্রোপলিটন ইউনিভার্সিটিঃ ভাইস চ্যান্সেলর প্রফেসর ড. মোহাম্মদ জহিরুল হক 

আপডেট সময় : ১০:৫১:২০ অপরাহ্ন, শনিবার, ১১ মার্চ ২০২৩

দেশের শীর্ষ শিক্ষা প্রতিষ্ঠান মেট্রোপলিটন ইউনিভার্সিটির ভাইস চ্যান্সেলর প্রফেসর ড. মোহাম্মদ জহিরুল হক বলেছেন, “জাতির প্রত্যাশা পূরনে সচেষ্ট থাকবে মেট্রোপলিটন ইউনিভার্সিটি। সিলেটে প্রতিষ্ঠিত হলেও এ বিশ্ববিদ্যালয়ের যুগোপযোগী কারিক্যুলাম, কৃতি ও মেধাবী শিক্ষক ও তাদের পাঠদান পদ্ধতি, শিক্ষার মান, আধুনিক ল্যাব, গ্র্যাজুয়েটদের কর্মক্ষেত্রে প্রবেশ ও উচ্চতর শিক্ষাগ্রহনে সফলতার সুনামের জন্য সিলেট বিভাগের বাইরের বিভিন্ন জেলা থেকে এখানে ছাত্র-ছাত্রীরা লেখাপড়া করতে আসছেন। সিলেটে প্রতিষ্ঠিত হলেও মেট্রোপলিটন ইউনিভার্সিটি সারাদেশের শিক্ষার্থী যাতে সহনশীল টিউশন ফি তে বিভিন্ন প্রোগ্রামে শিক্ষাগ্রহন করতে পারে সে ব্যাপারে প্রতিষ্ঠাতা ও চেয়ারম্যান ড. তৌফিক রহমান চৌধুরী ও ভাইস চেয়ারম্যান তানভীর এমও রহমান চৌধুরী খুবই আন্তরিক। এ বিশ্ববিদ্যালয়ের গ্র্যাজুয়েটরা কেবল দেশের সুনামধন্য প্রতিষ্ঠানে চাকুরী করছেন না; গুগল, অ্যামাজন, নিউইয়র্ক স্টক এক্সেঞ্জের মতো প্রতিষ্ঠানে নিজেদের স্থান করে নিয়েছেন।”

গত ৯ মার্চ বিকেলে মেট্রোপলিটন ইউনিভার্সিটির কনফারেন্স হলে বৃহত্তর সিলেটের বাইরের জেলাসমূহ থেকে কম্পিউটার সায়েন্স এন্ড ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগে ভর্তি হওয়া ছাত্র-ছাত্রীদের সাথে মতবিনিময় সভায় তিনি এ কথা বলেন।

এসময় অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন কম্পিউটার সায়েন্স এন্ড ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের প্রধান মোঃ মাহফুজুল হাসান ও রেজিস্ট্রার তারেক ইসলাম, প্রমূখ।
মেট্রোপলিটন ইউনিভার্সিটির জনসংযোগ দপ্তর জানায়, প্রতি বছরই সিলেট বিভাগের চার জেলা তথা সিলেট, মৌলভীবাজার, সুনামগঞ্জ ও হবিগঞ্জ ছাড়াও দেশের বিভিন্ন জেলা থেকে উল্লেখযোগ্য সংখ্যক শিক্ষার্থী মেট্রোপলিটন ইউনিভার্সিটির বিভিন্ন বিভাগে ভর্তি হন। এ বছর কম্পিউটার সায়েন্স এন্ড ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগে ময়মনসিংহ, কিশোরগঞ্জ, ব্রাহ্মণবাড়িয়া, কুমিল্লা, চাঁদপুর, চট্টগ্রাম, কক্সবাজার, নরসিংদী, নারায়নগঞ্জ, মুন্সিগঞ্জ, ঢাকা, মাদারীপুর, শরিয়তপুর, ফরিদপুর, রাজশাহী, কুষ্টিয়া, বগুড়া, দিনাজপুর, রাজশাহী, সাতক্ষীরা, খুলনা, বরিশাল, পিরোজপুরসহ দেশের বিভিন্ন জেলা থেকে ছাত্র-ছাত্রীরা ভর্তি হয়েছেন। তন্মধ্যে কয়েকজন পাবলিক ইউনিভার্সিটির বিভিন্ন বিভাগে ভর্তি বাতিল করে এখানে পড়তে এসেছেন। ভাইস চ্যান্সেলর প্রতিটি বিভাগের ছাত্র-ছাত্রীর সাথে পৃথক মতবিনিময় করবেন। এরই ধারাবাহিকতায় প্রথম দিকে সিএসই বিভাগের ছাত্র-ছাত্রীর সাথে এ মতবিনিময় সভার আয়োজন করা হয়। পর্যায়ক্রমে তিনি সফটওয়ার ইঞ্জিনিয়ারিং, ইলেকট্রনিক্স ও ইলেকট্রিক্যাল ইঞ্জিনিয়ারিং, ব্যবসায় প্রশাসন, আইন ও বিচার, ইংরেজী ও অর্থনীতি বিভাগে ভর্তিকৃত সিলেট বিভাগের বাইরের জেলাসমূহের শিক্ষার্থীদের সাথে মতবিনিময় করবেন।

ভাইস চ্যান্সেলর আরো বলেন, “মেট্রোপলিটন ইউনিভার্সিটির প্রতিষ্ঠাতা ও চেয়ারম্যান শিক্ষানুরাগী ড. তৌফিক রহমান চৌধুরী ও ভাইস চেয়ারম্যান তানভীর এমও রহমান চৌধুরী এ বিশ্ববিদ্যালয়টিকে সিলেটসহ সমগ্র দেশের আশা-আকাংখার প্রতীক হিসেবে গড়ে তোলার প্রচেষ্ঠায় আমাদের সম্মানীত শিক্ষকবৃন্দ ও প্রশাসন কাজ করে যাচ্ছে। এ প্রচেষ্ঠায় আমি সকলের সহায়তা কামনা করছি।“