ঢাকা ০৭:১৩ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২২ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ১০ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ




সমাজসেবক ব্যবসায়ীর বিরুদ্ধে মিথ্যে সংবাদ প্রচারের প্রতিবাদে জাতীয় প্রেসক্লাবে সংবাদ সম্মেলন

নিজস্ব প্রতিবেদক;
  • আপডেট সময় : ১২:০৪:০০ অপরাহ্ন, সোমবার, ৩০ জানুয়ারী ২০২৩ ১৪৯ বার পড়া হয়েছে

নিজস্ব প্রতিবেদক: খুলনা জেলার বটিয়াঘাটা উপজেলার বিশিষ্ট ব্যবসায়ী ও সমাজ সেবক সুরঞ্জন সুতারের বিরুদ্ধে জমিজমা সংক্রান্ত মিথ্যা মামলা ও ভিক্তিহিন, কুরুচি পূর্ণ সংবাদ প্রকাশের অভিযোগের প্রতিবাদে জাতীয় প্রেসক্লাবের জহুরুল হক চৌধুরী হলে সোমবার সংবাদ সম্মেলন করেন তিনি।

উক্ত সমাজ সম্মেলনে উপস্থিত দেশের শীর্ষস্থানীয় স্যাটেলাইট টেলিভিশন জাতীয় দৈনিক মিডিয়ার সাংবাদিকবৃন্দের উদ্দেশ্যে একটি লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন খুলনার পটিয়াঘাটার সমাজসেবক ও বিশিষ্ট এই ব্যবসায়ী। লিখিত বক্তব্যে তিনি বলেন, আমি দীর্ঘদিন ধরে স্থানীয় জনমানুষের সেবায় মদ ধর্ম নির্বিশেষে সকলের পাশে থেকেছি। সততার সাথে ব্যবসা করে সফল ও প্রতিষ্ঠিত হওয়ার কারণে কিছু ব্যক্তি আমাকে সামাজিক খারাপ প্রতিপন্ন করা এবং আমার থেকে বড় ধরনের সুবিধা পাওয়ার হীন উদ্দেশ্যে উঠে পড়ে লেগেছে। সম্প্রতি কথিত মডেল হিসেবে দাবি করা ইতিমা মন্ডল পিতা: নারায়ন মন্ডল, গ্রাম ঠিকরাবাদ বটিয়াঘাটা খুলনা। যে কিনা আমার এলাকার আমার সম্প্রদায়ের একজন বোন। এই ইতিমা মন্ডল নামের মেয়েটি ঢাকায় মিডিয়া জগতে সে একজন মডেল তারকা হিসাবে নিজেকে দাবি করেন। এই মেয়েটি আমার পাড়া-প্রতিবেশী মেয়ে সে সমাজের বিভিন্ন জায়গায় আমার নামে খুব বাজে মন্তব্য করছে। এবং জমিজমা সংক্রান্ত বিষয়ে আমার নামে দুটি মিথ্যা মামলা দিয়েছে যা আদালতে চলমান রয়েছে।

ইতিমা মন্ডল আমার বিরুদ্ধে কিছু বিষয় জড়িয়ে মিথ্যা দোষারোপ করছে যে সকল কোন কর্মকান্ডের সাথে আমার কোন প্রকার সম্পৃক্ততা নেই। আমি নাকি তার বাবাকে ও তার পরিবারকে হুমকি ধামকি দিচ্ছি তাদেরকে ভিটা ছাড়া করছি। তার এই মন্তব্য গুলি কতটুকু সত্য এটা দেখার দায়িত্ব আপনাদের এবং প্রশাসনের নিকট ও মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর নিকট আমার আকুল আবেদন সত্যকারের দোষী কে নির্ণয় করুন দোষী ব্যক্তি কে সাজা দিন।

প্রিয় সাংবাদিক ভাইয়েরা, গত ২৬-১-২৩ ইংরেজি তারিখে ঢাকা থেকে প্রকাশিত ও প্রচারিত এবিসি নিউজ ডটকম ডট বিডি ও ডেইলি ঢাকার কন্ঠ ডট কম সহ কিছু সংবাদমাধ্যমে আমার বিরুদ্ধে গুজব ছড়ানো মিথ্যা বিষয় নিয়ে সংবাদ পরিবেশন করেন যেসব সংবাদ প্রচারের ক্ষেত্রে কোন প্রকার সত্যতা যাচাই না করেই আমাকে সামাজিকভাবে চরমহের প্রতিপন্ন করা হয়েছে। আমার বিরুদ্ধে যে মিথ্যা বানোয়াট ভিত্তিহীন ও কুরুচিপূর্ণ সংবাদ পরিবেশন করা হয়। ওই সংবাদে আমাকে চিহ্নিত সন্ত্রাসী, কুখ্যাত ভূমিদস্যু বলা হয়। যাহা সম্পূর্ণ মিথ্যা বানোয়াট মনগড়া ও ভিত্তিহীন। আমি ওই প্রকাশিত সংবাদের তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাই।

প্রিয় সাংবাদিক বন্ধুগন, মূলত আমি একজন ব্যাবসায়ী ও সমাজ সেবক। আমি প্রগতি বিদ্যাপীঠ স্কুল এর ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি বাংলাদেশ। বাংলাদেশ পূজা উদযাপন পরিষদের বটিয়াঘাটা উপজেলার জয়েন্ট সেক্রেটারি। বিদ্যাবাড়ী কিন্ডারগার্টেন স্কুলের প্রতিষ্ঠাতা। এছাড়াও শৈল রংপুর মুজরঘোটা অঞ্চলে আমি পাঁচটি মন্দির নির্মাণ, বৃদ্ধাশ্রম নির্মাণ এবং চিকিৎসালয় নির্মাণ কাজ করেছি আমার নিজ অর্থায়নে। এছাড়াও আমার উপজপলার বিভিন্ন অঞ্চলে পানির সংকট দেখা দেওয়ায় অসহায় মানুষের পাশে দাঁড়ানোর লক্ষ্যেনিজ অর্থায়নে ১৭টি গভীর নলকূপ স্থাপন করেছি। বিভিন্ন মসজিদ মাদ্রাসায় উন্নয়নের কাজে অর্থ প্রদান,গরিব দরিদ্র অসহায় মানুষের মেয়ের বিবাহে অর্থদান, শীতকালীন বস্ত্র বিতারনসহ সমাজের বিভিন্ন উন্নয়ন মূলক ও সামাজিক কর্মকাণ্ডের সাথে আমি জড়িত।

প্রিয় সাংবাদিক ভাইয়েরা, এই ইতিমা মন্ডলের সাথে বা তার পরিবারের কোন সদস্যের সাথে আমার কোন বিরোধ ছিল না বা এখনো নেই। শুধুমাত্র সমাজে হেয় প্রতিপন্ন করার জন্য উক্ত সংবাদের আমার নাম জড়ানো হয়েছে এটা কোন ভাবেই সত্য নয়। এ কারণে আমি সকল সাংবাদিক বন্ধু ও প্রশাসনের প্রতি আহবান জানাই আপনারা সরেজমিন তদন্ত পূর্বক বিষয়টি খতিয়ে দেখুন। আমি চাই আপনারা সত্যটা লিখুন সত্যকে প্রকাশ করুন।

Loading

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

ট্যাগস :




সমাজসেবক ব্যবসায়ীর বিরুদ্ধে মিথ্যে সংবাদ প্রচারের প্রতিবাদে জাতীয় প্রেসক্লাবে সংবাদ সম্মেলন

আপডেট সময় : ১২:০৪:০০ অপরাহ্ন, সোমবার, ৩০ জানুয়ারী ২০২৩

নিজস্ব প্রতিবেদক: খুলনা জেলার বটিয়াঘাটা উপজেলার বিশিষ্ট ব্যবসায়ী ও সমাজ সেবক সুরঞ্জন সুতারের বিরুদ্ধে জমিজমা সংক্রান্ত মিথ্যা মামলা ও ভিক্তিহিন, কুরুচি পূর্ণ সংবাদ প্রকাশের অভিযোগের প্রতিবাদে জাতীয় প্রেসক্লাবের জহুরুল হক চৌধুরী হলে সোমবার সংবাদ সম্মেলন করেন তিনি।

উক্ত সমাজ সম্মেলনে উপস্থিত দেশের শীর্ষস্থানীয় স্যাটেলাইট টেলিভিশন জাতীয় দৈনিক মিডিয়ার সাংবাদিকবৃন্দের উদ্দেশ্যে একটি লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন খুলনার পটিয়াঘাটার সমাজসেবক ও বিশিষ্ট এই ব্যবসায়ী। লিখিত বক্তব্যে তিনি বলেন, আমি দীর্ঘদিন ধরে স্থানীয় জনমানুষের সেবায় মদ ধর্ম নির্বিশেষে সকলের পাশে থেকেছি। সততার সাথে ব্যবসা করে সফল ও প্রতিষ্ঠিত হওয়ার কারণে কিছু ব্যক্তি আমাকে সামাজিক খারাপ প্রতিপন্ন করা এবং আমার থেকে বড় ধরনের সুবিধা পাওয়ার হীন উদ্দেশ্যে উঠে পড়ে লেগেছে। সম্প্রতি কথিত মডেল হিসেবে দাবি করা ইতিমা মন্ডল পিতা: নারায়ন মন্ডল, গ্রাম ঠিকরাবাদ বটিয়াঘাটা খুলনা। যে কিনা আমার এলাকার আমার সম্প্রদায়ের একজন বোন। এই ইতিমা মন্ডল নামের মেয়েটি ঢাকায় মিডিয়া জগতে সে একজন মডেল তারকা হিসাবে নিজেকে দাবি করেন। এই মেয়েটি আমার পাড়া-প্রতিবেশী মেয়ে সে সমাজের বিভিন্ন জায়গায় আমার নামে খুব বাজে মন্তব্য করছে। এবং জমিজমা সংক্রান্ত বিষয়ে আমার নামে দুটি মিথ্যা মামলা দিয়েছে যা আদালতে চলমান রয়েছে।

ইতিমা মন্ডল আমার বিরুদ্ধে কিছু বিষয় জড়িয়ে মিথ্যা দোষারোপ করছে যে সকল কোন কর্মকান্ডের সাথে আমার কোন প্রকার সম্পৃক্ততা নেই। আমি নাকি তার বাবাকে ও তার পরিবারকে হুমকি ধামকি দিচ্ছি তাদেরকে ভিটা ছাড়া করছি। তার এই মন্তব্য গুলি কতটুকু সত্য এটা দেখার দায়িত্ব আপনাদের এবং প্রশাসনের নিকট ও মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর নিকট আমার আকুল আবেদন সত্যকারের দোষী কে নির্ণয় করুন দোষী ব্যক্তি কে সাজা দিন।

প্রিয় সাংবাদিক ভাইয়েরা, গত ২৬-১-২৩ ইংরেজি তারিখে ঢাকা থেকে প্রকাশিত ও প্রচারিত এবিসি নিউজ ডটকম ডট বিডি ও ডেইলি ঢাকার কন্ঠ ডট কম সহ কিছু সংবাদমাধ্যমে আমার বিরুদ্ধে গুজব ছড়ানো মিথ্যা বিষয় নিয়ে সংবাদ পরিবেশন করেন যেসব সংবাদ প্রচারের ক্ষেত্রে কোন প্রকার সত্যতা যাচাই না করেই আমাকে সামাজিকভাবে চরমহের প্রতিপন্ন করা হয়েছে। আমার বিরুদ্ধে যে মিথ্যা বানোয়াট ভিত্তিহীন ও কুরুচিপূর্ণ সংবাদ পরিবেশন করা হয়। ওই সংবাদে আমাকে চিহ্নিত সন্ত্রাসী, কুখ্যাত ভূমিদস্যু বলা হয়। যাহা সম্পূর্ণ মিথ্যা বানোয়াট মনগড়া ও ভিত্তিহীন। আমি ওই প্রকাশিত সংবাদের তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাই।

প্রিয় সাংবাদিক বন্ধুগন, মূলত আমি একজন ব্যাবসায়ী ও সমাজ সেবক। আমি প্রগতি বিদ্যাপীঠ স্কুল এর ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি বাংলাদেশ। বাংলাদেশ পূজা উদযাপন পরিষদের বটিয়াঘাটা উপজেলার জয়েন্ট সেক্রেটারি। বিদ্যাবাড়ী কিন্ডারগার্টেন স্কুলের প্রতিষ্ঠাতা। এছাড়াও শৈল রংপুর মুজরঘোটা অঞ্চলে আমি পাঁচটি মন্দির নির্মাণ, বৃদ্ধাশ্রম নির্মাণ এবং চিকিৎসালয় নির্মাণ কাজ করেছি আমার নিজ অর্থায়নে। এছাড়াও আমার উপজপলার বিভিন্ন অঞ্চলে পানির সংকট দেখা দেওয়ায় অসহায় মানুষের পাশে দাঁড়ানোর লক্ষ্যেনিজ অর্থায়নে ১৭টি গভীর নলকূপ স্থাপন করেছি। বিভিন্ন মসজিদ মাদ্রাসায় উন্নয়নের কাজে অর্থ প্রদান,গরিব দরিদ্র অসহায় মানুষের মেয়ের বিবাহে অর্থদান, শীতকালীন বস্ত্র বিতারনসহ সমাজের বিভিন্ন উন্নয়ন মূলক ও সামাজিক কর্মকাণ্ডের সাথে আমি জড়িত।

প্রিয় সাংবাদিক ভাইয়েরা, এই ইতিমা মন্ডলের সাথে বা তার পরিবারের কোন সদস্যের সাথে আমার কোন বিরোধ ছিল না বা এখনো নেই। শুধুমাত্র সমাজে হেয় প্রতিপন্ন করার জন্য উক্ত সংবাদের আমার নাম জড়ানো হয়েছে এটা কোন ভাবেই সত্য নয়। এ কারণে আমি সকল সাংবাদিক বন্ধু ও প্রশাসনের প্রতি আহবান জানাই আপনারা সরেজমিন তদন্ত পূর্বক বিষয়টি খতিয়ে দেখুন। আমি চাই আপনারা সত্যটা লিখুন সত্যকে প্রকাশ করুন।

Loading