ঢাকা ০৫:৫০ অপরাহ্ন, রবিবার, ১৯ মে ২০২৪, ৫ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম :
Logo গণপূর্ত প্রধান প্রকৌশলীর গাড়ি চাপায় পিষ্ট সহকারী প্রকৌশলী -উত্তাল গণপূর্ত Logo শাবিপ্রবির বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান হলের উদ্যোগে বৃক্ষরোপণ Logo সওজের উপ-বিভাগীয় প্রকৌশলী নাহিনুরের সীমাহীন সম্পদ ও অনিয়ম -পর্ব-০১ Logo তামাক সেবনের আলাদা কক্ষ বানালেন গণপূর্তের নির্বাহী প্রকৌশলী: রয়েছে দুর্নীতির পাহাড়সম অভিযোগ! Logo দেশের সর্বোচ্চ আদালতকে বৃদ্ধাঙ্গুলি: কালবে সর্বোচ্চ পদ দখলে রেখেছে আগস্টিন! Logo আইআইএফসি ও মার্কটেল বাংলাদেশ’র মধ্যে কৌশলগত সহযোগিতা ও সমঝোতা স্মারক স্বাক্ষর Logo ফায়ার সার্ভিস সদর দপ্তর পরিদর্শনে দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ প্রতিমন্ত্রী Logo সর্বজনীন পেনশন প্রত্যাহারে শাবি শিক্ষক সমিতি মৌন মিছিল ও কালোব্যাজ ধারণ Logo শাবিপ্রবিতে কুমিল্লা স্টুডেন্টস এসোসিয়েশনের নবীনবরণ অনুষ্ঠিত Logo শাবিপ্রবি কেন্দ্রে সুষ্ঠভাবে গুচ্ছভর্তির তিন ইউনিটের পরীক্ষা সম্পন্ন




তিন বছরের শিশুসহ ২৬ জনের দাফন

প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ০১:৪৮:৪৯ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ২২ মার্চ ২০১৯ ১১৭ বার পড়া হয়েছে

লুটিয়েপড়া একটি পাখির মতো ছোট দেহটি খোলা কফিনের মাত্র অর্ধেকটা অংশ জুড়ে ছিল। ৩ বছর বয়সী মুকাদ ইব্রাহিমের কাফনে মোড়ানো দেহটি ছিল প্রায় ভারহীন। সোমালিয়ার এই শিশুটির মরদেহ বহন করছিল লম্বা কালো জুব্বাপরা তার পরিবারে দশজন সদস্য।

নিউজিল্যান্ডের ক্রাইস্টচার্চে সন্ত্রাসী হামলায় নিহত সর্বকনিষ্ঠ এই শিশুটিকে আজ শুক্রবার দুপুরে নিহত ২৫ জনের সঙ্গে জানাজা করা হয়। এর পর মেমোরিয়াল পার্কে তাদের দাফন করা হয়।

এর আগে আজ শুক্রবার ‘আল-নূর’ মসজিদের পাশের হ্যাগলে পার্কে অনুষ্ঠিত জুমার নামাজ অনুষ্ঠিত হয়। দেশটির রেডিও ও টেলিভিশন সরাসরি সম্প্রচার করে। সেখানে উপস্থিত ছিলেন প্রধানমন্ত্রী জেসিন্ডা আরডার্নসহ ধর্ম-দল-মত নির্বিশেষে নানা শ্রেণির মানুষ।

ইব্রাহিম ছিল বাদামি চোখের সব সময় হাস্যোজ্জ্বল এক বালক। প্রায় ২০ বছর আগে দেশ থেকে পালিয়ে আসা একটি সোমালিয়া পরিবারে জন্মগ্রহণ করে সে। প্রথমে আল নূর মসজিদে চালানো বন্দুকধারীর গুলিতে বাবার কাছ থেকে বিচ্ছিন্ন হয়ে ইব্রাহিম নিহত হয়।

তিন বছর বয়সী শিশুটি মারা যাওয়ার পর তার ভাই আবদি বলেন, ‘সত্যিই আমরা আল্লাহর কাছাকাছি এবং তার কাছেই ফিরে যাব।’

মসজিদে হামলায় নিহত ২৬ জনকে সমাহিত করতে সময় লাগে দুই ঘণ্টা। এদিকে নিহতদের শোকে গাড়ি দুর্ঘটনায় মারা যাওয়া মোহাম্মদ এলমিকেও আজ দাফন করা হয়েছে।

পার্কে অনুষ্ঠিত জানাজায় প্রায় ৫ হাজার মুসল্লি অংশ নেন। এর আগে নিউজিল্যান্ডে এমন দৃশ্য দেখা যায়নি। নিহতদের রুহের মাগফিরাত কামনা এবং আহতদের দ্রুত আরোগ্য লাভে দেশজুড়ে পালিত হয় দু’মিনিটের নীরবতা।

যে ২৬ জনের দাফন সম্পন্ন হলো : কামেল মো. কামেল কামেল ডারইউশ, গুলাম হুসাইন, কারাম বিবি, মোহাম্মদ জেসান রেজা, আশরাফ আল-মর্চি রাঘেব, মুকাদ ইব্রাহিম, হুসনা আহমেদ, রামিজ আরিফ ভাই ভোরা, আরিফ মোহাম্মাদালি ভোহরা, আমজাদ আহমেদ, মুসি এ ওয়ালি, মোহাম্মদ সামাদ, মোহাম্মদ আতা ইলাইয়ান, ওসামা আদদান আবুকওয়াইক, মৌনির গুইরজিস সোলিমান, মোহাম্মদ সুহাল শাহিদ, আবদেলফাত্তা কাসেম, আলি মো. আব্দুল্লাহ এলমাদানি, আবদুকাদির এলমি, আহমেদ গামেল এলদিন মো. আবদেল গনি, তালহা নাইম, নাইম রশিদ, হুসাইন আল-ওমারি, মোহাম্মদ ইমরান খান, মোহামেদ শেখ আবদি এলমি, হারুন মাহমুদ।

গত ১৫ মার্চ নিউজিল্যান্ডের ক্রাইস্টচার্চের আল নূর ও লিনউড মসজিদে বন্দুকধারীর হামলায় নিহত হন ৫০ জন। কট্টর শ্বেতাঙ্গ বর্ণবাদী ২৮ বছরের ব্রেনটন টেরেন্ট এ হত্যাযজ্ঞ চালায়। নিহতদের মধ্যে পাকিস্তানের নাগরিক রয়েছেন ৯ জন এবং বাংলাদেশের ৫ জন।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

ট্যাগস :




তিন বছরের শিশুসহ ২৬ জনের দাফন

আপডেট সময় : ০১:৪৮:৪৯ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ২২ মার্চ ২০১৯

লুটিয়েপড়া একটি পাখির মতো ছোট দেহটি খোলা কফিনের মাত্র অর্ধেকটা অংশ জুড়ে ছিল। ৩ বছর বয়সী মুকাদ ইব্রাহিমের কাফনে মোড়ানো দেহটি ছিল প্রায় ভারহীন। সোমালিয়ার এই শিশুটির মরদেহ বহন করছিল লম্বা কালো জুব্বাপরা তার পরিবারে দশজন সদস্য।

নিউজিল্যান্ডের ক্রাইস্টচার্চে সন্ত্রাসী হামলায় নিহত সর্বকনিষ্ঠ এই শিশুটিকে আজ শুক্রবার দুপুরে নিহত ২৫ জনের সঙ্গে জানাজা করা হয়। এর পর মেমোরিয়াল পার্কে তাদের দাফন করা হয়।

এর আগে আজ শুক্রবার ‘আল-নূর’ মসজিদের পাশের হ্যাগলে পার্কে অনুষ্ঠিত জুমার নামাজ অনুষ্ঠিত হয়। দেশটির রেডিও ও টেলিভিশন সরাসরি সম্প্রচার করে। সেখানে উপস্থিত ছিলেন প্রধানমন্ত্রী জেসিন্ডা আরডার্নসহ ধর্ম-দল-মত নির্বিশেষে নানা শ্রেণির মানুষ।

ইব্রাহিম ছিল বাদামি চোখের সব সময় হাস্যোজ্জ্বল এক বালক। প্রায় ২০ বছর আগে দেশ থেকে পালিয়ে আসা একটি সোমালিয়া পরিবারে জন্মগ্রহণ করে সে। প্রথমে আল নূর মসজিদে চালানো বন্দুকধারীর গুলিতে বাবার কাছ থেকে বিচ্ছিন্ন হয়ে ইব্রাহিম নিহত হয়।

তিন বছর বয়সী শিশুটি মারা যাওয়ার পর তার ভাই আবদি বলেন, ‘সত্যিই আমরা আল্লাহর কাছাকাছি এবং তার কাছেই ফিরে যাব।’

মসজিদে হামলায় নিহত ২৬ জনকে সমাহিত করতে সময় লাগে দুই ঘণ্টা। এদিকে নিহতদের শোকে গাড়ি দুর্ঘটনায় মারা যাওয়া মোহাম্মদ এলমিকেও আজ দাফন করা হয়েছে।

পার্কে অনুষ্ঠিত জানাজায় প্রায় ৫ হাজার মুসল্লি অংশ নেন। এর আগে নিউজিল্যান্ডে এমন দৃশ্য দেখা যায়নি। নিহতদের রুহের মাগফিরাত কামনা এবং আহতদের দ্রুত আরোগ্য লাভে দেশজুড়ে পালিত হয় দু’মিনিটের নীরবতা।

যে ২৬ জনের দাফন সম্পন্ন হলো : কামেল মো. কামেল কামেল ডারইউশ, গুলাম হুসাইন, কারাম বিবি, মোহাম্মদ জেসান রেজা, আশরাফ আল-মর্চি রাঘেব, মুকাদ ইব্রাহিম, হুসনা আহমেদ, রামিজ আরিফ ভাই ভোরা, আরিফ মোহাম্মাদালি ভোহরা, আমজাদ আহমেদ, মুসি এ ওয়ালি, মোহাম্মদ সামাদ, মোহাম্মদ আতা ইলাইয়ান, ওসামা আদদান আবুকওয়াইক, মৌনির গুইরজিস সোলিমান, মোহাম্মদ সুহাল শাহিদ, আবদেলফাত্তা কাসেম, আলি মো. আব্দুল্লাহ এলমাদানি, আবদুকাদির এলমি, আহমেদ গামেল এলদিন মো. আবদেল গনি, তালহা নাইম, নাইম রশিদ, হুসাইন আল-ওমারি, মোহাম্মদ ইমরান খান, মোহামেদ শেখ আবদি এলমি, হারুন মাহমুদ।

গত ১৫ মার্চ নিউজিল্যান্ডের ক্রাইস্টচার্চের আল নূর ও লিনউড মসজিদে বন্দুকধারীর হামলায় নিহত হন ৫০ জন। কট্টর শ্বেতাঙ্গ বর্ণবাদী ২৮ বছরের ব্রেনটন টেরেন্ট এ হত্যাযজ্ঞ চালায়। নিহতদের মধ্যে পাকিস্তানের নাগরিক রয়েছেন ৯ জন এবং বাংলাদেশের ৫ জন।