ঢাকা ০৪:১৫ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ২১ জুন ২০২৪, ৬ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম :




রাজস্ব হারাচ্ছে সরকার

কয়েক হাজার অনুমোদনহীন মানি এক্সচেঞ্জে অবৈধ লেনদেন

সকালের সংবাদ:
  • আপডেট সময় : ১২:৪৬:৩১ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ২১ জানুয়ারী ২০২৩ ১১৪ বার পড়া হয়েছে

সকালের সংবাদ: অবৈধ মানি এক্সচেঞ্জের ব্যবসা খুলে ফুলে ফেঁপে বড় লোক হয়েছে দেশের প্রায় হাজার খানেক প্রতিষ্ঠান। বাংলাদেশ ব্যাংক থেকে তালিকা পাবার পর তাদের বিরুদ্ধে অভিযান নেমেছে পুলিশের অপরাধ তদন্ত বিভাগ সিআইডি।

এরই ধারাবাহিকতায় গতকাল রাজধানীতে অভিযান চালিয়ে পাঁচ প্রতিষ্ঠানের ১৪ জনকে গ্রেপ্তার করেছে সংস্থাটি। আজ বুধবার দুপুরে সিআইডির প্রধান কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলন করে এসব তথ্য জানিয়েছেন সিআইডির প্রধান অতিরিক্ত পুলিশ মহাপরিদর্শক মোহাম্মদ আলী মিয়া।

তিনি বলেন, ‘দেশের ২৩৫টা বৈধ লাইসেন্সধারী মানি এক্সচেঞ্জ রয়েছে। কিন্তু অবৈধ রয়েছে এক হাজারেরও বেশি। আবার অনেকে নাম-ঠিকানাবিহীন ভাসমান অবস্থায় হাতে হাতে ডলার বিক্রি করছেন। গতকাল রাজধানীর গুলশান, রিংরোড, মোহাম্মদপুর, আশকোনা, এবি মার্কেট, উত্তরা, চায়না মার্কেটে পাঁচটি অবৈধ অফিসে অভিযান চালানো হয়। এ সময় প্রতিষ্ঠানগুলো থেকে ১৪ জনকে গ্রেপ্তারসহ এক কোটি ১১ লাখ ১৯ হাজার টাকা জব্দ করা হয়।‘

আসামিদের কাছ থেকে প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে জানা যায়, তারা প্রতিদিন গড়ে ৭০-৭৫ লাখ টাকা সমমূল্যে বিদেশি মুদ্রা অবৈধভাবে ক্রয়-বিক্রয় করেন।

সিআইডি প্রধান বলেন, ‘এই চক্রের পেছনে যারা আছেন তাদের গ্রেপ্তার করতেও আমরা অভিযান চালাব। সঙ্গে দেশের মানুষকে অনুরোধ করব, সরকার ঘোষিত এবং সংশ্লিষ্ট বৈধ ব্যাংক থেকে ডলার ক্রয়-বিক্রয় করতে।’

Loading

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

ট্যাগস :




রাজস্ব হারাচ্ছে সরকার

কয়েক হাজার অনুমোদনহীন মানি এক্সচেঞ্জে অবৈধ লেনদেন

আপডেট সময় : ১২:৪৬:৩১ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ২১ জানুয়ারী ২০২৩

সকালের সংবাদ: অবৈধ মানি এক্সচেঞ্জের ব্যবসা খুলে ফুলে ফেঁপে বড় লোক হয়েছে দেশের প্রায় হাজার খানেক প্রতিষ্ঠান। বাংলাদেশ ব্যাংক থেকে তালিকা পাবার পর তাদের বিরুদ্ধে অভিযান নেমেছে পুলিশের অপরাধ তদন্ত বিভাগ সিআইডি।

এরই ধারাবাহিকতায় গতকাল রাজধানীতে অভিযান চালিয়ে পাঁচ প্রতিষ্ঠানের ১৪ জনকে গ্রেপ্তার করেছে সংস্থাটি। আজ বুধবার দুপুরে সিআইডির প্রধান কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলন করে এসব তথ্য জানিয়েছেন সিআইডির প্রধান অতিরিক্ত পুলিশ মহাপরিদর্শক মোহাম্মদ আলী মিয়া।

তিনি বলেন, ‘দেশের ২৩৫টা বৈধ লাইসেন্সধারী মানি এক্সচেঞ্জ রয়েছে। কিন্তু অবৈধ রয়েছে এক হাজারেরও বেশি। আবার অনেকে নাম-ঠিকানাবিহীন ভাসমান অবস্থায় হাতে হাতে ডলার বিক্রি করছেন। গতকাল রাজধানীর গুলশান, রিংরোড, মোহাম্মদপুর, আশকোনা, এবি মার্কেট, উত্তরা, চায়না মার্কেটে পাঁচটি অবৈধ অফিসে অভিযান চালানো হয়। এ সময় প্রতিষ্ঠানগুলো থেকে ১৪ জনকে গ্রেপ্তারসহ এক কোটি ১১ লাখ ১৯ হাজার টাকা জব্দ করা হয়।‘

আসামিদের কাছ থেকে প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে জানা যায়, তারা প্রতিদিন গড়ে ৭০-৭৫ লাখ টাকা সমমূল্যে বিদেশি মুদ্রা অবৈধভাবে ক্রয়-বিক্রয় করেন।

সিআইডি প্রধান বলেন, ‘এই চক্রের পেছনে যারা আছেন তাদের গ্রেপ্তার করতেও আমরা অভিযান চালাব। সঙ্গে দেশের মানুষকে অনুরোধ করব, সরকার ঘোষিত এবং সংশ্লিষ্ট বৈধ ব্যাংক থেকে ডলার ক্রয়-বিক্রয় করতে।’

Loading