ঢাকা ১১:৫০ পূর্বাহ্ন, রবিবার, ০৩ মার্চ ২০২৪, ২০ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম :
Logo ১৭ মার্চ ও ২৬ মার্চের আহ্বায়কসহ তিনজনকে প্রত্যাহারের আহ্বান কুবি শিক্ষক সমিতির Logo সিলেটে সাইবার ট্রাইব্যুনালে ছাত্রদল ও ছাত্রশিবির সদস্যের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের Logo ড. ইউনূসের মামলা পর্যবেক্ষণ করছে জাতিসংঘ Logo কাভার্ডভ্যান ও অটোরিকশার সংঘর্ষে ছাত্র নিহত, আহত ৩ Logo রাজশাহীতে যুবলীগ কর্মীকে কুপিয়ে হত্যার ঘটনায় গ্রেপ্তার ৫ Logo এবার ঢাবি অধ্যাপক নাদিরের বিরুদ্ধে যৌন নিপীড়নের অভিযোগ  Logo সন্দ্বীপ থানার ওসির পিপিএম পদক লাভ Logo মালয়েশিয়ায় ১৩৪ বাংলাদেশি গ্রেফতার Logo শাবির ছাত্রীহলে ফিঙ্গারপ্রিন্ট স্থাপন, কমবে চুরি ও বহিরাগত প্রবেশ, বাড়বে নিরাপত্তা Logo গণতন্ত্র মঞ্চের কর্মসূচিতে হামলার নিন্দা ১২ দলীয় জোটের




সিলেট কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ে ছাত্রলীগের দুই গ্রুপে সংঘর্ষে ধাওয়া পালটা ধাওয়া

প্রতিনিধি, সিলেট
  • আপডেট সময় : ০৫:৩৬:৪৩ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ৬ জানুয়ারী ২০২৩ ৮৯ বার পড়া হয়েছে

সিলেট কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ে ছাত্রলীগের দুই গ্রুপের মধ্যে দফায় দফায় ধাওয়া-পাল্টাধাওয়া ও সংঘর্ষ চলছে। বিকেল সাড়ে ৪টায় এ প্রতিবেদন লেখা পর্যন্ত শাহ এএমএস কিবরিয়া হলে ভাঙচুরের ঘটনা ঘটেছিল।

 

শুক্রবার (৬ জানুয়ারি) দুপুর আড়াইটার দিকে বিশ্ববিদ্যালয়ে ছাত্রলীগের কর্মিসভা অনুষ্ঠানকে কেন্দ্র করে শাখা ছাত্রলীগের সভাপতি আশিকুর রহমান, সাধারণ সম্পাদক এমাদুল হোসাইন গ্রুপ এবং সহ-সভাপতি শরীফ হোসাইন ও সাব্বির মোল্লা গ্রুপের মধ্যে এ সংঘর্ষ হচ্ছে।

 

বিশ্ববিদ্যালয় সূত্র জানায়, সিলেট কৃষি বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের সভাপতি আশিকুর রহমান ও সাধারণ সম্পাদক এমাদুল হোসাইন বৃহস্পতিবার (৫ জানুয়ারি) এক বিজ্ঞপ্তিতে জানান, শুক্রবার দুপুর আড়াইটায় বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় অডিটোরিয়ামে কৃষি অর্থনীতি ও ব্যবসায় শিক্ষা অনুষদের ছাত্রলীগের কর্মিসভা হবে। দুপুর আড়াইটায় কর্মিসভা শুরুর আগে বাধা দেয় সহ-সভাপতি শরীফ হোসাইন, সাব্বির মোল্লা, সাংগঠনিক সম্পাদক আরমান হোসাইন, আকাশ ভূইয়া ও প্রান্ত ইসলামের নেতৃত্ব একটি দল।

 

এতে দুই গ্রুপে সংঘর্ষ বেধে যায়। এসময় বিশ্ববিদ্যালয়ের পাঁচটি আবাসিক হলে থেকে দুই গ্রুপের নেতাকর্মীরা পরস্পরকে লক্ষ্য করে ইটপাটকেল নিক্ষেপ করতে থাকেন। এতে উভয় গ্রুপের পাঁচজন আহত হন।

একপর্যায়ে সহ-সভাপতি সাব্বির মোল্লা ও তার অনুসারী জুনায়েদ আহমেদ হযরত শাহপরাণ (রহ.) হলে ঢুকে সভাপতি আশিকুর রহমানের পক্ষের কর্মীদের কয়েকটি কক্ষ ভাঙচুর করেন।

 

খবর পেয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনার চেষ্টা করছে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন। পাশাপাশি সিলেট মহানগর পুলিশের একটি দল বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রধান ফটকে অবস্থান নিয়েছে।

 

এ বিষয়ে বক্তব্য জানতে সংঘর্ষে লিপ্ত দুই গ্রুপের নেতাদের মোবাইলে কল দিলে তারা রিসিভ করেননি।

বিকেল পৌনে ৫টার দিকে প্রক্টর ড. মনিরুল ইসলাম সোহাগ সাংবাদিকদের বলেন, প্রক্টরিয়াল বডি এবং শিক্ষকরা ঘটনাস্থলে পৌঁছে পরিস্থিতি শান্ত করেছি। এখন শুধু কিবরিয়া হলে কিছু ঝামেলা চলছে। অল্প কিছুক্ষণের মধ্যে আমরা এই হলের পরিস্থিতিও শান্ত করে ফেলবো।

তিনি আরও বলেন, প্রয়োজন পড়েনি বলে আমরা ক্যাম্পাসে পুলিশকে ডাকিনি।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

ট্যাগস :




সিলেট কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ে ছাত্রলীগের দুই গ্রুপে সংঘর্ষে ধাওয়া পালটা ধাওয়া

আপডেট সময় : ০৫:৩৬:৪৩ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ৬ জানুয়ারী ২০২৩

সিলেট কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ে ছাত্রলীগের দুই গ্রুপের মধ্যে দফায় দফায় ধাওয়া-পাল্টাধাওয়া ও সংঘর্ষ চলছে। বিকেল সাড়ে ৪টায় এ প্রতিবেদন লেখা পর্যন্ত শাহ এএমএস কিবরিয়া হলে ভাঙচুরের ঘটনা ঘটেছিল।

 

শুক্রবার (৬ জানুয়ারি) দুপুর আড়াইটার দিকে বিশ্ববিদ্যালয়ে ছাত্রলীগের কর্মিসভা অনুষ্ঠানকে কেন্দ্র করে শাখা ছাত্রলীগের সভাপতি আশিকুর রহমান, সাধারণ সম্পাদক এমাদুল হোসাইন গ্রুপ এবং সহ-সভাপতি শরীফ হোসাইন ও সাব্বির মোল্লা গ্রুপের মধ্যে এ সংঘর্ষ হচ্ছে।

 

বিশ্ববিদ্যালয় সূত্র জানায়, সিলেট কৃষি বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের সভাপতি আশিকুর রহমান ও সাধারণ সম্পাদক এমাদুল হোসাইন বৃহস্পতিবার (৫ জানুয়ারি) এক বিজ্ঞপ্তিতে জানান, শুক্রবার দুপুর আড়াইটায় বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় অডিটোরিয়ামে কৃষি অর্থনীতি ও ব্যবসায় শিক্ষা অনুষদের ছাত্রলীগের কর্মিসভা হবে। দুপুর আড়াইটায় কর্মিসভা শুরুর আগে বাধা দেয় সহ-সভাপতি শরীফ হোসাইন, সাব্বির মোল্লা, সাংগঠনিক সম্পাদক আরমান হোসাইন, আকাশ ভূইয়া ও প্রান্ত ইসলামের নেতৃত্ব একটি দল।

 

এতে দুই গ্রুপে সংঘর্ষ বেধে যায়। এসময় বিশ্ববিদ্যালয়ের পাঁচটি আবাসিক হলে থেকে দুই গ্রুপের নেতাকর্মীরা পরস্পরকে লক্ষ্য করে ইটপাটকেল নিক্ষেপ করতে থাকেন। এতে উভয় গ্রুপের পাঁচজন আহত হন।

একপর্যায়ে সহ-সভাপতি সাব্বির মোল্লা ও তার অনুসারী জুনায়েদ আহমেদ হযরত শাহপরাণ (রহ.) হলে ঢুকে সভাপতি আশিকুর রহমানের পক্ষের কর্মীদের কয়েকটি কক্ষ ভাঙচুর করেন।

 

খবর পেয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনার চেষ্টা করছে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন। পাশাপাশি সিলেট মহানগর পুলিশের একটি দল বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রধান ফটকে অবস্থান নিয়েছে।

 

এ বিষয়ে বক্তব্য জানতে সংঘর্ষে লিপ্ত দুই গ্রুপের নেতাদের মোবাইলে কল দিলে তারা রিসিভ করেননি।

বিকেল পৌনে ৫টার দিকে প্রক্টর ড. মনিরুল ইসলাম সোহাগ সাংবাদিকদের বলেন, প্রক্টরিয়াল বডি এবং শিক্ষকরা ঘটনাস্থলে পৌঁছে পরিস্থিতি শান্ত করেছি। এখন শুধু কিবরিয়া হলে কিছু ঝামেলা চলছে। অল্প কিছুক্ষণের মধ্যে আমরা এই হলের পরিস্থিতিও শান্ত করে ফেলবো।

তিনি আরও বলেন, প্রয়োজন পড়েনি বলে আমরা ক্যাম্পাসে পুলিশকে ডাকিনি।