ঢাকা ১০:৪৬ অপরাহ্ন, শনিবার, ২৬ নভেম্বর ২০২২, ১২ অগ্রহায়ণ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম :




গান ছেড়ে পীরের মুরিদ আরফিন রুমি

প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ০৮:২০:১১ অপরাহ্ন, বুধবার, ৩০ জুন ২০২১ ৯ বার পড়া হয়েছে

বিনোদন প্রতিবেদন: বাংলাদেশের অত্যন্ত জনপ্রিয় শিল্পী ও সংগীত পরিচালকদের মধ্যে আরফিন রুমি অন্যতম। অর্ধযুগেরও বেশি সময় ধরে তিনি মিডিয়ায় বাণিজ্যিক কিংবা বৃহৎ আকারের কোনো কাজের সঙ্গে যুক্ত নেই।

অনেকে মনে করেছিলেন তিনি হারিয়ে যাবেন। কিন্তু না, সোশ্যাল মিডিয়া থেকে শুরু করে সব জায়গায় রুমির জয়জয়কার অব্যাহত। ভক্তরা এখনও উৎসাহ জোগান এই সংগীত প্রতিভাকে। তাদের মাঝেও একই প্রশ্ন— রুমি কবে আবার গানে ফিরবেন?

অন্যদিকে সাংবাদিকরা রুমির সঙ্গে যোগাযোগ করতে চাইলে তিনি কোনোভাবেই ধরা দেন না। নানা বাহানায় তাদের এড়িয়ে চলেন। এ ব্যাপারে রুমির সঙ্গে বিভিন্ন গণমাধ্যম নানা সময়ে যে কথাগুলো বলেছেন, সে একই কথা ঘুরেফিরেই বলেছেন বছরের পর বছর। তার চিন্তা নতুনরা এগিয়ে যাক, ভালো কাজ করুক। গান নিয়ে তার অনেক প্রাপ্তি হয়েছে জীবনে, তাই গান নিয়ে উচ্চাভিলাষী কোনো পরিকল্পনা নেই এ শিল্পীর।

তবে তার একাধিক ঘনিষ্ঠজনের সঙ্গে কথা বলে জানা গেল, তিনি আসলে একজন পীরের মুরিদ হয়েছেন এবং সেই পীরের হাত ধরে ধর্মীয় শিক্ষা নেওয়ার জন্যই গানের জগত থেকে এই বিরতি। কারণ যখন কেউ একজন শিক্ষকের মাধ্যমে ইসলামি শিক্ষায় শিক্ষিত হতে চায়, তখন অন্য কিছু করার সুযোগ থাকে না।

অন্যদিকে তার ঘনিষ্ঠ একটি সূত্র আরও জানায়, রুমি এখন নতুন করে গানে ফেরার অনুমতি পেয়েছেন তার মায়ের কাছে থেকে। সংগীতাঙ্গনের সবাই জানেন রুমি মা ভক্ত ছেলে। মায়ের নির্দেশের বাইরে কখনই যান না তিনি। রুমির দ্বিতীয় বিবাহের পর অশান্তি শুরু হয়। প্রথম স্ত্রী অনন্যার করা মামলায় কারণে সেই সময় রুমি প্রায় বিপর্যস্ত হয়ে পড়েছিলেন। বিপর্যস্ত রুমিকে রক্ষা করার জন্য তার মা পরামর্শ দেন একজন সঠিক পীরের কাছ থেকে হাতেখড়ি নিয়ে ধর্মীয় শিক্ষায় মনোনিবেশ করতে। সেই হিসাবে রুমি ধর্মীয় শিক্ষায় অনেকাংশে পাকাপোক্ত হয়ে এখন মানসিকভাবে ভালো আছেন। সে কারণে রুমি তার মায়ের প্রতি সবসময়ের মতোই কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেছেন। রুমির মায়ের পরিকল্পনা, রুমি যেন আবার নতুন করে গানে ফেরেন বাণিজ্যিকভাবে।

উল্লেখ্য, গত কয়েক বছরে নিজের লেখা ও সুর করা কিছু গান নিজস্ব চ্যানেলে প্রকাশ করেছেন রুমি।

এ প্রসঙ্গে রুমি বলেছেন, আমি আসলে অবসর সময়টায় ব্যস্ত থাকার জন্য গানগুলো প্রকাশ করেছি। আমি আমার ইউটিউব চ্যানেলটি নিয়ে কখনই সিরিয়াস ছিলাম না, এখনও নেই।

তবে এই শিল্পীর গানে ফেরার পরিকল্পনায় বাঁধ সেঁধেছে করোনাভাইরাস। পরিস্থিতির উন্নতি হলে নতুন গান নিয়ে শ্রোতাদের সামনে হাজির হওয়ার মনোবাসনা পোষণ করছেন আরফিন রুমি। শেষ পর্যন্ত গানে ফিরবেন কি রুমি, নাকি আগের মতই সময়ক্ষেপণ করবেন- এটি নিয়েই উদ্বিগ্ন রুমির ভক্তরা। সংগীতাঙ্গনের অনেকের প্রত্যাশা, এই সংগীত তারকা যেন দ্রুতই স্বমহিমায় গানের জগতে ফিরে আসেন।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

ট্যাগস :




error: Content is protected !!

গান ছেড়ে পীরের মুরিদ আরফিন রুমি

আপডেট সময় : ০৮:২০:১১ অপরাহ্ন, বুধবার, ৩০ জুন ২০২১

বিনোদন প্রতিবেদন: বাংলাদেশের অত্যন্ত জনপ্রিয় শিল্পী ও সংগীত পরিচালকদের মধ্যে আরফিন রুমি অন্যতম। অর্ধযুগেরও বেশি সময় ধরে তিনি মিডিয়ায় বাণিজ্যিক কিংবা বৃহৎ আকারের কোনো কাজের সঙ্গে যুক্ত নেই।

অনেকে মনে করেছিলেন তিনি হারিয়ে যাবেন। কিন্তু না, সোশ্যাল মিডিয়া থেকে শুরু করে সব জায়গায় রুমির জয়জয়কার অব্যাহত। ভক্তরা এখনও উৎসাহ জোগান এই সংগীত প্রতিভাকে। তাদের মাঝেও একই প্রশ্ন— রুমি কবে আবার গানে ফিরবেন?

অন্যদিকে সাংবাদিকরা রুমির সঙ্গে যোগাযোগ করতে চাইলে তিনি কোনোভাবেই ধরা দেন না। নানা বাহানায় তাদের এড়িয়ে চলেন। এ ব্যাপারে রুমির সঙ্গে বিভিন্ন গণমাধ্যম নানা সময়ে যে কথাগুলো বলেছেন, সে একই কথা ঘুরেফিরেই বলেছেন বছরের পর বছর। তার চিন্তা নতুনরা এগিয়ে যাক, ভালো কাজ করুক। গান নিয়ে তার অনেক প্রাপ্তি হয়েছে জীবনে, তাই গান নিয়ে উচ্চাভিলাষী কোনো পরিকল্পনা নেই এ শিল্পীর।

তবে তার একাধিক ঘনিষ্ঠজনের সঙ্গে কথা বলে জানা গেল, তিনি আসলে একজন পীরের মুরিদ হয়েছেন এবং সেই পীরের হাত ধরে ধর্মীয় শিক্ষা নেওয়ার জন্যই গানের জগত থেকে এই বিরতি। কারণ যখন কেউ একজন শিক্ষকের মাধ্যমে ইসলামি শিক্ষায় শিক্ষিত হতে চায়, তখন অন্য কিছু করার সুযোগ থাকে না।

অন্যদিকে তার ঘনিষ্ঠ একটি সূত্র আরও জানায়, রুমি এখন নতুন করে গানে ফেরার অনুমতি পেয়েছেন তার মায়ের কাছে থেকে। সংগীতাঙ্গনের সবাই জানেন রুমি মা ভক্ত ছেলে। মায়ের নির্দেশের বাইরে কখনই যান না তিনি। রুমির দ্বিতীয় বিবাহের পর অশান্তি শুরু হয়। প্রথম স্ত্রী অনন্যার করা মামলায় কারণে সেই সময় রুমি প্রায় বিপর্যস্ত হয়ে পড়েছিলেন। বিপর্যস্ত রুমিকে রক্ষা করার জন্য তার মা পরামর্শ দেন একজন সঠিক পীরের কাছ থেকে হাতেখড়ি নিয়ে ধর্মীয় শিক্ষায় মনোনিবেশ করতে। সেই হিসাবে রুমি ধর্মীয় শিক্ষায় অনেকাংশে পাকাপোক্ত হয়ে এখন মানসিকভাবে ভালো আছেন। সে কারণে রুমি তার মায়ের প্রতি সবসময়ের মতোই কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেছেন। রুমির মায়ের পরিকল্পনা, রুমি যেন আবার নতুন করে গানে ফেরেন বাণিজ্যিকভাবে।

উল্লেখ্য, গত কয়েক বছরে নিজের লেখা ও সুর করা কিছু গান নিজস্ব চ্যানেলে প্রকাশ করেছেন রুমি।

এ প্রসঙ্গে রুমি বলেছেন, আমি আসলে অবসর সময়টায় ব্যস্ত থাকার জন্য গানগুলো প্রকাশ করেছি। আমি আমার ইউটিউব চ্যানেলটি নিয়ে কখনই সিরিয়াস ছিলাম না, এখনও নেই।

তবে এই শিল্পীর গানে ফেরার পরিকল্পনায় বাঁধ সেঁধেছে করোনাভাইরাস। পরিস্থিতির উন্নতি হলে নতুন গান নিয়ে শ্রোতাদের সামনে হাজির হওয়ার মনোবাসনা পোষণ করছেন আরফিন রুমি। শেষ পর্যন্ত গানে ফিরবেন কি রুমি, নাকি আগের মতই সময়ক্ষেপণ করবেন- এটি নিয়েই উদ্বিগ্ন রুমির ভক্তরা। সংগীতাঙ্গনের অনেকের প্রত্যাশা, এই সংগীত তারকা যেন দ্রুতই স্বমহিমায় গানের জগতে ফিরে আসেন।