• ১৩ই আগস্ট ২০২২ খ্রিস্টাব্দ , ২৯শে শ্রাবণ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

করোনার দুঃসময়ে জনগণের পাশে নেই সোনারগাঁয়ের জনপ্রতিনিধিরা!

সকালের সংবাদ ডেস্ক;
প্রকাশিত এপ্রিল ২৭, ২০২১, ০০:১৬ পূর্বাহ্ণ
করোনার দুঃসময়ে জনগণের পাশে নেই সোনারগাঁয়ের জনপ্রতিনিধিরা!

এস এম রাজু আহমেদ:  সেবা করার শপথ করে জনগণের কাছে ভোট প্রার্থনা করেন জনপ্রতিনিধি পদপ্রত্যাশীরা। কথা দেন সুখে-দুঃখে পাশে থাকবেন তাদের। নির্বাচিত না হতে পারলেও জনগণের সেবা করে যাবেন বলেও অনেকে প্রতিশ্রুতি দেন। কিন্তু বাস্তব চিত্র ভিন্ন। করোনাভাইরাসের কারণে অনির্দিষ্টকালের জন্য দেশের সব নির্বাচন স্থগিত হওয়ার পর এক রকম গা-ঢাকা দিয়েছেন সোনারগাঁ প্রতেকটি ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান ও পৌরসভার প্রথীরা প্রায় ১০টি ইউনিয়ন পরিষদ সহ ১টি পোরসভা নিয়ে সোনারগাঁ ইস্থায়ী জন প্রতিনিধি নির্বাচন, সাধারণ সদস্য ও সংরক্ষিত মহিলা সদস্য, কাউন্সিলর ও সংরক্ষিত মহিলা কাউন্সিল প্রার্থীরা।করোনার এ মহাদুর্যোগে তাদের দেখা পাচ্ছেন না জনগণ।

চলমান সর্বাত্মক লকডাউনে ইউনিয়নে সিংহভাগ নিম্ন আয়ের মানুষের রোজগার বন্ধ হয়ে গেছে। কাজ নেই, খাবার নেই, ঘরবন্দি সবাই। এতোসব নেই এর সুরাহা দিতে এখন আর কেউ জনগণের দরজায় কড়া নাড়ছেন না। চরম বিপাকে পড়া মানুষগুলো এখন জনপ্রতিনিধি পদ প্রত্যাশীদের দেখা না পেয়ে চরম ক্ষুব্ধ। এভাবে জনগণকে বিপদে রেখে নিজেদের প্রাণ ও অর্থ বাঁচাতে আত্মগোপনে থাকায় জনপ্রতিনিধি পদপ্রত্যাশীদের নিয়ে তীব্র ক্ষোভ ঝাড়ছেন জনগণ এবং ইউপি ও পৌরসভার নির্বাচনে প্রার্থীদের সমর্থকরাও। নির্বাচন বন্ধ হওয়ার আগ পর্যন্ত প্রচারণায় প্রার্থীরা লাখ লাখ টাকা পানির মতো খরচ করলেও এখনো পর্যন্ত সর্বাত্মক লকডাউনের ২য় সপ্তাহ পেরিয়ে গেলেও কোনো চেয়ারম্যান, মেম্বার, মেয়র, কাউন্সিলর,সংরক্ষিত মহিলা কাউন্সিলর, বা সংরক্ষিত সাধারণ সদস্য প্রার্থীরা জনগণের পাশে এসে এক ছটাক চাল নিয়ে দাঁড়িয়েছে এমন খবর শোনা যায়নি। এদিকে চলমান লকডউন সোমবার আরও এক সপ্তাহ বৃদ্ধি করার সমভাবনায় সকল ইউনিয়ন ও পৌরসভার সহ, সোনারগাঁও উপজেলার নিম্নআয়ের মানুষের কপালে চিন্তার ভাজ পড়েছে।

error: Content is protected !!