• ৬ই জুলাই ২০২২ খ্রিস্টাব্দ , ২২শে আষাঢ় ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

উপজেলা নির্বাচন পারফেক্ট হবে বলে মনে করি না : কাদের

সকালের সংবাদ ডেস্ক;
প্রকাশিত মার্চ ২, ২০১৯, ১৬:৩৯ অপরাহ্ণ
উপজেলা নির্বাচন পারফেক্ট হবে বলে মনে করি না : কাদের

নিজস্ব প্রতিবেদক :
উপজেলা নির্বাচন একেবারে পারফেক্ট হবে, এটা আমি মনে করি না- এ মন্তব্য করেছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের। শনিবার আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনার ধানমন্ডি রাজনৈতিক কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তিনি এ মন্তব্য করেন।

ওবায়দুল কাদের বলেন, পারফেক্ট বিষয়টি ভিন্ন বিষয়। কোনো বিষয়কে পারফেক্ট বলা ঠিক না, ভুলত্রুটি নিয়েই আমরা এগিয়ে যাই। আমাদের গণতন্ত্রকে পুরোপুরি প্রাতিষ্ঠানিক রূপ দেওয়ার আগে কিছু কিছু ভুলত্রুটি আমাদের অতিক্রম করতে হবে। এটা থাকবে এবং এটা নিয়ে এগোতে হবে।

তিনি বলেন, নির্বাচন করতে করতে এক সময় দেখা যাবে প্রাতিষ্ঠানিক গণতন্ত্র রূপ নিয়েছে। যে কারণে এ ধরনের ত্রুটি-বিচ্যুতির বিষয়গুলো ততটা কারও নজরে আসবে না।

ভোটার উপস্থিতি কম হওয়ার বিষয়ে এক প্রশ্নের জবাবে আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক বলেন, উপজেলা নির্বাচন হচ্ছে। যারা এসব অপবাদ দেন, তাদের সরেজমিন গিয়ে উপজেলা নির্বাচন দেখতে বলুন। তারপর তাদের ধারণা কত অমূলক, অলীক সেটা প্রমাণ পাবেন।

তিনি বলেন, সিটি উপ-নির্বাচনের দিন সারা দিন মেঘলা আকাশ থাকার কারণে ভোটার উপস্থিতি কম ছিল। তবে বিকেলে মেঘলা আকাশ না থাকায় ভোটার উপস্থিতি বেড়েছে। আকাশ মেঘলা, দুর্যোগপূর্ণ আবহাওয়ার কারণে যারা আসতে পারেননি, দুপুরের পর থেকে তারা আসতে শুরু করেন। এ সময় বিএনপির শাসনামলের সিটি কর্পোরেশন নির্বাচন প্রসঙ্গ তুলে ধরেন তিনি।

কাদের বলেন, সিটি নির্বাচন নিয়ে অনেকে অনেক কথা বলেন। সাংবাদিকদের মনে হয় মনে আছে, বিএনপিরও ভুলে যাওয়ার কথা নয়। ২০০১ সালে জাতীয় নির্বাচনের পরপরই সাদেক হোসেন খোকা মেয়র নির্বাচিত হয়েছিলেন বিনাপ্রতিদ্বন্দ্বিতায়, তখন তো কাউকে মনোনয়ন জমা দিতে দেওয়া হয়নি। এত বড় সিটি এখানে কিন্তু কেউই মনোনয়নপত্র দিতে পারেননি। এবার তো কোনো বাধা ছিল না। বিএনপি যদি চাইত, তারা মনোনয়নপত্র জমা দিতে পারত। জাতীয়, স্থানীয় সরকার কোনো নির্বাচনে আমরা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় কাউকে বাধা দিইনি। এখানেও কোনো বাধা ছিল?

জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের শীর্ষ নেতা ড. কামাল হোসেনের এক মন্তব্যের জবাবে ওবায়দুল কাদের বলেন, ধ্বংসের পথে তাদের বিধ্বংসী রাজনীতি। ছদ্মবেশী, বিধ্বংসী যে রাজনীতি তারা করে, সেই বিধ্বংসী রাজনীতি ধ্বংসের পথে আরেক ধাপ এগিয়ে। নির্বাচনের ইতিহাস বলে যারা বয়কট করবে, তাদের কিন্তু জনবিচ্ছিন্নতা, রাজনৈতিক ভাগ্য অনিবার্য হয়ে গেল।

তিনি বলেন, বিএনপিকেও এ কথা বলি, গত সাধারণ নির্বাচনে জনমতের হাওয়াটা তাদের অনুকূলে থাকত, তাহলে এর প্রভাবটা তাদের ফলে পড়ত। জনমত যেদিকে থাকে, নির্বাচনের ফল সেদিকেই টার্ন করবে, এটা নির্বাচনের ইতিহাস।

জাতীয় পার্টির বিষয়ে ওবায়দুল কাদের বলেন, জাতীয় পার্টি বিরোধী দল হিসেবে প্রতিদ্বন্দ্বিতার যে অঙ্গীকার করেছিল, সিটি নির্বাচনে সেটির কোনো প্রতিফলন ঘটেনি। বিরোধী দল যদি শক্তভাবে বিরোধিতা করত, তাহলে নির্বাচনটা আরও প্রতিদ্বন্দ্বিতা হতো। সংসদের ভেতরে ও বাইরের উভয় রাজনৈতিক দলকে আমরা শক্তিশালী দেখতে চাই।

এ সময় আওয়ামী লীগের দফতর সম্পাদক আবদুস সোবহান গোলাপ, সদস্য এস এম কামাল হোসেন প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

error: Content is protected !!