ঢাকা ০৮:৩১ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ১৭ এপ্রিল ২০২৪, ৪ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম :
Logo মঙ্গল শোভাযাত্রা – তাসফিয়া ফারহানা ঐশী Logo সাস্টিয়ান ব্রাহ্মণবাড়িয়া এর ইফতার মাহফিল সম্পন্ন Logo কুবির চট্টগ্রাম স্টুডেন্টস ওয়েলফেয়ার এসোসিয়েশনের ইফতার ও পূর্নমিলনী Logo অধ্যাপক জহীর উদ্দিন আহমেদের মায়ের মৃত্যুতে শাবির মহান মুক্তিযুদ্ধের চেতনা ও মুক্ত চিন্তা চর্চায় ঐক্যবদ্ধ শিক্ষকবৃন্দ পরিষদের শোক প্রকাশ Logo শাবির অধ্যাপক জহীর উদ্দিনের মায়ের মৃত্যুতে উপাচার্যের শোক প্রকাশ Logo বিশ কোটিতে গণপূর্তের প্রধান হওয়ার মিশনে ‘ছাত্রদল ক্যাডার প্রকৌশলী’! Logo দূর্নীতির রাক্ষস ফায়ার সার্ভিসের এডি আনোয়ার! Logo ঝড় ও শিলাবৃষ্টিতে ক্ষতি হওয়া শাহজালাল বিশ্ববিদ্যালয়ে অবকাঠামোর সংস্কার শুরু Logo বুয়েটে নিয়মতান্ত্রিক ছাত্র রাজনীতির দাবিতে শাবিপ্রবি ছাত্রলীগের মানববন্ধন Logo কুবি উপাচার্যের বক্তব্যের প্রমাণ দিতে শিক্ষক সমিতির সাত দিনের আল্টিমেটাম




কুমিল্লার মেঘনায় প্রবাসির জমি দখলের অভিযোগ

প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ০৫:৪৪:২২ অপরাহ্ন, রবিবার, ২০ ডিসেম্বর ২০২০ ৮৬ বার পড়া হয়েছে

কুমিল্লা প্রতিনিধি: কুমিল্লার মেঘনা উপজেলায়়় সৌদি প্রবাসী শেখ ফরিদের জমি জোরপূর্বক দখলের অভিযোগ উঠেছে। থানা পুলিশ সহ বিভিন্ন জায়গায় ধরনা ধরলেও সমস্যার সমাধান পাচ্ছেন না পরিবারটি।

মেঘনা উপজেলার বাগায়কান্দী গ্রামের প্রতৃক সম্পতি দখলের অভিযোগ উঠেছে স্থানীয় প্রভাবশালী এক ব্যক্তির উপর। প্রায় ১৫ বছর ধরে জমিটি দখল করে রেখেছে মেঘনা উপজেলার বাগায়কান্দী গ্রামের মৃত্য সোহবান এর ছেলে বাদরুল হাসান জুয়েল(৪০)। বাদরুল ইসলাম জুয়ের পেশায় একজন শিক্ষক। বর্তমানে তিনি ঢাকা রেসিডেন্সিয়াল মডেল কলেজের শিক্ষক।

এ ঘটনায় সৌদি প্রবাসী শেখ ফরিদ বিভিন্ন জায়গায় মামলা করেও কোন সুবিচার পায়নি। ভুক্তভোগী শেখ ফরিদ জানায়, আমি ২০০৭ সালে সৌদি আরব আসি এরপর ২০০৮ সালের দিকে আমার জমি দখল করে। এরপর আমি ২০১২ সালের দিকে দেশে ফেরত আসি এবং মামলা করি।

২০১২ সালে মেঘনা থানায় জিডি করি জিডি নং:৬৯৮। এরপর জোজ কোর্টে একটি মামলা করি যার মামলা নং:২৩৫। কোর্ট থেকে নোটিশ জারি করা হয় এবং জমি দখল ছেড়ে দিতে বলা হলেও জমির দখল না ছাড়ায় স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় উ ডি নাম্বার: ৭০০,বাংলাদেশ স্পেশাল বাঞ্চ জিডি নং:৬৯৯, দুদক অভিযোগ নং :৭০১ অভিযোগ দায়ের করি। কিন্তু যখন জমি দখলের জন্য গিয়েছি তখনই প্রাণনাশের হুমকি দিয়েছে। আমি একজন প্রবাসী হিসেবে সরকার এবং গণমাধ্যমের সহযোগিতা আশা করছি।

এ বিষয়ে দখলদার বাদরুল হাসান জুয়েলের মুঠো ফোনে যোগাযোগ করার চেষ্টা করা হলেও তার ফোন বন্ধ পাওয়া যায়।

এ বিষয়ে মেঘনা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আব্দুল মজিদ বলেন, প্রবাসির এই জমি দখলের ঘটনা আমি শুনেছি এবং ভুক্তভোগী পরিবারের কাছে আমার অফিসার পাঠিয়ে তদন্ত করছি। তদন্ত করে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

ট্যাগস :




কুমিল্লার মেঘনায় প্রবাসির জমি দখলের অভিযোগ

আপডেট সময় : ০৫:৪৪:২২ অপরাহ্ন, রবিবার, ২০ ডিসেম্বর ২০২০

কুমিল্লা প্রতিনিধি: কুমিল্লার মেঘনা উপজেলায়়় সৌদি প্রবাসী শেখ ফরিদের জমি জোরপূর্বক দখলের অভিযোগ উঠেছে। থানা পুলিশ সহ বিভিন্ন জায়গায় ধরনা ধরলেও সমস্যার সমাধান পাচ্ছেন না পরিবারটি।

মেঘনা উপজেলার বাগায়কান্দী গ্রামের প্রতৃক সম্পতি দখলের অভিযোগ উঠেছে স্থানীয় প্রভাবশালী এক ব্যক্তির উপর। প্রায় ১৫ বছর ধরে জমিটি দখল করে রেখেছে মেঘনা উপজেলার বাগায়কান্দী গ্রামের মৃত্য সোহবান এর ছেলে বাদরুল হাসান জুয়েল(৪০)। বাদরুল ইসলাম জুয়ের পেশায় একজন শিক্ষক। বর্তমানে তিনি ঢাকা রেসিডেন্সিয়াল মডেল কলেজের শিক্ষক।

এ ঘটনায় সৌদি প্রবাসী শেখ ফরিদ বিভিন্ন জায়গায় মামলা করেও কোন সুবিচার পায়নি। ভুক্তভোগী শেখ ফরিদ জানায়, আমি ২০০৭ সালে সৌদি আরব আসি এরপর ২০০৮ সালের দিকে আমার জমি দখল করে। এরপর আমি ২০১২ সালের দিকে দেশে ফেরত আসি এবং মামলা করি।

২০১২ সালে মেঘনা থানায় জিডি করি জিডি নং:৬৯৮। এরপর জোজ কোর্টে একটি মামলা করি যার মামলা নং:২৩৫। কোর্ট থেকে নোটিশ জারি করা হয় এবং জমি দখল ছেড়ে দিতে বলা হলেও জমির দখল না ছাড়ায় স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় উ ডি নাম্বার: ৭০০,বাংলাদেশ স্পেশাল বাঞ্চ জিডি নং:৬৯৯, দুদক অভিযোগ নং :৭০১ অভিযোগ দায়ের করি। কিন্তু যখন জমি দখলের জন্য গিয়েছি তখনই প্রাণনাশের হুমকি দিয়েছে। আমি একজন প্রবাসী হিসেবে সরকার এবং গণমাধ্যমের সহযোগিতা আশা করছি।

এ বিষয়ে দখলদার বাদরুল হাসান জুয়েলের মুঠো ফোনে যোগাযোগ করার চেষ্টা করা হলেও তার ফোন বন্ধ পাওয়া যায়।

এ বিষয়ে মেঘনা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আব্দুল মজিদ বলেন, প্রবাসির এই জমি দখলের ঘটনা আমি শুনেছি এবং ভুক্তভোগী পরিবারের কাছে আমার অফিসার পাঠিয়ে তদন্ত করছি। তদন্ত করে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে।