ঢাকা ০৪:২৭ পূর্বাহ্ন, রবিবার, ১৪ এপ্রিল ২০২৪, ৩০ চৈত্র ১৪৩০ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম :
Logo সাস্টিয়ান ব্রাহ্মণবাড়িয়া এর ইফতার মাহফিল সম্পন্ন Logo কুবির চট্টগ্রাম স্টুডেন্টস ওয়েলফেয়ার এসোসিয়েশনের ইফতার ও পূর্নমিলনী Logo অধ্যাপক জহীর উদ্দিন আহমেদের মায়ের মৃত্যুতে শাবির মহান মুক্তিযুদ্ধের চেতনা ও মুক্ত চিন্তা চর্চায় ঐক্যবদ্ধ শিক্ষকবৃন্দ পরিষদের শোক প্রকাশ Logo শাবির অধ্যাপক জহীর উদ্দিনের মায়ের মৃত্যুতে উপাচার্যের শোক প্রকাশ Logo বিশ কোটিতে গণপূর্তের প্রধান হওয়ার মিশনে ‘ছাত্রদল ক্যাডার প্রকৌশলী’! Logo দূর্নীতির রাক্ষস ফায়ার সার্ভিসের এডি আনোয়ার! Logo ঝড় ও শিলাবৃষ্টিতে ক্ষতি হওয়া শাহজালাল বিশ্ববিদ্যালয়ে অবকাঠামোর সংস্কার শুরু Logo বুয়েটে নিয়মতান্ত্রিক ছাত্র রাজনীতির দাবিতে শাবিপ্রবি ছাত্রলীগের মানববন্ধন Logo কুবি উপাচার্যের বক্তব্যের প্রমাণ দিতে শিক্ষক সমিতির সাত দিনের আল্টিমেটাম Logo কুবি বাংলা বিভাগের অ্যালামনাইদের ইফতার ও দোয়া মাহফিল




৯ বাংলাদেশি জেলেকে ধরে নিয়ে গেছে মিয়ানমার সীমান্তরক্ষী বাহিনী

প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ০৯:০১:৫৯ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ১১ নভেম্বর ২০২০ ৯৭ বার পড়া হয়েছে

নিজস্ব প্রতিবেদক;

কক্সবাজারের টেকনাফের নাফ নদীর মোহনা সংলগ্ন বঙ্গোপসাগর থেকে মাছ ধরার সময় বাংলাদেশি ৯ জেলেকে ট্রলারসহ ধরে নিয়ে গেছে মিয়ানমার সীমান্তরক্ষী বাহিনী (বিজিপি)।

কোস্টগার্ডের সেন্টমার্টিন স্টেশনের ইনচার্জ লেফটেন্যান্ট মো. আরিফুজ্জামান রনি ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

তিনি জানান, গতকাল ভোরের দিকে নাফ নদীর মোহনা সংলগ্ন বঙ্গোপসাগর থেকে এসব জেলেদের মিয়ানমারের বর্ডার গার্ড পুলিশ (বিজিপি) ধরে নিয়ে যায়। তবে ধরে নিয়ে যাওয়া জেলেদের নাম ও পরিচয় জানাতে পারেননি কোস্টগার্ডের এ কর্মকর্তা। তাদের বহনকারী এফবি ওসমান নামের ট্রলারটির মালিক টেকনাফের সাবরাং ইউনিয়নের শাহপরীরদ্বীপ এলাকার মোহাম্মদ কালাম ওরফে কালাম মাঝি।

তিনি বলেন, মঙ্গলবার ভোরে টেকনাফের নাফ নদীর মোহনা সংলগ্ন বঙ্গোপসাগরে কিছু জেলে নিষিদ্ধ কারেন্ট জাল দিয়ে মাছ ধরার খবরে কোস্টগার্ডের টহলরত সদস্যদের একটি দল অভিযান চালায়। এসময় সেখানে মাছ ধরার ২টি ট্রলারকে ধাওয়া দিলে এফবি আহমদ নামের একটি ট্রলার শাহপরীর দ্বীপ এলাকার দিকে এবং এফবি ওসমান অপর ট্রলারটি মিয়ানমারের জলসীমার দিকে পালিয়ে যায়। পরে জেনেছি, এফবি ওসমান নামের ট্রলারটিসহ ৯ জেলেকে মিয়ানমার সীমান্তরক্ষী বাহিনী বিজিপি ধরে নিয়ে গেছে। বিষয়টি বিজিবিসহ কোস্টগার্ডের উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে অবহিত করা হয়েছে।

এ ব্যাপারে বিজিবির টেকনাফ ২ ব্যাটালিয়ানের অধিনায়ক লেফটেন্যান্ট কর্নেল মোহাম্মদ ফয়সল হাসান খান বলেন, কোস্টগার্ডের কাছ থেকে বাংলাদেশি ৯ জেলেকে ধরে যাওয়ার খবরটি অবহিত হওয়ার পর মিয়ানমারের বিজিপির সঙ্গে যোগাযোগ করা হয়েছে। এসব জেলেদের ছাড়িয়ে আনতে বিজিবি চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

ট্যাগস :




৯ বাংলাদেশি জেলেকে ধরে নিয়ে গেছে মিয়ানমার সীমান্তরক্ষী বাহিনী

আপডেট সময় : ০৯:০১:৫৯ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ১১ নভেম্বর ২০২০

নিজস্ব প্রতিবেদক;

কক্সবাজারের টেকনাফের নাফ নদীর মোহনা সংলগ্ন বঙ্গোপসাগর থেকে মাছ ধরার সময় বাংলাদেশি ৯ জেলেকে ট্রলারসহ ধরে নিয়ে গেছে মিয়ানমার সীমান্তরক্ষী বাহিনী (বিজিপি)।

কোস্টগার্ডের সেন্টমার্টিন স্টেশনের ইনচার্জ লেফটেন্যান্ট মো. আরিফুজ্জামান রনি ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

তিনি জানান, গতকাল ভোরের দিকে নাফ নদীর মোহনা সংলগ্ন বঙ্গোপসাগর থেকে এসব জেলেদের মিয়ানমারের বর্ডার গার্ড পুলিশ (বিজিপি) ধরে নিয়ে যায়। তবে ধরে নিয়ে যাওয়া জেলেদের নাম ও পরিচয় জানাতে পারেননি কোস্টগার্ডের এ কর্মকর্তা। তাদের বহনকারী এফবি ওসমান নামের ট্রলারটির মালিক টেকনাফের সাবরাং ইউনিয়নের শাহপরীরদ্বীপ এলাকার মোহাম্মদ কালাম ওরফে কালাম মাঝি।

তিনি বলেন, মঙ্গলবার ভোরে টেকনাফের নাফ নদীর মোহনা সংলগ্ন বঙ্গোপসাগরে কিছু জেলে নিষিদ্ধ কারেন্ট জাল দিয়ে মাছ ধরার খবরে কোস্টগার্ডের টহলরত সদস্যদের একটি দল অভিযান চালায়। এসময় সেখানে মাছ ধরার ২টি ট্রলারকে ধাওয়া দিলে এফবি আহমদ নামের একটি ট্রলার শাহপরীর দ্বীপ এলাকার দিকে এবং এফবি ওসমান অপর ট্রলারটি মিয়ানমারের জলসীমার দিকে পালিয়ে যায়। পরে জেনেছি, এফবি ওসমান নামের ট্রলারটিসহ ৯ জেলেকে মিয়ানমার সীমান্তরক্ষী বাহিনী বিজিপি ধরে নিয়ে গেছে। বিষয়টি বিজিবিসহ কোস্টগার্ডের উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে অবহিত করা হয়েছে।

এ ব্যাপারে বিজিবির টেকনাফ ২ ব্যাটালিয়ানের অধিনায়ক লেফটেন্যান্ট কর্নেল মোহাম্মদ ফয়সল হাসান খান বলেন, কোস্টগার্ডের কাছ থেকে বাংলাদেশি ৯ জেলেকে ধরে যাওয়ার খবরটি অবহিত হওয়ার পর মিয়ানমারের বিজিপির সঙ্গে যোগাযোগ করা হয়েছে। এসব জেলেদের ছাড়িয়ে আনতে বিজিবি চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে।