• ১২ই আগস্ট ২০২২ খ্রিস্টাব্দ , ২৮শে শ্রাবণ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

র‌্যাবের বিরুদ্ধে ইউপি সদস্যকে অস্ত্র-গুলি দিয়ে ফাঁসানোর অভিযোগ

সকালের সংবাদ ডেস্ক;
প্রকাশিত নভেম্বর ৪, ২০২০, ০৮:৫৫ পূর্বাহ্ণ
র‌্যাবের বিরুদ্ধে ইউপি সদস্যকে অস্ত্র-গুলি দিয়ে ফাঁসানোর অভিযোগ

র‌্যাবের বিরুদ্ধে যশোরের শার্শা উপজেলার পুটখালি গ্রামের ইউপি সদস্য হাবিবুর রহমানকে অস্ত্র-গুলি দিয়ে ফাঁসানোর অভিযোগ উঠেছে।

মঙ্গলবার (৩ নভেম্বর) সন্ধ্যায় নিজ বাসভবনে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে এ অভিযোগ করেন হাবিবুর রহমানের স্ত্রী ফারহানা সুলতানা রিমা। সংবাদ সম্মেলনে তার পরিবারের লোকজন উপস্থিত ছিলেন।

লিখিত বক্তব্যে রিমা জানান, গত ২৯ অক্টোবর রাত ১১টায় দিকে র‌্যাব সদস্যরা তাদের যশোর শহরের খড়কি এলাকার বাসায় আসে। এরপর কোন কারণ ছাড়াই তার স্বামী ইউপি সদস্য হাবিবুর রহমানকে আটক করে নিয়ে যায়। পরবর্তীতে ওই রাতেই র‌্যাব সদস্যরা তাকে নিয়ে শার্শা উপজেলার পুটখালি গ্রামের বাড়িতে যায় এবং প্রধান গেটের তালা ভেঙ্গে বাড়িতে প্রবেশ করে। বাড়িতে ঢোকার আগে তারা বাড়ির সিসি ক্যামেরার তার কেটে ফেলে। বাড়ির বিভিন্ন স্থানে ভাঙচুর চালায়। এরপর ঘরের তালা ভেঙ্গে তল্লাশি করে কোন কিছু না পেয়ে চলে যায়। এসময় তারা হাবিবুরের বড় ভাইয়ের কাছ থেকে কোন মালামাল উদ্ধার নেই বলে সাদা কাগজে স্বাক্ষর নেই। কিছুক্ষণ পরে একটি বালতি নিয়ে ফিরে এসে জানায় অস্ত্র পাওয়া গেছে। র‌্যাবের দাবি তারা ৯টি পিস্তল ও ১৯টি ম্যাগজিন ও ৫০ রাউন্ড গুলি পেয়েছে। যা মিথ্যা ও ভিত্তিহীন। তাকে ফাঁসাতে র‌্যাব অস্ত্র উদ্ধারের নাটক সাজিয়েছে এবং খুলনা র‌্যাব কার্যালয়ে নিয়ে ব্রিফিং করেছে।

রিমার দাবি, তার স্বামীকে পরিকল্পিতভাবে ফাঁসানো হয়েছে। এজন্য তিনি তদন্ত সাপেক্ষে স্বামীর মুক্তির জন্য প্রধানমন্ত্রীর হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন।

error: Content is protected !!