অনলাইনে বিচারকাজ চালাতে অধ্যাদেশ জারি

সকালের সংবাদ ডেস্ক;সকালের সংবাদ ডেস্ক;
  প্রকাশিত হয়েছেঃ  ০৮:৫৮ পূর্বাহ্ণ, ১০ মে ২০২০

অনলাইন রিপোর্ট; আদালত কর্তৃক তথ্যপ্রযুক্তি ব্যবহার অধ্যাদেশ, ২০২০-এর খসড়া নীতিগত ও চূড়ান্ত অনুমোদন দিয়ে অধ্যাদেশ জারি করেছেন রাষ্ট্রপতি মোঃ আবদুল হামিদ। শনিবার (৯ মে) অধ্যাদেশ জারি গেজেট প্রকাশ করে আইন মন্ত্রণালয়।

এর আগে গত ৬ মে আদালত কর্তৃক তথ্যপ্রযুক্তি ব্যবহার অধ্যাদেশ, ২০২০-এর খসড়া নীতিগত ও চূড়ান্ত অনুমোদন দেয় প্রধানমন্ত্রীর নেতৃত্বে মন্ত্রিসভা।

শনিবার (৯ মে) রাতে রাষ্ট্রপতি আবদুল হামিদের অনুমতিক্রমে আইন বিচার ও সংসদ বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের লেসিজলেটিভ ও সংসদ বিষয়ক বিভাগের সংশ্লিষ্ট সচিব নরেন দাস স্বাক্ষরিত অধ্যাদেশে বলা হয়েছে, ‘মামলার বিচার, বিচারিক অনুসন্ধান বা দরখাস্ত বা আপিল শুনানি বা সাক্ষ্য গ্রহণ বা যুক্তিতর্ক গ্রহণ বা আদেশ বা রায় প্রদানকালে পক্ষের ভার্চুয়াল উপস্থিতি নিশ্চিত করার উদ্দেশ্যে আদালতকে তথ্য প্রযুক্তি ব্যবহারের ক্ষমতা দেওয়ার নিমিত্ত বিধান প্রণয়ন করা সমীচিন ও প্রয়োজনীয়।’

‘যেহেতু সংসদ অধিবেশনে নেই এবং রাষ্ট্রপতির কাছে এই প্রস্তাব সন্তোষজনক প্রতীয়মান হয়েছে যে, এ ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য প্রয়োজনীয় পরিস্থিতি বিদ্যমান রয়েছে। সেহেতু সংবিধানের অনুচ্ছেদ ৯৩ (১) এ প্রদত্ত ক্ষমতাবলে রাষ্ট্রপতি অধ্যাদেশ প্রণয়ন ও জারি করলেন।’

এই অধ্যাদেশ দ্রুত কার্যকর হবে। এর সঙ্গে ২ এর ঙ তে ভার্চুয়াল উপস্থিতি সম্পর্কে বলা হয়েছে। যেমন অডিও ভিডিও বা অনুরূপ কোনো ইলেক্ট্রনিক পদ্ধতির মাধ্যমে কোনো ব্যক্তির আদালতের বিচার বিভাগীয় কার্যধারায় উপস্থিত থাকা বা অংশগ্রহণ। ধারা তিন অনুযায়ী কোনো ব্যক্তির ভার্চুয়াল উপস্থিতি নিশ্চিত করা হলে ফৌজদারি কার্যবিধি বা দেওয়ানি কার্যবিধি অন্য কোনো আইনের অধীনে আদালত তার সশরীরে উপস্থিতি হয়েছে বলে গণ্য করবে।

আপনার মতামত লিখুন :