ঢাকা ০৫:১৩ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ০১ ডিসেম্বর ২০২২, ১৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম :




গৌরীপুরের শ্যামগঞ্জে এক ব্যক্তিকে কুপিয়ে হত্যা, গ্রেফতার ১

প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ০২:৩১:৫১ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২৪ জানুয়ারী ২০১৯ ১৯ বার পড়া হয়েছে

মজিবুর,ময়মনসিংহ :

ময়মনসিংহের গৌরীপুরে শ্যামগঞ্জে লেংটা পাগলার মাজারে স্থানীয় হারেছ উদ্দিনের বিরুদ্ধে শফিকুর রহমানকে কুপিয়ে হত্যার অভিযোগ ওঠেছে। মাজারে ওরস চলাকালীন মঙ্গলবার রাতে এ ঘটনা ঘটে।

নিহত শফিকুর এ উপজেলার মইলাকান্দার নওপাই গ্রামের জহুর উদ্দিনের ছেলে। ঘাতক হারেছ উদ্দিন একই গ্রামের সৈয়েদুর রহমানের ছেলে।

গৌরীপুর থানার ওসি (তদন্ত) গোলাম মাওলা বলেন, সোমবার থেকে লেংটা পাগলার মাজারে তিন দিনব্যাপি ওরসের দ্বিতীয় দিন মঙ্গলবার রাতে মাজারে বাউল গানের আসর চলছিলো।

এ সময় ওরসের তদারককারী শফিকুর আসরের এক কোনে বসে বাউল গান উপভোগ করছিলেন। রাত ৩ টার দিকে মদ্যপ হারেছ উদ্দিন রামদা দিয়ে এলোপাতাড়ি কুপিয়ে শফিকুরকে মারাত্মক জখম করে। পরে গুরুতর আহত শফিকুরকে ময়মনিসংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেয়ার সময় তার মৃত্যু ঘটে।

এদিকে মাজারে ওরসে উপস্থিত লোকজন ঘাতক হারেছ কে আটক করে গৌরীপুর থানা পুলিশের কাছে সোপর্দ করেছেন।

ওসি আরো বলেন, হত্যাকাণ্ডে ব্যবহৃত অস্ত্রসহ অভিযুক্ত হারেছ উদ্দিনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। এ ঘটনায় থানায় মামলা দায়ের করা হয়েছে।

ওইদিন রাতে হারেছ মাজার প্রাঙ্গনে তার মোবাইল সেট হারিয়ে ফেলে। মোবাইল সেট হারানোর বিষয়টি মাজারের কমিটির লোকজনকে জানালে বাউল গান শেষে তা উদ্ধার করে দেয়ার আশ্বাস দেন তারা।

ধারণা করা হচ্ছে মোবাইল উদ্ধার না হওয়ার ক্ষোভ থেকেই শফিকুরকে কুপিয়ে হত্যা করে হারেছ উদ্দিন।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

ট্যাগস :




গৌরীপুরের শ্যামগঞ্জে এক ব্যক্তিকে কুপিয়ে হত্যা, গ্রেফতার ১

আপডেট সময় : ০২:৩১:৫১ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২৪ জানুয়ারী ২০১৯

মজিবুর,ময়মনসিংহ :

ময়মনসিংহের গৌরীপুরে শ্যামগঞ্জে লেংটা পাগলার মাজারে স্থানীয় হারেছ উদ্দিনের বিরুদ্ধে শফিকুর রহমানকে কুপিয়ে হত্যার অভিযোগ ওঠেছে। মাজারে ওরস চলাকালীন মঙ্গলবার রাতে এ ঘটনা ঘটে।

নিহত শফিকুর এ উপজেলার মইলাকান্দার নওপাই গ্রামের জহুর উদ্দিনের ছেলে। ঘাতক হারেছ উদ্দিন একই গ্রামের সৈয়েদুর রহমানের ছেলে।

গৌরীপুর থানার ওসি (তদন্ত) গোলাম মাওলা বলেন, সোমবার থেকে লেংটা পাগলার মাজারে তিন দিনব্যাপি ওরসের দ্বিতীয় দিন মঙ্গলবার রাতে মাজারে বাউল গানের আসর চলছিলো।

এ সময় ওরসের তদারককারী শফিকুর আসরের এক কোনে বসে বাউল গান উপভোগ করছিলেন। রাত ৩ টার দিকে মদ্যপ হারেছ উদ্দিন রামদা দিয়ে এলোপাতাড়ি কুপিয়ে শফিকুরকে মারাত্মক জখম করে। পরে গুরুতর আহত শফিকুরকে ময়মনিসংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেয়ার সময় তার মৃত্যু ঘটে।

এদিকে মাজারে ওরসে উপস্থিত লোকজন ঘাতক হারেছ কে আটক করে গৌরীপুর থানা পুলিশের কাছে সোপর্দ করেছেন।

ওসি আরো বলেন, হত্যাকাণ্ডে ব্যবহৃত অস্ত্রসহ অভিযুক্ত হারেছ উদ্দিনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। এ ঘটনায় থানায় মামলা দায়ের করা হয়েছে।

ওইদিন রাতে হারেছ মাজার প্রাঙ্গনে তার মোবাইল সেট হারিয়ে ফেলে। মোবাইল সেট হারানোর বিষয়টি মাজারের কমিটির লোকজনকে জানালে বাউল গান শেষে তা উদ্ধার করে দেয়ার আশ্বাস দেন তারা।

ধারণা করা হচ্ছে মোবাইল উদ্ধার না হওয়ার ক্ষোভ থেকেই শফিকুরকে কুপিয়ে হত্যা করে হারেছ উদ্দিন।