ঢাকা ০৯:১৪ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ০১ ডিসেম্বর ২০২২, ১৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম :




যেসব দেশে ট্রেন চলে না

প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ০৬:০৭:২৮ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১৭ জানুয়ারী ২০১৯ ১৭ বার পড়া হয়েছে

 

অনলাইন ডেস্কঃ একুশ শতকে রেল ছাড়া পৃথিবীর কোনো দেশের পক্ষে টিকে থাকা কঠিন। এমনই মনে করেন বিশেষজ্ঞেরা। কিন্তু এখনো বিশ্বের বহু দেশে রেল লাইন নেই৷ দেখে নেওয়া যাক একনজরে।

কুয়েত

জলপথ এবং সড়কপথে যাতায়াতের দারুণ ব্যবস্থা থাকলেও কুয়েতে রেল যোগাযোগের কোনো ব্যবস্থা নেই।
ওমান

মরুভূমি শহর ওমানেও রেললাইনের কোনো চিহ্ন নেই, যদিও পৃথিবীর অনেক দেশেই মরুভূমির উপর দিয়ে রেললাইন বসানো হয়েছে।

ভুটান

হিমালয়ের কোলে ছোট্ট দেশ ভুটান। পাহাড় কেটে সেখানেও রেললাইন বসানো হয়নি। সমস্ত যোগাযোগের ব্যবস্থাই সড়ক পথে।

ইয়েমেন

ইয়েমেনেও ট্রেন চলে না। সেখানেও পরিবহণ ব্যবস্থা দাঁড়িয়ে আছে সড়কের ওপর নির্ভর করে।

লিবিয়া

আফ্রিকার শক্তিশালী দেশ লিবিয়াতেও ট্রেন চলে না। অদূর ভবিষ্যতে রেললাইন বসানোর কোনো পরিকল্পনাও তাদের নেই।

কাতার

কাতারেও এত বছরে রেল লাইন তৈরি হয়নি।

রুয়ান্ডা

গৃহ যুদ্ধে বিধ্বস্ত রুয়ান্ডায় অনেক কিছুই নতুন করে তৈরি করতে হয়েছে বর্তমান সরকারকে। তবে রেলপথ সেখানে আগে ছিল না, এখনো নেই।

আইসল্যান্ড

বরফঢাকা আইসল্যান্ডে পরিবহণ ব্যবস্থা খুবই উন্নত। কিন্তু সেখানেও রেলপথের কোনো চিহ্ন নেই।

পাপুয়া নিউ গিনি

পাপুয়া নিউ গিনি সমুদ্রের মাঝে ছোট্ট একটা দ্বীপ। এতই ছোট তার আয়তন যে রেলপথের প্রয়োজনও হয় না।

ম্যাকাও

দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ার আরো একটি ছোট দেশের নাম ম্যাকাও। সেখানেও রেলপথের কোনো ব্যবস্থা কোনোদিন ছিল না।

মাল্টা

ওপরে ইটালির সিসিলি এবং দক্ষিণে দক্ষিণে আফ্রিকার বালুচর। তারই মাঝখানে ছোট্ট দেশ মাল্টা। দ্বীপরাষ্ট্রটিতে রেললাইনের কোনো প্রয়োজনই হয় না।

হাইতি

ক্যারেবিয়ান এই দেশটিও আয়তনে নেহাতই ছোট। রেললাইনের প্রয়োজন হয়নি কখনো।

সোমালিয়া

পৃথিবীর দরিদ্রতম দেশগুলির অন্যতম সোমালিয়া। নিত্যদিন লেগে রয়েছে সমস্যা। সে দেশেও কোনোদিন রেললাইন তৈরি হয়নি।

সুরিনাম

দক্ষিণ অ্যামেরিকার উত্তর-পূর্ব কোণে অবস্থিত ছোট দেশ সুরিনাম। রেল চলে না সেখানে।

নাইজার

আফ্রিকার এই দেশটিও খুবই গরিব। রেলপথ বসানোর চেষ্টাও কখনো হয়নি সেখানে।

চাদ

মরুভূমির দেশ চাদ। একাধারে গরিবও। কখনো রেললাইন পাতা হয়নি সেই দেশে।

সাইপ্রাস

সাইপ্রাস পর্যটনের জন্য খুবই সমৃদ্ধ। তবে সেখানেও কোনোদিন রেল যোগাযোগের ব্যবস্থা হয়নি।

পূর্ব তিমুর

তিমুর দ্বীপের অর্ধেকটা জুড়ে তৈরি রাষ্ট্র পূর্ব তিমুর। আয়তনে এতই ছোট সেই দেশ যে, রেল যোগাযোগের কোনো প্রয়োজনই হয় না।

গিনি বিসাও

দক্ষিণ আফ্রিকার ছোট্ট একটি রাষ্ট্র গিনি বিসাও। সেখানেও কোনোদিন ট্রেন চলেনি।

মার্শাল আইল্যান্ড

প্রশান্ত মহাসাগরীয় দ্বীপপুঞ্জের ছোট্ট দেশ মার্শাল আইল্যান্ড। সেখানেও কোনোদিন রেলপথ তৈরি হয়নি। ট্রেনের প্রয়োজনও হয়নি।

মরিশাস

বিশ্বের পর্যটন মানচিত্রে অন্যতম মরিশাস। প্রতিবছর লক্ষ লক্ষ পর্যটক যান ওই দ্বীপপুঞ্জে৷ তবে দেশটির আয়তন এতই ছোট যে, কোনোদিন রেলপথ তৈরির প্রয়োজন পড়েনি সেখানে।

ত্রিনিদাদ অ্যান্ড টোব্যাগো

ক্যারেবিয়ান দ্বীপপুঞ্জের ত্রিনিদাদ অ্যান্ড টোব্যাগোতেও কোনোদিন রেল যোগাযোগ তৈরি হয়নি।

মাইক্রোনেশিয়া

দক্ষিণ প্রশান্ত মহাসাগরের ছোট্ট দ্বীপরাষ্ট্র মাইক্রোনেশিয়া। কোনোদিনই সেখানে রেলপথ তৈরি হয়নি।

সান মারিনো

ইতালির উত্তরে পাহাড়ঘেরা সান মারিনো একটি ছোট্ট দেশ। বাইক রেসিংয়ের জন্য বিখ্যাত সেই দেশে কোনোদিন রেলপথ তৈরি হয়নি।

সলোমন আইল্যান্ড

দক্ষিণ প্রশান্ত মহাসাগরে শতাধিক দ্বীপ নিয়ে তৈরি সলোমন আইল্যান্ড। দ্বীপরাষ্ট্রটিতে কখনো রেলপথ তৈরি করা সম্ভবই হয়নি জলের কারণে।

টোঙ্গা

আয়তনে একেবারেই ছোট প্রশান্ত মহাসাগরীয় দেশ টোঙ্গা। সেখানেও কোনোদিন রেলপথ তৈরি হয়নি।

তুবালু

দক্ষিণ প্রশান্তমহাসাগরের আরেক দ্বীপরাষ্ট্র তুবালু। স্বাভাবিক কারণেই সেখানে কোনোদিন রেলপথ তৈরি হয়নি।

বনুআতু

দক্ষিণ প্রশান্ত মহাসাগরের আরেক দেশ বনুআতু। আর সমস্ত প্রতিবেশীর মতো সেখানেও কোনোদিন রেলপথ তৈরি হয়নি।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

ট্যাগস :




যেসব দেশে ট্রেন চলে না

আপডেট সময় : ০৬:০৭:২৮ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১৭ জানুয়ারী ২০১৯

 

অনলাইন ডেস্কঃ একুশ শতকে রেল ছাড়া পৃথিবীর কোনো দেশের পক্ষে টিকে থাকা কঠিন। এমনই মনে করেন বিশেষজ্ঞেরা। কিন্তু এখনো বিশ্বের বহু দেশে রেল লাইন নেই৷ দেখে নেওয়া যাক একনজরে।

কুয়েত

জলপথ এবং সড়কপথে যাতায়াতের দারুণ ব্যবস্থা থাকলেও কুয়েতে রেল যোগাযোগের কোনো ব্যবস্থা নেই।
ওমান

মরুভূমি শহর ওমানেও রেললাইনের কোনো চিহ্ন নেই, যদিও পৃথিবীর অনেক দেশেই মরুভূমির উপর দিয়ে রেললাইন বসানো হয়েছে।

ভুটান

হিমালয়ের কোলে ছোট্ট দেশ ভুটান। পাহাড় কেটে সেখানেও রেললাইন বসানো হয়নি। সমস্ত যোগাযোগের ব্যবস্থাই সড়ক পথে।

ইয়েমেন

ইয়েমেনেও ট্রেন চলে না। সেখানেও পরিবহণ ব্যবস্থা দাঁড়িয়ে আছে সড়কের ওপর নির্ভর করে।

লিবিয়া

আফ্রিকার শক্তিশালী দেশ লিবিয়াতেও ট্রেন চলে না। অদূর ভবিষ্যতে রেললাইন বসানোর কোনো পরিকল্পনাও তাদের নেই।

কাতার

কাতারেও এত বছরে রেল লাইন তৈরি হয়নি।

রুয়ান্ডা

গৃহ যুদ্ধে বিধ্বস্ত রুয়ান্ডায় অনেক কিছুই নতুন করে তৈরি করতে হয়েছে বর্তমান সরকারকে। তবে রেলপথ সেখানে আগে ছিল না, এখনো নেই।

আইসল্যান্ড

বরফঢাকা আইসল্যান্ডে পরিবহণ ব্যবস্থা খুবই উন্নত। কিন্তু সেখানেও রেলপথের কোনো চিহ্ন নেই।

পাপুয়া নিউ গিনি

পাপুয়া নিউ গিনি সমুদ্রের মাঝে ছোট্ট একটা দ্বীপ। এতই ছোট তার আয়তন যে রেলপথের প্রয়োজনও হয় না।

ম্যাকাও

দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ার আরো একটি ছোট দেশের নাম ম্যাকাও। সেখানেও রেলপথের কোনো ব্যবস্থা কোনোদিন ছিল না।

মাল্টা

ওপরে ইটালির সিসিলি এবং দক্ষিণে দক্ষিণে আফ্রিকার বালুচর। তারই মাঝখানে ছোট্ট দেশ মাল্টা। দ্বীপরাষ্ট্রটিতে রেললাইনের কোনো প্রয়োজনই হয় না।

হাইতি

ক্যারেবিয়ান এই দেশটিও আয়তনে নেহাতই ছোট। রেললাইনের প্রয়োজন হয়নি কখনো।

সোমালিয়া

পৃথিবীর দরিদ্রতম দেশগুলির অন্যতম সোমালিয়া। নিত্যদিন লেগে রয়েছে সমস্যা। সে দেশেও কোনোদিন রেললাইন তৈরি হয়নি।

সুরিনাম

দক্ষিণ অ্যামেরিকার উত্তর-পূর্ব কোণে অবস্থিত ছোট দেশ সুরিনাম। রেল চলে না সেখানে।

নাইজার

আফ্রিকার এই দেশটিও খুবই গরিব। রেলপথ বসানোর চেষ্টাও কখনো হয়নি সেখানে।

চাদ

মরুভূমির দেশ চাদ। একাধারে গরিবও। কখনো রেললাইন পাতা হয়নি সেই দেশে।

সাইপ্রাস

সাইপ্রাস পর্যটনের জন্য খুবই সমৃদ্ধ। তবে সেখানেও কোনোদিন রেল যোগাযোগের ব্যবস্থা হয়নি।

পূর্ব তিমুর

তিমুর দ্বীপের অর্ধেকটা জুড়ে তৈরি রাষ্ট্র পূর্ব তিমুর। আয়তনে এতই ছোট সেই দেশ যে, রেল যোগাযোগের কোনো প্রয়োজনই হয় না।

গিনি বিসাও

দক্ষিণ আফ্রিকার ছোট্ট একটি রাষ্ট্র গিনি বিসাও। সেখানেও কোনোদিন ট্রেন চলেনি।

মার্শাল আইল্যান্ড

প্রশান্ত মহাসাগরীয় দ্বীপপুঞ্জের ছোট্ট দেশ মার্শাল আইল্যান্ড। সেখানেও কোনোদিন রেলপথ তৈরি হয়নি। ট্রেনের প্রয়োজনও হয়নি।

মরিশাস

বিশ্বের পর্যটন মানচিত্রে অন্যতম মরিশাস। প্রতিবছর লক্ষ লক্ষ পর্যটক যান ওই দ্বীপপুঞ্জে৷ তবে দেশটির আয়তন এতই ছোট যে, কোনোদিন রেলপথ তৈরির প্রয়োজন পড়েনি সেখানে।

ত্রিনিদাদ অ্যান্ড টোব্যাগো

ক্যারেবিয়ান দ্বীপপুঞ্জের ত্রিনিদাদ অ্যান্ড টোব্যাগোতেও কোনোদিন রেল যোগাযোগ তৈরি হয়নি।

মাইক্রোনেশিয়া

দক্ষিণ প্রশান্ত মহাসাগরের ছোট্ট দ্বীপরাষ্ট্র মাইক্রোনেশিয়া। কোনোদিনই সেখানে রেলপথ তৈরি হয়নি।

সান মারিনো

ইতালির উত্তরে পাহাড়ঘেরা সান মারিনো একটি ছোট্ট দেশ। বাইক রেসিংয়ের জন্য বিখ্যাত সেই দেশে কোনোদিন রেলপথ তৈরি হয়নি।

সলোমন আইল্যান্ড

দক্ষিণ প্রশান্ত মহাসাগরে শতাধিক দ্বীপ নিয়ে তৈরি সলোমন আইল্যান্ড। দ্বীপরাষ্ট্রটিতে কখনো রেলপথ তৈরি করা সম্ভবই হয়নি জলের কারণে।

টোঙ্গা

আয়তনে একেবারেই ছোট প্রশান্ত মহাসাগরীয় দেশ টোঙ্গা। সেখানেও কোনোদিন রেলপথ তৈরি হয়নি।

তুবালু

দক্ষিণ প্রশান্তমহাসাগরের আরেক দ্বীপরাষ্ট্র তুবালু। স্বাভাবিক কারণেই সেখানে কোনোদিন রেলপথ তৈরি হয়নি।

বনুআতু

দক্ষিণ প্রশান্ত মহাসাগরের আরেক দেশ বনুআতু। আর সমস্ত প্রতিবেশীর মতো সেখানেও কোনোদিন রেলপথ তৈরি হয়নি।