ঢাকা ১০:৫৫ অপরাহ্ন, শনিবার, ২৬ নভেম্বর ২০২২, ১২ অগ্রহায়ণ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম :




জাহাজ চলাচল বন্ধ, সেন্টমার্টিনে আটকা দেড় হাজার পর্যটক

প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ০৭:৫৮:৫৯ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ৮ নভেম্বর ২০১৯ ১১ বার পড়া হয়েছে

টেকনাফ(কক্সবাজার :

বঙ্গোপসাগরে সৃষ্ট ঘূর্ণিঝড় ‘বুলবুল’ এর কারণে সমুদ্র বন্দর ও উপকূলীয় এলাকায় চার নম্বর সতর্ক সংকেত দেখানো হয়েছে। এতে টেকনাফ-সেন্টমার্টিন নৌ-পথে পর্যটকবাহী জাহাজসহ নৌযান চলাচল বন্ধ রয়েছে। ফলে দ্বীপে আটকা পড়েছেন প্রায় দেড় হাজার পর্যটক। শুক্রবার থেকে পরবর্তী নির্দেশ না দেওয়া পর্যন্ত টেকনাফ থেকে সেন্টমার্টিন নৌ-পথে জাহাজ চলাচল বন্ধ রাখার নির্দেশ দিয়েছেন কক্সবাজারের অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (রাজস্ব) মোহাম্মদ আশরাফুল আফসার।

বৃহস্পতিবার মোহাম্মদ আশরাফুল আফসার স্বাক্ষরিত নোটিশে এ নির্দেশনা দেওয়া হয়। পরবর্তী নির্দেশ না দেওয়া পর্যন্ত এই সিদ্ধান্ত বলবৎ থাকবে। এ বিষয়ে জেলা প্রশাসনের কাছ থেকে একটি জরুরি বার্তা পেয়ে নবাগত টেকনাফ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মোহাম্মদ সাইফুল ইসলাম নিশ্চিত করে বলেন, টেকনাফ থেকে কোনো ধরনের পর্যটকবাহী জাহাজ, জলযান, মাছ ধরার নৌকা ও ট্রলারকে পরবর্তী নির্দেশ না দেওয়া পর্যন্ত সাবধানে থাকতে বলা হয়েছে।

তিনি আরও বলেন, বৈরী আবহাওয়ার কারণে সর্তকতার জন্য টেকনাফ-সেন্টমার্টিন নৌ-পথে জাহাজসহ জলযান চলাচল বন্ধ রাখা হয়েছে। দ্বীপে হাজারের অধিক পর্যটক আটকা পড়েছেন, তাদের খোঁজ খবর রাখা হচ্ছে। পরিস্থিতি ভালো হলে ফিরিয়ে আনার ব্যবস্থা নেওয়া হবে।
শুক্রবার (৮ নভেম্বর) সকাল থেকে টেকনাফ-সেন্টমার্টিন নৌ-পথে পর্যটকবাহী কোনো জাহাজ ছেড়ে যায়নি। এছাড়া কোনো নৌযান চলাচল করতে দেখা যায়নি। পরবর্তী নির্দেশ না দেওয়া পর্যন্ত তা বলবৎ থাকবে বলে জানায় সংশ্লিষ্টরা। ফলে দ্বীপ ভ্রমণে যাওয়া পর্যটকদের মাঝে উৎকণ্ঠা বিরাজ করছে। তবে আবহাওয়া পরিস্থিতি ভালো হলে আটকা পড়া পর্যটকদের ফিরিয়ে আনার ব্যবস্থা করা হবে।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

ট্যাগস :




error: Content is protected !!

জাহাজ চলাচল বন্ধ, সেন্টমার্টিনে আটকা দেড় হাজার পর্যটক

আপডেট সময় : ০৭:৫৮:৫৯ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ৮ নভেম্বর ২০১৯

টেকনাফ(কক্সবাজার :

বঙ্গোপসাগরে সৃষ্ট ঘূর্ণিঝড় ‘বুলবুল’ এর কারণে সমুদ্র বন্দর ও উপকূলীয় এলাকায় চার নম্বর সতর্ক সংকেত দেখানো হয়েছে। এতে টেকনাফ-সেন্টমার্টিন নৌ-পথে পর্যটকবাহী জাহাজসহ নৌযান চলাচল বন্ধ রয়েছে। ফলে দ্বীপে আটকা পড়েছেন প্রায় দেড় হাজার পর্যটক। শুক্রবার থেকে পরবর্তী নির্দেশ না দেওয়া পর্যন্ত টেকনাফ থেকে সেন্টমার্টিন নৌ-পথে জাহাজ চলাচল বন্ধ রাখার নির্দেশ দিয়েছেন কক্সবাজারের অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (রাজস্ব) মোহাম্মদ আশরাফুল আফসার।

বৃহস্পতিবার মোহাম্মদ আশরাফুল আফসার স্বাক্ষরিত নোটিশে এ নির্দেশনা দেওয়া হয়। পরবর্তী নির্দেশ না দেওয়া পর্যন্ত এই সিদ্ধান্ত বলবৎ থাকবে। এ বিষয়ে জেলা প্রশাসনের কাছ থেকে একটি জরুরি বার্তা পেয়ে নবাগত টেকনাফ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মোহাম্মদ সাইফুল ইসলাম নিশ্চিত করে বলেন, টেকনাফ থেকে কোনো ধরনের পর্যটকবাহী জাহাজ, জলযান, মাছ ধরার নৌকা ও ট্রলারকে পরবর্তী নির্দেশ না দেওয়া পর্যন্ত সাবধানে থাকতে বলা হয়েছে।

তিনি আরও বলেন, বৈরী আবহাওয়ার কারণে সর্তকতার জন্য টেকনাফ-সেন্টমার্টিন নৌ-পথে জাহাজসহ জলযান চলাচল বন্ধ রাখা হয়েছে। দ্বীপে হাজারের অধিক পর্যটক আটকা পড়েছেন, তাদের খোঁজ খবর রাখা হচ্ছে। পরিস্থিতি ভালো হলে ফিরিয়ে আনার ব্যবস্থা নেওয়া হবে।
শুক্রবার (৮ নভেম্বর) সকাল থেকে টেকনাফ-সেন্টমার্টিন নৌ-পথে পর্যটকবাহী কোনো জাহাজ ছেড়ে যায়নি। এছাড়া কোনো নৌযান চলাচল করতে দেখা যায়নি। পরবর্তী নির্দেশ না দেওয়া পর্যন্ত তা বলবৎ থাকবে বলে জানায় সংশ্লিষ্টরা। ফলে দ্বীপ ভ্রমণে যাওয়া পর্যটকদের মাঝে উৎকণ্ঠা বিরাজ করছে। তবে আবহাওয়া পরিস্থিতি ভালো হলে আটকা পড়া পর্যটকদের ফিরিয়ে আনার ব্যবস্থা করা হবে।