• ২২শে সেপ্টেম্বর ২০২১ খ্রিস্টাব্দ , ৭ই আশ্বিন ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

সীতাকুণ্ডে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ ৩ ‘ডাকাত’ নিহত

সকালের সংবাদ ডেস্ক;
প্রকাশিত অক্টোবর ২৯, ২০১৯, ০৯:১৩ পূর্বাহ্ণ

সীতাকুণ্ড প্রতিনিধি,
চট্টগ্রামের সীতাকুণ্ড উপজেলায় র‌্যাবের সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ আন্তঃজেলা ডাকাত দলের তিন সদস্য নিহত হয়েছেন।
সোমবার দিনগত রাত সাড়ে তিনটার দিকে ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের কুমিরা এলাকায় এ বন্দুকযুদ্ধের ঘটনা ঘটে।
তাৎক্ষণিকভাবে নিহত তিন ডাকাতের পরিচয় জানা যায়নি।

র‌্যাবের দাবি ঘটনাস্থল থেকে একটি বিদেশি পিস্তল, ১২ রাউন্ড গুলি ও বিপুল পরিমাণ দেশীয় অস্ত্র উদ্ধার করা হয়েছে।
জানা যায়, সোমবার দিনগত রাত সাড়ে তিনটার দিকে র‌্যাবের টহল দলের সঙ্গে আন্তঃজেলা ডাকাত দলের গুলি বিনিময় হয়। পরে ডাকাতরা পালিয়ে গেলে ঘটনাস্থল থেকে তিনজনের মরদেহ উদ্ধার করা হয়।

প্রসঙ্গত, এর আগে গেল তিন জুন দিনগত রাত সাড়ে ১২ টার দিকে সীতাকুণ্ডের কুমিরা বাইপাসের কাজীপাড়া এলাকার ছোট কুমিরা সেতুর ওপর ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কে র‌্যাবের সঙ্গে কথিত বন্দুকযুদ্ধে দুজন নিহত হয়েছিলেন। নিহত দুজনের মধ্যে একজনের বয়স ২২ থেকে ২৩ বছর এবং অন্যজনের বয়স ৩৭ থেকে ৩৮ বছর। ঘটনাস্থল থেকে একটি বিদেশি পিস্তল, দুটি ওয়ান শুটারগান, ৩১টি গুলি ও বেশ কিছু ছুরি ও রামদা জব্দ করা হয়। র‌্যাবের দাবি, নিহত দুজন ঈদে ঘরমুখো মানুষের যানবাহনে ডাকাতি করছিল।

তবে আজকের আগে র‌্যাবের সঙ্গে কথিত বন্দুকযুদ্ধে নিহত হওয়ার সর্বশেষ ঘটনাটি ঘটেছে গেল ২৩ অক্টোবর। উপজেলার উত্তর বাঁশবাড়িয়া এলাকায় র‌্যাব-৭ এর টহল দলের সঙ্গে গুলি বিনিময়ে চাঞ্চল্যকর ডা. শাহ আলম হত্যাকাণ্ডের মূল হোতা ডাকাত দলের প্রধান নজির আহমেদ সুমন ওরফে কালু (২৬) নিহত হন। পরে ঘটনাস্থল থেকে একটি বিদেশি পিস্তল ও ২৭ রাউন্ড গুলি উদ্ধার করে র‌্যাব। এ নিয়ে চলতি বছরে ছয় ডাকাত র‌্যাবের সঙ্গে বন্দুকযুদ্ধে নিহত হয়েছেন।

সীতাকুণ্ড থানার এস আই রফিক আরটিভি অনলাইনকে বলেন, নিহত তিন ডাকাতের লাশ ময়নাতদন্তের জন্য চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

  • ফজর
  • যোহর
  • আছর
  • মাগরিব
  • এশা
  • সূর্যোদয়
  • ৪:৩৫
  • ১১:৫৫
  • ৪:১৫
  • ৬:০০
  • ৭:১৪
  • ৫:৪৬
error: সাইটের কোন তথ্য কপি করা নিষেধ!!