ঢাকা ১০:২৩ অপরাহ্ন, রবিবার, ১৬ জুন ২০২৪, ২ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ




আইনশৃঙ্খলা বাহিনীকে বৃদ্ধাঙ্গুলী দেখিয়ে আবারও অশ্লীল সানাই!

প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ০৩:১১:১৪ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ১৭ সেপ্টেম্বর ২০১৯ ১১৬ বার পড়া হয়েছে

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ

আবারও অশ্লীল লেখা ও অঙ্গের প্রদর্শনী নিয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে হাজির সানাই মাহবুব। এনিয়ে বিরক্ত সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমের কোটি ব্যবহারকারীরা। এতটাই বিরক্ত তারা যার রেশ সানাইয়ের ফেসবুক পোস্টে বিব্রত মানুষের কমেন্ট দেখে অনায়াসে বুঝা যাবে।

বিশেষ করে উঠতি বয়সের যুবসমাজ এসব দেখে পথহারা হয়ে যাবে এমন আশংকা ও  উৎকন্ঠায় সমাজের অভিভাবক মহল।

সানাই মাহবুব নামে বাংলায় তার ফেসবুক একাউন্ট, ইমু লাইভ সহ বিভিন্ন আইডি ও পেজ খুলে অশ্লীল কথা ও অঙ্গ প্রদর্শনী দেখিয়ে পোস্ট দিচ্ছেন তিনি যাতে বিব্রত হয়ে কুরুচিপূর্ণ কমেন্ট করছেন কিছু মানুষ। এছাড়াও তিনি নাকি অশ্লীলতাকে শিল্পেে রুপ দেবেন শীঘ্রই আর এজন্য একটি এপস বাজারে আনতে যাচ্ছেন তিনি সম্প্রতি কিছু অনলাইনের সংবাদের মাধ্যমের খবরে এমনটাই জানা  গেছে।

গত বছর এসব অশ।অশ্লীলতার জন্য  তাকে আইন শৃঙ্খলা বাহিনী গ্রেফতারও করেছিলেন পরে তিনি এসবের জন্য ক্ষমা চেয়ে আইন শৃঙ্খলা বাহিনীর    নিকটে মুসলেকা দিয়েছিলেন যে সকল অশ্লীল ভিডিও পোস্ট সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম থেকে    ডিলেইড করবেন এবং ভবিষ্যতে এসব করবেন না। অথচ তিনি আইনের প্রতি বৃদ্ধা আঙুল দেখিয়ে আবারও ফিরেছেন তার স্বরুপে অশ্লীলতা নিয়ে।
উল্লেখ্য, ইন্টারনেটে কুরুচিপূর্ণ অশ্লীল ভিডিও ছড়ানোর অভিযোগে বিতর্কিত মডেল-অভিনেত্রী সানাই মাহবুব সুপ্রভা কে আটক করে ডিএমপির সাইবার সিকিউরিটি অ্যান্ড ক্রাইম ইউনিটের সাইবার নিরাপত্তা ও অপরাধ দমন বিভাগে নিয়ে আসা হয়েছিলো।

সানাইয়ের বিরুদ্ধে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর অভিযোগ ছিলো, টিকটক ও ফেসবুক লাইভের মাধ্যমে খোলামেলা ও অসামাজিক কথাবার্তা বলে যুবসমাজকে অবক্ষয়ের দিকে ঠেলে দিচ্ছিলেন সানাই। তার পোস্ট ও বার্তাগুলো সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে খুব দ্রুত ছড়িয়ে পড়তো গ্রেপ্তারের পর পুলিশ কর্মকর্তা জানিয়েছিলেন, সোশ্যাল মিডিয়ায় সানাইয়ের কর্মকাণ্ড দীর্ঘদিন ধরে ডিএমপির সাইবার সিকিউরিটি অ্যান্ড ক্রাইম ইউনিটে নজরদারিতে থাকার কারনেই গত বছরে  তাকে গ্রেফতার করা হয়েছিল।

সানাইয়ের আবারও বেপরোয়া অশ্লীলতায় ফেরার ঘটনায় খুবই উদ্বিগ্ন অবিভাবক মহল। দ্রুতই তাকে আইনের আওতায় আনার দাবি জানিয়েছেন তারা সমাজের সর্বস্তরের অবিভাবকগন।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

ট্যাগস :




আইনশৃঙ্খলা বাহিনীকে বৃদ্ধাঙ্গুলী দেখিয়ে আবারও অশ্লীল সানাই!

আপডেট সময় : ০৩:১১:১৪ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ১৭ সেপ্টেম্বর ২০১৯

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ

আবারও অশ্লীল লেখা ও অঙ্গের প্রদর্শনী নিয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে হাজির সানাই মাহবুব। এনিয়ে বিরক্ত সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমের কোটি ব্যবহারকারীরা। এতটাই বিরক্ত তারা যার রেশ সানাইয়ের ফেসবুক পোস্টে বিব্রত মানুষের কমেন্ট দেখে অনায়াসে বুঝা যাবে।

বিশেষ করে উঠতি বয়সের যুবসমাজ এসব দেখে পথহারা হয়ে যাবে এমন আশংকা ও  উৎকন্ঠায় সমাজের অভিভাবক মহল।

সানাই মাহবুব নামে বাংলায় তার ফেসবুক একাউন্ট, ইমু লাইভ সহ বিভিন্ন আইডি ও পেজ খুলে অশ্লীল কথা ও অঙ্গ প্রদর্শনী দেখিয়ে পোস্ট দিচ্ছেন তিনি যাতে বিব্রত হয়ে কুরুচিপূর্ণ কমেন্ট করছেন কিছু মানুষ। এছাড়াও তিনি নাকি অশ্লীলতাকে শিল্পেে রুপ দেবেন শীঘ্রই আর এজন্য একটি এপস বাজারে আনতে যাচ্ছেন তিনি সম্প্রতি কিছু অনলাইনের সংবাদের মাধ্যমের খবরে এমনটাই জানা  গেছে।

গত বছর এসব অশ।অশ্লীলতার জন্য  তাকে আইন শৃঙ্খলা বাহিনী গ্রেফতারও করেছিলেন পরে তিনি এসবের জন্য ক্ষমা চেয়ে আইন শৃঙ্খলা বাহিনীর    নিকটে মুসলেকা দিয়েছিলেন যে সকল অশ্লীল ভিডিও পোস্ট সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম থেকে    ডিলেইড করবেন এবং ভবিষ্যতে এসব করবেন না। অথচ তিনি আইনের প্রতি বৃদ্ধা আঙুল দেখিয়ে আবারও ফিরেছেন তার স্বরুপে অশ্লীলতা নিয়ে।
উল্লেখ্য, ইন্টারনেটে কুরুচিপূর্ণ অশ্লীল ভিডিও ছড়ানোর অভিযোগে বিতর্কিত মডেল-অভিনেত্রী সানাই মাহবুব সুপ্রভা কে আটক করে ডিএমপির সাইবার সিকিউরিটি অ্যান্ড ক্রাইম ইউনিটের সাইবার নিরাপত্তা ও অপরাধ দমন বিভাগে নিয়ে আসা হয়েছিলো।

সানাইয়ের বিরুদ্ধে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর অভিযোগ ছিলো, টিকটক ও ফেসবুক লাইভের মাধ্যমে খোলামেলা ও অসামাজিক কথাবার্তা বলে যুবসমাজকে অবক্ষয়ের দিকে ঠেলে দিচ্ছিলেন সানাই। তার পোস্ট ও বার্তাগুলো সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে খুব দ্রুত ছড়িয়ে পড়তো গ্রেপ্তারের পর পুলিশ কর্মকর্তা জানিয়েছিলেন, সোশ্যাল মিডিয়ায় সানাইয়ের কর্মকাণ্ড দীর্ঘদিন ধরে ডিএমপির সাইবার সিকিউরিটি অ্যান্ড ক্রাইম ইউনিটে নজরদারিতে থাকার কারনেই গত বছরে  তাকে গ্রেফতার করা হয়েছিল।

সানাইয়ের আবারও বেপরোয়া অশ্লীলতায় ফেরার ঘটনায় খুবই উদ্বিগ্ন অবিভাবক মহল। দ্রুতই তাকে আইনের আওতায় আনার দাবি জানিয়েছেন তারা সমাজের সর্বস্তরের অবিভাবকগন।