• ১৫ই আগস্ট ২০২২ খ্রিস্টাব্দ , ৩১শে শ্রাবণ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

উপজেলা চেয়ারম্যানের হাত থেকে রেহাই পেতে চান নারী আইনজীবী

সকালের সংবাদ ডেস্ক;
প্রকাশিত সেপ্টেম্বর ১৪, ২০১৯, ১১:১০ পূর্বাহ্ণ
উপজেলা চেয়ারম্যানের হাত থেকে রেহাই পেতে চান নারী আইনজীবী

পটুয়াখালী প্রতিনিধিঃ  পটুয়াখালীর গলাচিপা উপজেলা চেয়ারম্যান শাহিন শাহের হাত থেকে রেহাই পেতে কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগের হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন প্রকাশ্যে নির্যাতনের শিকার নারী আইনজীবী উম্মে আসমা আঁখি ও তার শ্বশুর কলাগাছিয়া ইউপি চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সিনিয়র সহসভাপতি আলহাজ্ব দুলাল চৌধুরী।

শুক্রবার বিকাল ৫টার দিকে পটুয়াখালী প্রেসক্লাবে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে তারা এ আবেদন জানান।

সংবাদ সম্মেলনে উপজেলা চেয়ারম্যান কর্তৃক হামলার শিকার উম্মে আসমা আঁখি জানান, তুচ্ছ ঘটনার জেরে বৃহস্পতিবার দুপুরে তার শ্বশুরকে ফোনে অকথ্য ভাষায় গালমন্দ এবং হাত-পা ভেঙে দেয়ার হুমকি দেন শাহিন শাহ। এর কিছুক্ষণ পরে উপজেলা চত্বরে প্রকাশ্যে আঁখিকে চড়-থাপ্পড়, কিল, ঘুষি এবং লাথি মারেন তিনি।

এসময় উপস্থিত অন্তত দুই শতাধিক মানুষের সামনে আঁখিকে বিবস্ত্র ও মানহানি করার হুমকি দেয়া হয়। এসময় ভয়ে ভীত আঁখি বাসায় চলে আসেন।

সংবাদ সম্মেলনে আঁখি আরও দাবি করেন, উপজেলা চেয়ারম্যান শাহিন তাকে মারধোর করেই ক্ষান্ত হয়নি। মিথ্যা মামলায় জড়িয়ে জেল খাটানোর প্রয়াস চালিয়ে আসছে এবং তার পরিবার নিয়ে অপপ্রচার চালাচ্ছেন শাহিন।

সংবাদ সম্মেলনে আঁখির শ্বশুর ইউপি চেয়ারম্যান দুলাল চৌধুরী অভিযোগ করে বলেন, উপজেলা চেয়ারম্যানের শাহিনের অত্যাচারে উপজেলাবাসী অতিষ্ঠ হয়ে উঠেছে। দলীয় নেতাকর্মী ছাড়াও সাধারণ মানুষ তার ঔদ্ধত্যপূর্ণ আচরণের শিকার হয়।

উপজেলা নির্বাচনের রেষ ধরে তিনি দলীয় নেতাকর্মীদের সঙ্গে অসদাচরণ এবং প্রতিহিংসামূলক আচরণ করে আসছেন। এ ঘটনা স্থানীয় এমপি শাহজাদা সাজুকে বলেও কোনো প্রতিকার পায়নি। এ সময় দুলাল চৌধুরী ও তার পরিবার উপজেলা চেয়ারম্যান শাহিনের হয়রানী থেকে রেহাই পেতে কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগের হস্তক্ষেপ কামনা করেন।

error: Content is protected !!