ঢাকা ০৩:৩০ অপরাহ্ন, রবিবার, ২৭ নভেম্বর ২০২২, ১৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম :




মনে হয় দেশটা ছেড়ে চলে যাই : লাইভে ব্যারিস্টার সুমন

প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ০৮:৪৯:২৭ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১১ জুলাই ২০১৯ ৭ বার পড়া হয়েছে

নিজস্ব প্রতিবেদক;
ময়লার ভাগাড়, কালভার্ট, ব্রিজ, ট্রেন, স্কুল, কলেজ, মাদরাসাসহ সমাজের বিভিন্ন অসঙ্গতি ফেসবুক লাইভে তুলে ধরে আলোচনায় আসা সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী ব্যারিস্টার সৈয়দ সায়েদুল হক সুমন এবার ধর্ষণ প্রতিরোধে সামাজিক আন্দোলন, ধর্ষকদের সর্বোচ্চ শাস্তি মৃত্যুদণ্ডসহ নারীর সম্মান নিয়ে কথা বলেছেন।

আজ বৃহস্পতিবার (১১ জুলাই) বিকেলে প্রচ্যের অক্সফোর্ড খ্যাত ঢাকা বিশ্বাবদ্যালয়ের রাজু ভাস্কর্যের সামনে মানববন্ধনে অংশগ্রহণকারীদের সামনে থেকে ফেসবুকে লাইভ করেন তিনি। ব্যারিস্টার সুমন বলেন, ‘আপনারা দেখছেন, তারা একটি লজ্জাজনক ইস্যু নিয়ে দাঁড়িয়েছে। ২০ বছর বয়সী তরুণী থেকে শুরু করে ৭০ বছরের বৃদ্ধা পর্যন্ত ধর্ষিত হচ্ছে। জাতি হিসেবে মানুষ হিসেবে কতটা মানুষত্বহীন আর লজ্জার। এসব ধর্ষকদের প্রতি আমাদের সকলের ঘৃণা। যে সকল আইনজীবী তাদেরকে আইনি সহায়তা দেন বা যারা রাজনৈতিক বা অন্যান্য কারণে সহায়তা দেন তাদেরকেও ঘৃণা।’

সুমন বলেন, ‘সচেতন নাগরিক হিসেবে ঢাকা বিশ্ববিদ্যায়সহ বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী ও সচেতন নাগরিকরা এখানে দাঁড়িয়েছেন। সমাজের মধ্যে মানবিকতাবোধ উঠে গেছে।’

ব্যারিস্টার সুমন আক্ষেপ প্রকাশ করে বলেন, ‘সচেতন মানুষ হিসেবে, বাংলাদেশি হিসেবে সমাজের মানুষের মাঝে ছড়িয়ে দিতে চাই, মানুষ হিসেবে ধর্ষণের ঘটনায় আমরা কবে লজ্জা পাব? আর কত নষ্ট হলে আমরা বলব নষ্ট হয়ে গেছি।’

সায়েদুল হক সুমন বলেন, ‘ধর্ষিতা শিশুর বাবাও (সায়মার বাবা) যখন দুঃখ নিয়ে কথা বলেন, মনে হয় দেশটা ছেড়ে চলে যাই। তবে দেশটাকে ভালোবাসি আর মানুষকে ভালো লাগে তাই …।’

আলোচিত এই ব্যারিস্টার আরও বলেন, ‘উন্নয়ন নিয়ে এগিয়ে যাচ্ছে বাংলাদেশ। অথচ এখানে ছোট্ট ছোট্ট বাচ্চা মেয়েগুলো মনে করবে দেশের পুরুষ সমাজ ধর্ষক। তারা নারীদের সম্মান করতে জানে না।’

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

ট্যাগস :




error: Content is protected !!

মনে হয় দেশটা ছেড়ে চলে যাই : লাইভে ব্যারিস্টার সুমন

আপডেট সময় : ০৮:৪৯:২৭ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১১ জুলাই ২০১৯

নিজস্ব প্রতিবেদক;
ময়লার ভাগাড়, কালভার্ট, ব্রিজ, ট্রেন, স্কুল, কলেজ, মাদরাসাসহ সমাজের বিভিন্ন অসঙ্গতি ফেসবুক লাইভে তুলে ধরে আলোচনায় আসা সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী ব্যারিস্টার সৈয়দ সায়েদুল হক সুমন এবার ধর্ষণ প্রতিরোধে সামাজিক আন্দোলন, ধর্ষকদের সর্বোচ্চ শাস্তি মৃত্যুদণ্ডসহ নারীর সম্মান নিয়ে কথা বলেছেন।

আজ বৃহস্পতিবার (১১ জুলাই) বিকেলে প্রচ্যের অক্সফোর্ড খ্যাত ঢাকা বিশ্বাবদ্যালয়ের রাজু ভাস্কর্যের সামনে মানববন্ধনে অংশগ্রহণকারীদের সামনে থেকে ফেসবুকে লাইভ করেন তিনি। ব্যারিস্টার সুমন বলেন, ‘আপনারা দেখছেন, তারা একটি লজ্জাজনক ইস্যু নিয়ে দাঁড়িয়েছে। ২০ বছর বয়সী তরুণী থেকে শুরু করে ৭০ বছরের বৃদ্ধা পর্যন্ত ধর্ষিত হচ্ছে। জাতি হিসেবে মানুষ হিসেবে কতটা মানুষত্বহীন আর লজ্জার। এসব ধর্ষকদের প্রতি আমাদের সকলের ঘৃণা। যে সকল আইনজীবী তাদেরকে আইনি সহায়তা দেন বা যারা রাজনৈতিক বা অন্যান্য কারণে সহায়তা দেন তাদেরকেও ঘৃণা।’

সুমন বলেন, ‘সচেতন নাগরিক হিসেবে ঢাকা বিশ্ববিদ্যায়সহ বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী ও সচেতন নাগরিকরা এখানে দাঁড়িয়েছেন। সমাজের মধ্যে মানবিকতাবোধ উঠে গেছে।’

ব্যারিস্টার সুমন আক্ষেপ প্রকাশ করে বলেন, ‘সচেতন মানুষ হিসেবে, বাংলাদেশি হিসেবে সমাজের মানুষের মাঝে ছড়িয়ে দিতে চাই, মানুষ হিসেবে ধর্ষণের ঘটনায় আমরা কবে লজ্জা পাব? আর কত নষ্ট হলে আমরা বলব নষ্ট হয়ে গেছি।’

সায়েদুল হক সুমন বলেন, ‘ধর্ষিতা শিশুর বাবাও (সায়মার বাবা) যখন দুঃখ নিয়ে কথা বলেন, মনে হয় দেশটা ছেড়ে চলে যাই। তবে দেশটাকে ভালোবাসি আর মানুষকে ভালো লাগে তাই …।’

আলোচিত এই ব্যারিস্টার আরও বলেন, ‘উন্নয়ন নিয়ে এগিয়ে যাচ্ছে বাংলাদেশ। অথচ এখানে ছোট্ট ছোট্ট বাচ্চা মেয়েগুলো মনে করবে দেশের পুরুষ সমাজ ধর্ষক। তারা নারীদের সম্মান করতে জানে না।’