ঢাকা ০৫:৪৮ অপরাহ্ন, রবিবার, ০৫ ফেব্রুয়ারী ২০২৩, ২৩ মাঘ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম :
Logo চেয়ারম্যানের আহ্লাদে বেপরোয়া বিআইডব্লিউটিএ‘র কর্মচারি পান্না বিশ্বাস! Logo রাজউকে বদলী ও পদায়নে ভয়ংকর দুর্নীতি ফাঁস: নেপথ্য নায়ক প্রধান প্রকৌশলী  Logo কুবির শেখ হাসিনা হলের গ্যাস লিক, আতঙ্কে শিক্ষার্থীরা Logo ইন্টার্ন চিকিৎসকের হাত-পা ভেঙে দিলেন সহকর্মীরা Logo ঐতিহ্যবাহী শহীদ সোহরাওয়ার্দী কলেজে অফিসার্স কাউন্সিল নির্বাচন অনুষ্ঠিত  Logo একজন মমতাময়ী মায়ের উদাহরণ শাবির প্রাধ্যক্ষ জোবেদা কনক Logo বাংলা বিভাগের নতুন চেয়ারম্যান ড. শামসুজ্জামান মিলকী Logo মেট্রোপলিটন ইউনিভার্সিটি শিক্ষার্থীদের দক্ষ জনশক্তি ও উদ্যোক্তা তৈরীতে ভূমিকা রাখবেঃ ভাইস চ্যান্সেলর প্রফেসর ড. মোহাম্মদ জহিরুল হক  Logo কুবিতে প্রক্টরের সামনে সহকারী প্রক্টরকে মারতে তেড়ে গেলেন ২ নেতা Logo দুবাই ভিক্তিক প্রতারণার জাল বুনছেন এমএলএম প্রতারক আনজাম আরিফ!




সুষ্ঠু, বাধাহীন, অংশগ্রহণমূলক নির্বাচন চায় যুক্তরাষ্ট্র

প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ০১:৫০:০৭ অপরাহ্ন, শনিবার, ১৫ ডিসেম্বর ২০১৮ ৪৪ বার পড়া হয়েছে

 

 

বাংলাদেশের একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে ভোটারদের ইচ্ছাকে সম্মান জানাতে এবং বাধাহীন অংশগ্রহণ নিশ্চিত করতে সকল রাজনৈতিক দল ও বিচারিক কর্তৃপক্ষের প্রতি আহ্বান জানিয়েছে মার্কিন কংগ্রেস।

গত বৃহস্পতিবার কংগ্রেসের নিম্নকক্ষ প্রতিনিধি পরিষদে সর্বসম্মতভাবে এ বিষয়ক প্রস্তাবটি পাস হয়। যাতে বাংলাদেশে নিরপেক্ষ, সুষ্ঠু, স্পষ্ট ও নির্ভরযোগ্য নির্বাচনের আয়োজনে সরকারকে আহ্বান জানানো হয়।

প্রস্তাবটি উত্থাপন করা হয় কংগ্রেস সদস্য টেড ইয়োহো, এলিয়ট এনজেল, ব্র্যাড শেরমান, স্টিভ শাবট, জেরাল্ড কনোলি ও ড্যারেন সোটোর উদ্যোগে।

মার্কিন কংগ্রেসের নিম্নকক্ষ প্রতিনিধি পরিষদে পাস হওয়া এই প্রস্তাবে বাংলাদেশের নির্বাচন, মতপ্রকাশের স্বাধীনতা এবং রোহিঙ্গাদের বিষয়ে চারটি প্রসঙ্গ উঠে আসে।

প্রথম প্রস্তাবে বাংলাদেশে একটি অবাধ, সুষ্ঠু, স্বচ্ছ ও বিশ্বাসযোগ্য নির্বাচন আয়োজনে যুক্তরাষ্ট্রের অঙ্গীকার পুনর্ব্যক্ত করেছেন কংগ্রেস সদস্যরা।

দ্বিতীয় প্রস্তাবে বাংলাদেশের সরকারকে মতপ্রকাশের ও গণমাধ্যমের স্বাধীনতার প্রতি শ্রদ্ধা দেখাতে বলার পাশাপাশি শান্তিপূর্ণ নির্বাচনের স্বার্থে সংখ্যালঘুদের নিরাপত্তা এবং সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি নিশ্চিত করতে নির্বাচন কমিশনের অনুরোধে সরকারকে সাড়া দেওয়ার আহ্বান জানানো হয়।

তৃতীয় প্রস্তাবে নির্বিঘ্নে ভোটাধিকার নিশ্চিত করে ভোটারদের ইচ্ছাকে সম্মান জানাতে এবং নির্বিঘ্নে ভোটাধিকার নিশ্চিত করতে রাজনৈতিক নেতা ও বিচারিক কর্তৃপক্ষকে অনুরোধ করেছে যুক্তরাষ্ট্র। তাদের প্রত্যাশা আসন্ন একাদশ জাতীয় নির্বাচন নিরপেক্ষ ও অংশগ্রহণমূলক হবে।

শেষ প্রস্তাবটি আনা হয় রোহিঙ্গাদের বিষয়ে। মিয়ানমারের রাখাইন রাজ্যে রোহিঙ্গাদের ওপর দেশটির সেনাবাহিনীর মানবতাবিরোধী অপরাধ ও গণহত্যার কারণে সেখানকার সংখ্যালঘু মুসলমান সম্প্রদায়ের লোকজন বাংলাদেশে আশ্রয় নিয়েছে। মানবসৃষ্ট সবচেয়ে বড় মানবিক এই বিপর্যয়ের মতো জটিল পরিস্থিতিতে রোহিঙ্গাদের আশ্রয় দেয়ায় বাংলাদেশের প্রশংসা করেছেন মার্কিন কংগ্রেস সদস্যরা।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

ট্যাগস :




সুষ্ঠু, বাধাহীন, অংশগ্রহণমূলক নির্বাচন চায় যুক্তরাষ্ট্র

আপডেট সময় : ০১:৫০:০৭ অপরাহ্ন, শনিবার, ১৫ ডিসেম্বর ২০১৮

 

 

বাংলাদেশের একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে ভোটারদের ইচ্ছাকে সম্মান জানাতে এবং বাধাহীন অংশগ্রহণ নিশ্চিত করতে সকল রাজনৈতিক দল ও বিচারিক কর্তৃপক্ষের প্রতি আহ্বান জানিয়েছে মার্কিন কংগ্রেস।

গত বৃহস্পতিবার কংগ্রেসের নিম্নকক্ষ প্রতিনিধি পরিষদে সর্বসম্মতভাবে এ বিষয়ক প্রস্তাবটি পাস হয়। যাতে বাংলাদেশে নিরপেক্ষ, সুষ্ঠু, স্পষ্ট ও নির্ভরযোগ্য নির্বাচনের আয়োজনে সরকারকে আহ্বান জানানো হয়।

প্রস্তাবটি উত্থাপন করা হয় কংগ্রেস সদস্য টেড ইয়োহো, এলিয়ট এনজেল, ব্র্যাড শেরমান, স্টিভ শাবট, জেরাল্ড কনোলি ও ড্যারেন সোটোর উদ্যোগে।

মার্কিন কংগ্রেসের নিম্নকক্ষ প্রতিনিধি পরিষদে পাস হওয়া এই প্রস্তাবে বাংলাদেশের নির্বাচন, মতপ্রকাশের স্বাধীনতা এবং রোহিঙ্গাদের বিষয়ে চারটি প্রসঙ্গ উঠে আসে।

প্রথম প্রস্তাবে বাংলাদেশে একটি অবাধ, সুষ্ঠু, স্বচ্ছ ও বিশ্বাসযোগ্য নির্বাচন আয়োজনে যুক্তরাষ্ট্রের অঙ্গীকার পুনর্ব্যক্ত করেছেন কংগ্রেস সদস্যরা।

দ্বিতীয় প্রস্তাবে বাংলাদেশের সরকারকে মতপ্রকাশের ও গণমাধ্যমের স্বাধীনতার প্রতি শ্রদ্ধা দেখাতে বলার পাশাপাশি শান্তিপূর্ণ নির্বাচনের স্বার্থে সংখ্যালঘুদের নিরাপত্তা এবং সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি নিশ্চিত করতে নির্বাচন কমিশনের অনুরোধে সরকারকে সাড়া দেওয়ার আহ্বান জানানো হয়।

তৃতীয় প্রস্তাবে নির্বিঘ্নে ভোটাধিকার নিশ্চিত করে ভোটারদের ইচ্ছাকে সম্মান জানাতে এবং নির্বিঘ্নে ভোটাধিকার নিশ্চিত করতে রাজনৈতিক নেতা ও বিচারিক কর্তৃপক্ষকে অনুরোধ করেছে যুক্তরাষ্ট্র। তাদের প্রত্যাশা আসন্ন একাদশ জাতীয় নির্বাচন নিরপেক্ষ ও অংশগ্রহণমূলক হবে।

শেষ প্রস্তাবটি আনা হয় রোহিঙ্গাদের বিষয়ে। মিয়ানমারের রাখাইন রাজ্যে রোহিঙ্গাদের ওপর দেশটির সেনাবাহিনীর মানবতাবিরোধী অপরাধ ও গণহত্যার কারণে সেখানকার সংখ্যালঘু মুসলমান সম্প্রদায়ের লোকজন বাংলাদেশে আশ্রয় নিয়েছে। মানবসৃষ্ট সবচেয়ে বড় মানবিক এই বিপর্যয়ের মতো জটিল পরিস্থিতিতে রোহিঙ্গাদের আশ্রয় দেয়ায় বাংলাদেশের প্রশংসা করেছেন মার্কিন কংগ্রেস সদস্যরা।