ঢাকা ০১:৫৭ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ০৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৩, ২৫ মাঘ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম :
Logo মির্জাগঞ্জ এলজিইডি প্রকৌশলী আশিকুরের ঘুস-দুর্নীতি! Logo দ্রব্যমূল্যের ক্রমাগত ঊর্ধ্বগতি ; বিপাকে বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা Logo পরিবেশের জন্য ই-বর্জ্য হুমকি স্বরূপ ; তা উত্তরণের উপায় Logo বর্জ্য ব্যবস্থাপনায় বাংলাদেশ Logo ঐতিহ্যবাহী সোহরাওয়ার্দী কলেজ সাংবাদিক সমিতির কমিটি গঠন Logo চেয়ারম্যানের আহ্লাদে বেপরোয়া বিআইডব্লিউটিএ‘র কর্মচারি পান্না বিশ্বাস! Logo রাজউকে বদলী ও পদায়নে ভয়ংকর দুর্নীতি ফাঁস: নেপথ্য নায়ক প্রধান প্রকৌশলী  Logo কুবির শেখ হাসিনা হলের গ্যাস লিক, আতঙ্কে শিক্ষার্থীরা Logo ইন্টার্ন চিকিৎসকের হাত-পা ভেঙে দিলেন সহকর্মীরা Logo ঐতিহ্যবাহী শহীদ সোহরাওয়ার্দী কলেজে অফিসার্স কাউন্সিল নির্বাচন অনুষ্ঠিত 




সুন্দর চুল পেতে যে সাতটি কাজ করবেন

প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ০৫:৪৮:০৮ অপরাহ্ন, রবিবার, ২১ অক্টোবর ২০১৮ ৪৪ বার পড়া হয়েছে

নাগরিক ব্যস্ততায় নিজেকে দু’দণ্ড আয়নায় দেখারও ফুসরত মেলে না আমাদের। সেখানে আলাদা করে চুলের যত্ন নেয়ার সময়ই বা কোথায়! তাইতো চুলের সমস্যা লেগেই থাকে সারাবছর। কখনো খুশকি, কখনো রুক্ষ বিবর্ণ চুল কখনো আবার চুল উঠে যাওয়া, সমস্যার যেন শেষ নেই। তবে রোজ খানিকটা একটু করে নজর দিলে চুল সুন্দর হতে সময় নেবে না। চলুন জেনে নেই তেমনই সাতটি উপায়-

আরও পড়ুন: ঘুমানোর আগে যে কাজগুলো করবেন

চুল পাতলা হলে নিয়মিত ট্রিম করে নিন, তাতে চুল তুলনামূলক ঘন দেখাবে। তিন মাস অন্তর একবার ট্রিম করে নিলে চুল সুস্থ আর সুন্দর থাকবে।

নারিকেল তেল, অলিভ অয়েল, আমন্ড অয়েল বা সরষের তেল চুলের পক্ষে খুব ভালো কন্ডিশনার। বড়ো চামচের দু-তিন চামচ তেল গরম করে তারপর হালকা ঠান্ডা করে নিন। ঈষদুষ্ণ থাকতে থাকতেই তেলটা চুলের গোড়ায় এবং গোটা চুলে ভালো করে মেখে নিন। শাওয়ার ক্যাপ দিয়ে ঢেকে সারা রাত রেখে দিন। পরের দিন শ্যাম্পু করে নেবেন। চুল সুন্দর হতে বাধ্য!

যাদের চুল কোঁকড়া আর রুক্ষ, তারা প্রি-কন্ডিশনিং করলে দারুণ ভালো ফল পাবেন। বেশ খানিকটা কন্ডিশনার হাতে নিয়ে সারা চুলে ক্রিমের মতো মেখে নিন। পাঁচ-দশ মিনিট রাখুন, যাতে চুল কন্ডিশনারের আর্দ্রতা আর পুষ্টি শুষে নিতে পারে। তারপর শ্যাম্পু করুন।

যতটা সম্ভব চুল থেকে পানি ঝরিয়ে নিয়ে তারপর মোটা দাঁতের চিরুনি দিয়ে জট ছাড়িয়ে নিন। নিচের দিক থেকে আঁচড়াতে শুরু করুন, ধীরে ধীরে উপরদিকে উঠুন। প্রতিদিন শ্যাম্পু করলে চুলের উপরে স্বাভাবিক তেলের আস্তরণ নষ্ট হয়ে যায়। সপ্তাহে দু-তিনবারের বেশি শ্যাম্পু করবেন না। বেবি শ্যাম্পু ব্যবহার করলে চুল ভালো থাকবে।

নারিকেল তেল, কলা, মেয়োনিজ, ডিম, অলিভ অয়েল, অ্যালো ভেরা, মধু, টক দই দিয়ে বানিয়ে নিন রকমারি হেয়ার মাস্ক। প্রয়োজনীয় পুষ্টি পেলে চুল স্বাভাবিকভাবেই স্বাস্থ্যোজ্জ্বল হয়ে উঠবে।

আরও পড়ুন: যেভাবে যত্ন নিলে চুল দ্রুত লম্বা হয়’ চুল খোলা অবস্থায় শুলে বালিশের সঙ্গে সমানে ঘষা লেগে চুল উঠে যেতে পারে। এ ছাড়া চুলে জট পড়ে রুক্ষ ও অমসৃণও হয়ে যেতে পারে। তাই ঘুমাতে যাওয়ার আগে আলগা বিনুনিতে চুল বেঁধে রাখুন।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

ট্যাগস :




সুন্দর চুল পেতে যে সাতটি কাজ করবেন

আপডেট সময় : ০৫:৪৮:০৮ অপরাহ্ন, রবিবার, ২১ অক্টোবর ২০১৮

নাগরিক ব্যস্ততায় নিজেকে দু’দণ্ড আয়নায় দেখারও ফুসরত মেলে না আমাদের। সেখানে আলাদা করে চুলের যত্ন নেয়ার সময়ই বা কোথায়! তাইতো চুলের সমস্যা লেগেই থাকে সারাবছর। কখনো খুশকি, কখনো রুক্ষ বিবর্ণ চুল কখনো আবার চুল উঠে যাওয়া, সমস্যার যেন শেষ নেই। তবে রোজ খানিকটা একটু করে নজর দিলে চুল সুন্দর হতে সময় নেবে না। চলুন জেনে নেই তেমনই সাতটি উপায়-

আরও পড়ুন: ঘুমানোর আগে যে কাজগুলো করবেন

চুল পাতলা হলে নিয়মিত ট্রিম করে নিন, তাতে চুল তুলনামূলক ঘন দেখাবে। তিন মাস অন্তর একবার ট্রিম করে নিলে চুল সুস্থ আর সুন্দর থাকবে।

নারিকেল তেল, অলিভ অয়েল, আমন্ড অয়েল বা সরষের তেল চুলের পক্ষে খুব ভালো কন্ডিশনার। বড়ো চামচের দু-তিন চামচ তেল গরম করে তারপর হালকা ঠান্ডা করে নিন। ঈষদুষ্ণ থাকতে থাকতেই তেলটা চুলের গোড়ায় এবং গোটা চুলে ভালো করে মেখে নিন। শাওয়ার ক্যাপ দিয়ে ঢেকে সারা রাত রেখে দিন। পরের দিন শ্যাম্পু করে নেবেন। চুল সুন্দর হতে বাধ্য!

যাদের চুল কোঁকড়া আর রুক্ষ, তারা প্রি-কন্ডিশনিং করলে দারুণ ভালো ফল পাবেন। বেশ খানিকটা কন্ডিশনার হাতে নিয়ে সারা চুলে ক্রিমের মতো মেখে নিন। পাঁচ-দশ মিনিট রাখুন, যাতে চুল কন্ডিশনারের আর্দ্রতা আর পুষ্টি শুষে নিতে পারে। তারপর শ্যাম্পু করুন।

যতটা সম্ভব চুল থেকে পানি ঝরিয়ে নিয়ে তারপর মোটা দাঁতের চিরুনি দিয়ে জট ছাড়িয়ে নিন। নিচের দিক থেকে আঁচড়াতে শুরু করুন, ধীরে ধীরে উপরদিকে উঠুন। প্রতিদিন শ্যাম্পু করলে চুলের উপরে স্বাভাবিক তেলের আস্তরণ নষ্ট হয়ে যায়। সপ্তাহে দু-তিনবারের বেশি শ্যাম্পু করবেন না। বেবি শ্যাম্পু ব্যবহার করলে চুল ভালো থাকবে।

নারিকেল তেল, কলা, মেয়োনিজ, ডিম, অলিভ অয়েল, অ্যালো ভেরা, মধু, টক দই দিয়ে বানিয়ে নিন রকমারি হেয়ার মাস্ক। প্রয়োজনীয় পুষ্টি পেলে চুল স্বাভাবিকভাবেই স্বাস্থ্যোজ্জ্বল হয়ে উঠবে।

আরও পড়ুন: যেভাবে যত্ন নিলে চুল দ্রুত লম্বা হয়’ চুল খোলা অবস্থায় শুলে বালিশের সঙ্গে সমানে ঘষা লেগে চুল উঠে যেতে পারে। এ ছাড়া চুলে জট পড়ে রুক্ষ ও অমসৃণও হয়ে যেতে পারে। তাই ঘুমাতে যাওয়ার আগে আলগা বিনুনিতে চুল বেঁধে রাখুন।