ঢাকা ০৩:৪৫ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ৩০ জানুয়ারী ২০২৩, ১৬ মাঘ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ




সরকারি অফিসে ১৫ বছরের জন্য নিষিদ্ধ বিরোধী দলীয় নেতা হুয়ান গুয়াইদো

প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ০২:১৬:৫৪ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ২৯ মার্চ ২০১৯ ৩০ বার পড়া হয়েছে

আন্তর্জাতিক ডেস্ক; সরকারি অফিসে ১৫ বছরের জন্য নিষিদ্ধ হয়েছেন ভেনেজুয়েলার বিরোধী দলীয় নেতা হুয়ান গুয়াইদো। তার ব্যক্তিগত আর্থিক বিবরণীতে অসঙ্গতি পাওয়ায় এই নিষেধাজ্ঞার ঘোষণা দিয়েছে দেশটির অর্থনৈতিক নিয়ন্ত্রক সংস্থা।

বৃহস্পতিবার দেশটির প্রধান হিসাব নিয়ন্ত্রক এলভিস আমোরোসো জানিয়েছেন, গুয়াইদোর ব্যক্তিগত আর্থিক বিবরণীতে অসঙ্গতি পাওয়া গেছে। গত জানুয়ারিতে প্রেসিডেন্ট নিকোলাস মাদুরোকে অবৈধ উল্লেখ করে নিজেকে অন্তর্বর্তী প্রেসিডেন্ট হিসেবে ঘোষণা দেন বিরোধী দলের প্রধান গুয়াইদো। এরপরেই যুক্তরাষ্ট্রসহ ৫০টিরও বেশি দেশ তার প্রতি সমর্থন জানায়।

তবে এখনই এই সাজা ভোগ করতে হচ্ছে না গুয়াইদোকে। ন্যাশনাল অ্যাসেম্বলির বর্তমান মেয়াদ শেষ হওয়ার পর নতুন কোনো নির্বাচনে অংশ নিতে চাইলে গুয়াইদোর ওপর এই নিষেধাজ্ঞা কার্যকর হবে বলে জানানো হয়েছে।

তবে আমোরোসোর এই ঘোষণা প্রত্যাখ্যান করে গুয়াইদো বলছেন তিনি ‘অডিটর জেনারেল নন’। তিনি বলেন, একমাত্র বৈধ পার্লামেন্টই একজন অডিটর জেনারেলকে নিয়োগ দিতে পারে।

এদিকে, গত সপ্তাহে গুয়াইদোর চিফ অব স্টাফ রোবার্তো মারেরোকে (৪৯) গ্রেফতার করা হয়। তার বিরুদ্ধে সরকারি কর্মকর্তাদের ওপর ‘নাশকতামূলক কর্মকাণ্ডের’ পরিকল্পনার অভিযোগ আনা হয়েছে।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

ট্যাগস :




সরকারি অফিসে ১৫ বছরের জন্য নিষিদ্ধ বিরোধী দলীয় নেতা হুয়ান গুয়াইদো

আপডেট সময় : ০২:১৬:৫৪ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ২৯ মার্চ ২০১৯

আন্তর্জাতিক ডেস্ক; সরকারি অফিসে ১৫ বছরের জন্য নিষিদ্ধ হয়েছেন ভেনেজুয়েলার বিরোধী দলীয় নেতা হুয়ান গুয়াইদো। তার ব্যক্তিগত আর্থিক বিবরণীতে অসঙ্গতি পাওয়ায় এই নিষেধাজ্ঞার ঘোষণা দিয়েছে দেশটির অর্থনৈতিক নিয়ন্ত্রক সংস্থা।

বৃহস্পতিবার দেশটির প্রধান হিসাব নিয়ন্ত্রক এলভিস আমোরোসো জানিয়েছেন, গুয়াইদোর ব্যক্তিগত আর্থিক বিবরণীতে অসঙ্গতি পাওয়া গেছে। গত জানুয়ারিতে প্রেসিডেন্ট নিকোলাস মাদুরোকে অবৈধ উল্লেখ করে নিজেকে অন্তর্বর্তী প্রেসিডেন্ট হিসেবে ঘোষণা দেন বিরোধী দলের প্রধান গুয়াইদো। এরপরেই যুক্তরাষ্ট্রসহ ৫০টিরও বেশি দেশ তার প্রতি সমর্থন জানায়।

তবে এখনই এই সাজা ভোগ করতে হচ্ছে না গুয়াইদোকে। ন্যাশনাল অ্যাসেম্বলির বর্তমান মেয়াদ শেষ হওয়ার পর নতুন কোনো নির্বাচনে অংশ নিতে চাইলে গুয়াইদোর ওপর এই নিষেধাজ্ঞা কার্যকর হবে বলে জানানো হয়েছে।

তবে আমোরোসোর এই ঘোষণা প্রত্যাখ্যান করে গুয়াইদো বলছেন তিনি ‘অডিটর জেনারেল নন’। তিনি বলেন, একমাত্র বৈধ পার্লামেন্টই একজন অডিটর জেনারেলকে নিয়োগ দিতে পারে।

এদিকে, গত সপ্তাহে গুয়াইদোর চিফ অব স্টাফ রোবার্তো মারেরোকে (৪৯) গ্রেফতার করা হয়। তার বিরুদ্ধে সরকারি কর্মকর্তাদের ওপর ‘নাশকতামূলক কর্মকাণ্ডের’ পরিকল্পনার অভিযোগ আনা হয়েছে।