ঢাকা ০৩:১৫ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ০৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৩, ২৫ মাঘ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম :
Logo মির্জাগঞ্জ এলজিইডি প্রকৌশলী আশিকুরের ঘুস-দুর্নীতি! Logo দ্রব্যমূল্যের ক্রমাগত ঊর্ধ্বগতি ; বিপাকে বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা Logo পরিবেশের জন্য ই-বর্জ্য হুমকি স্বরূপ ; তা উত্তরণের উপায় Logo বর্জ্য ব্যবস্থাপনায় বাংলাদেশ Logo ঐতিহ্যবাহী সোহরাওয়ার্দী কলেজ সাংবাদিক সমিতির কমিটি গঠন Logo চেয়ারম্যানের আহ্লাদে বেপরোয়া বিআইডব্লিউটিএ‘র কর্মচারি পান্না বিশ্বাস! Logo রাজউকে বদলী ও পদায়নে ভয়ংকর দুর্নীতি ফাঁস: নেপথ্য নায়ক প্রধান প্রকৌশলী  Logo কুবির শেখ হাসিনা হলের গ্যাস লিক, আতঙ্কে শিক্ষার্থীরা Logo ইন্টার্ন চিকিৎসকের হাত-পা ভেঙে দিলেন সহকর্মীরা Logo ঐতিহ্যবাহী শহীদ সোহরাওয়ার্দী কলেজে অফিসার্স কাউন্সিল নির্বাচন অনুষ্ঠিত 




চিকিৎসার প্রয়োজনে বৈধ হলো গাঁজা

প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ০২:১০:৫৩ অপরাহ্ন, বুধবার, ২৬ ডিসেম্বর ২০১৮ ৩৪ বার পড়া হয়েছে

এবার চিকিৎসার প্রয়োজনে গাঁজা ব্যবহারের অনুমোদন দিয়েছে থাইল্যান্ড সরকার৷ তবে গাঁজা সেখানে আপাতত গবেষণায় এবং ঔষধ বানানোর ক্ষেত্রে ব্যবহার হবে বলে জানা গেছে। তবে ভবিষ্যতে গাঁজা উৎপাদন ও বাজারজাতকরণের বিষয়টি ভবিষ্যতে বিবেচনা করা হবে বলে জানিয়েছেন থাইল্যান্ডের উপ-প্রধানমন্ত্রী।

গতকাল মঙ্গলবার থাইল্যান্ডের সংসদে ১৯৭৯ সালের মাদক নিয়ন্ত্রণ আইন সংশোধনের মাধ্যমে এ বিষয়ে একটি বিল পাশ হয়েছে।

দক্ষিণপূর্ব এশিয়ার প্রথম দেশ হিসেবে থাইল্যান্ড মেডিকেল চিকিৎসার প্রয়োজনে গাঁজা বৈধ করল।

দক্ষিণপূর্ব এশিয়ার দেশ থাইল্যান্ডে ১৯৩০ সাল পর্যন্ত শারীরিক ব্যথা ও ক্লান্তি দূর করার জন্য গাঁজা সেবন করা ছিল একটি প্রচলিত রীতি৷ পরে ১৯৩৫ সালে গাঁজা সেবন, পরিবহন কিংবা বাজারজাতকরণ বিষয়ে আইনি নিষেধাজ্ঞা আরোপ করা হয়েছিল৷

থাইল্যান্ডের উপ-প্রধানমন্ত্রী প্রজিন জুন্টং সাংবাদিকদের বলেন, জাতীয় আইন পরিষদের পক্ষ থেকে এটি থাইল্যান্ড সরকার ও তার জনগণের জন্য নববর্ষের উপহার। আগামী বছর আইনটি বাস্তবায়নের পর গাঁজা উৎপাদন ও বাজারজাতকরণ বিষয়ে চিন্তাভাবনা করবে সরকার৷

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

ট্যাগস :




চিকিৎসার প্রয়োজনে বৈধ হলো গাঁজা

আপডেট সময় : ০২:১০:৫৩ অপরাহ্ন, বুধবার, ২৬ ডিসেম্বর ২০১৮

এবার চিকিৎসার প্রয়োজনে গাঁজা ব্যবহারের অনুমোদন দিয়েছে থাইল্যান্ড সরকার৷ তবে গাঁজা সেখানে আপাতত গবেষণায় এবং ঔষধ বানানোর ক্ষেত্রে ব্যবহার হবে বলে জানা গেছে। তবে ভবিষ্যতে গাঁজা উৎপাদন ও বাজারজাতকরণের বিষয়টি ভবিষ্যতে বিবেচনা করা হবে বলে জানিয়েছেন থাইল্যান্ডের উপ-প্রধানমন্ত্রী।

গতকাল মঙ্গলবার থাইল্যান্ডের সংসদে ১৯৭৯ সালের মাদক নিয়ন্ত্রণ আইন সংশোধনের মাধ্যমে এ বিষয়ে একটি বিল পাশ হয়েছে।

দক্ষিণপূর্ব এশিয়ার প্রথম দেশ হিসেবে থাইল্যান্ড মেডিকেল চিকিৎসার প্রয়োজনে গাঁজা বৈধ করল।

দক্ষিণপূর্ব এশিয়ার দেশ থাইল্যান্ডে ১৯৩০ সাল পর্যন্ত শারীরিক ব্যথা ও ক্লান্তি দূর করার জন্য গাঁজা সেবন করা ছিল একটি প্রচলিত রীতি৷ পরে ১৯৩৫ সালে গাঁজা সেবন, পরিবহন কিংবা বাজারজাতকরণ বিষয়ে আইনি নিষেধাজ্ঞা আরোপ করা হয়েছিল৷

থাইল্যান্ডের উপ-প্রধানমন্ত্রী প্রজিন জুন্টং সাংবাদিকদের বলেন, জাতীয় আইন পরিষদের পক্ষ থেকে এটি থাইল্যান্ড সরকার ও তার জনগণের জন্য নববর্ষের উপহার। আগামী বছর আইনটি বাস্তবায়নের পর গাঁজা উৎপাদন ও বাজারজাতকরণ বিষয়ে চিন্তাভাবনা করবে সরকার৷