ঢাকা ০৪:৪৬ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ৩০ জানুয়ারী ২০২৩, ১৬ মাঘ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ




ইসরায়েলে নেতানিয়াহুর বিরুদ্ধে বিক্ষোভ

প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ০৬:৪১:১৩ অপরাহ্ন, সোমবার, ১৬ জানুয়ারী ২০২৩ ২৫ বার পড়া হয়েছে

 

ইসরায়েলের প্রধানমন্ত্রী বেনিয়ামিন নেতানিয়াহু সরকারের বিরুদ্ধে হাজার হাজার লোক বিক্ষোভ করেছে। স্থানীয় সময় শনিবার সন্ধ্যায় তেলআবিবে এই কর্মসূচি পালন করা হয়। একই ধরনের কর্মসূচি পালিত হয়েছে জেরুজালেমে ও উত্তরের শহর হাইফাতেও।

আল জাজিরার খবরে বলা হয়েছে, জেরুজালেমে প্রধানমন্ত্রী ও প্রেসিডেন্টের বাসভবনের বাইরে ওই বিক্ষোভ হয়। বিক্ষোভকারীরা বলেছেন, নেতানিয়াহুর নতুন কট্টর ডানপন্থী সরকার ইসরায়েলের গণতন্ত্রের জন্য হুমকি। আদালতে দুর্নীতির অভিযোগে থাকা নেতানিয়াহুকে তারা পদত্যাগের আহ্বান জানিয়েছেন।

পুলিশি সূত্রের বরাতে ইসরায়েলের গণমাধ্যমের খবরে বলা হয়, তেলআবিবে নেতানিয়াহুবিরোধী ওই বিক্ষোভে ৮০ হাজার মানুষ অংশ নেয়। তবে পুলিশের পক্ষ থেকে নতুন করে আনুষ্ঠানিকভাবে এ ব্যাপারে কিছু বলা হয়নি।

খবরে বলা হয়েছে, নতুন সরকার গঠনের পর নেতানিয়াহু বিচারব্যবস্থা সংস্কারকে প্রধান এজেন্ডা করেছেন। তবে বিরোধীরা বলছেন, এর মাধ্যমে ইসরায়েলের বিচার ব্যবস্থা দুর্বল হবে, দুর্নীতি বাড়বে, সংখ্যালঘু অধিকার খর্ব হবে।

 

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

ট্যাগস :




ইসরায়েলে নেতানিয়াহুর বিরুদ্ধে বিক্ষোভ

আপডেট সময় : ০৬:৪১:১৩ অপরাহ্ন, সোমবার, ১৬ জানুয়ারী ২০২৩

 

ইসরায়েলের প্রধানমন্ত্রী বেনিয়ামিন নেতানিয়াহু সরকারের বিরুদ্ধে হাজার হাজার লোক বিক্ষোভ করেছে। স্থানীয় সময় শনিবার সন্ধ্যায় তেলআবিবে এই কর্মসূচি পালন করা হয়। একই ধরনের কর্মসূচি পালিত হয়েছে জেরুজালেমে ও উত্তরের শহর হাইফাতেও।

আল জাজিরার খবরে বলা হয়েছে, জেরুজালেমে প্রধানমন্ত্রী ও প্রেসিডেন্টের বাসভবনের বাইরে ওই বিক্ষোভ হয়। বিক্ষোভকারীরা বলেছেন, নেতানিয়াহুর নতুন কট্টর ডানপন্থী সরকার ইসরায়েলের গণতন্ত্রের জন্য হুমকি। আদালতে দুর্নীতির অভিযোগে থাকা নেতানিয়াহুকে তারা পদত্যাগের আহ্বান জানিয়েছেন।

পুলিশি সূত্রের বরাতে ইসরায়েলের গণমাধ্যমের খবরে বলা হয়, তেলআবিবে নেতানিয়াহুবিরোধী ওই বিক্ষোভে ৮০ হাজার মানুষ অংশ নেয়। তবে পুলিশের পক্ষ থেকে নতুন করে আনুষ্ঠানিকভাবে এ ব্যাপারে কিছু বলা হয়নি।

খবরে বলা হয়েছে, নতুন সরকার গঠনের পর নেতানিয়াহু বিচারব্যবস্থা সংস্কারকে প্রধান এজেন্ডা করেছেন। তবে বিরোধীরা বলছেন, এর মাধ্যমে ইসরায়েলের বিচার ব্যবস্থা দুর্বল হবে, দুর্নীতি বাড়বে, সংখ্যালঘু অধিকার খর্ব হবে।