প্রেমিকের অ্যাকাউন্টে ৪৬ লক্ষ টাকা ট্রান্সফার করে লাপাত্তা ব্যাংক কর্মী

সকালের সংবাদ ডেস্ক;সকালের সংবাদ ডেস্ক;
  প্রকাশিত হয়েছেঃ  ১০:৩৫ অপরাহ্ণ, ০৯ মে ২০১৯

অনলাইন ডেস্ক |
৪৬ লক্ষ টাকা প্রেমিকের অ্যাকাউন্টে বেআইনিভাবে ট্রান্সফার করে লাপাত্তা হয়েছেন কেন্দ্রীয় সমবায় ব্যাংকের এক অস্থায়ী কর্মী। তার নাম পিয়ালী দাস।

অভিযুক্তের বিরুদ্ধে থানায় অভিযোগ দায়ের করেছে ব্যাংক কর্তৃপক্ষ। এ ঘটনা বহরমপুরে বেশ সাড়া ফেলেছে।
একসময়ে সিপিএমের যুব সংগঠনের নেত্রী ছিলেন পিয়ালী দাস। ২০১১ সালে কেন্দ্রীয় সমবায় ব্যাংকের খাগড়া শাখায় চাকরি পান পিয়ালী। তার বাড়ি বহরমপুর শহরের কাশিমবাজারে।

ব্যাংক কর্তৃপক্ষের বক্তব্য, কেন্দ্রীয় সমবায় ব্যাংকের ঘাগড়া শাখায় একটি ফিক্সড ডিপোজিট করেছেন পিয়ালীর প্রেমিক। সেই ফিক্সড ডিপোজিটের মেয়াদ এখনও পূর্ণ হয়নি। অথচ গত কয়েক মাস ধরে দফায় দফায় প্রেমিকের অ্যাকাউন্টে প্রায় ৪৬ লক্ষ টাকা ট্রান্সফার করে দিয়েছেন পিয়ালী।

সেন্ট্রাল কো-অপারেটিভ ব্যাংকের ম্যানেজার সৌমেন সরকার জানিয়েছেন, প্রতারণার ঘটনা জানাজানি হওয়ার পর থেকে আর ব্যাংকে আসছেন না পিয়ালী। তার সঙ্গে যোগযোগও করা যাচ্ছে না।

বহরমপুর থানায় ওই অস্থায়ী কর্মীর বিরুদ্ধে প্রতারণার এফআইআর করেছে কেন্দ্রীয় সমবায় ব্যাংক কর্তৃপক্ষ। পিয়ালী দাস ও তার প্রেমিককে খুঁজছে পুলিশ।

এদিকে অভিযুক্ত দলের যুব সংগঠনের নেত্রী ছিলেন ঠিকই। তবে এখন আর দলের সঙ্গে তার কোনও সম্পর্ক নেই বলে দাবি করেছে সিপিএমের স্থানীয় নেতৃত্ব।

আপনার মতামত লিখুন :