গৃহবন্দি মুসা বিন শমসের!

সকালের সংবাদ ডেস্ক;সকালের সংবাদ ডেস্ক;
  প্রকাশিত হয়েছেঃ  ১১:১৪ পূর্বাহ্ণ, ০৮ জানুয়ারি ২০২১

সকালের সংবাদ; বহুল আলোচিত ও সমালোচিত ড. মুসা বিন শমসের নিজ সন্তানদের দাঁড়া নিজ গৃহে জিম্মি হওয়ার খবর পাওয়া গেছে। গত কয়েকদিন যাবত মিডিয়া পাড়ায় এ নিয়ে ব্যাপক তোলপাড় শুরু হয়েছে। খবর নিয়ে জানা গেছে, গুলশান ৯৯ নাম্বার রোডের ২৮ নম্বর বাড়ির যেকোনো একটি কক্ষে তার ঔরসজাত সন্তানেরা তাকে একটি কক্ষের ভিতর আটক রেখে নির্যাতন করছেন। গণমাধ্যমে পাঠানো একটি লিখিত অভিযোগের ভিত্তিতে এর খবর পাওয়া গেছে। বেশ কিছুদিন যাবৎ তাকে তার বড় ছেলে ববি হাজ্জাজ ও ছোট ছেলে জুবি এবং মেয়ে ন্যান্সি বাবাকে আটক রেখে বিভিন্নভাবে নির্যাতন করছে বলে সেখানে উল্লেখ করা করা হযছে। বিভিন্ন গণমাধ্যমে পাঠানো পত্রের মাধ্যমে জেনে বিভিন্ন ইলেকট্রনিক মিডিয়া ও প্রিন্ট মিডিয়ার সাংবাদিকগণ উক্ত বাড়িতে গেলে সেই বাড়ির দারোয়ান এবং ম্যানেজার সংবাদকর্মীদের বাড়িতে প্রবেশ করতে দেননি। তারা বলেন, ডা. মুসা বিন শমসের আটক বলা জিম্মি নয়। তিনি শারীরিকভাবে অসুস্থ। সংবাদকর্মীদের সাথে তিনি কোন প্রকার কথা বলবেন না। এক প্রশ্নের জবাবে তার বাড়ির ম্যানেজার (সোহেল) বলেন, ডাক. মুসা বিন শমসের এর সাথে দেখা করা যাবে না। উপরের নির্দেশ। উপরের নির্দেশ বলতে কি বুঝায় তাকে জিজ্ঞেস করা হলে তিনি এর কোন সদুত্তর দিতে পারেননি। তিনি বারবার বলছেন দেখা করা যাবে না আপনারা এখন আসতে পারেন। দারোয়ানের কাছে মুসা বিন শমসের এর ছেলে অথবা মেয়ের মোবাইল নম্বর চাইলে তিনি তা দিতে অস্বীকার করেন। মুসা বিন শমসের এর ঘনিষ্ঠ ব্যক্তির অডিও বার্তায় জানা যায় মুসা বিন শমসের এর বোন কয়েকদিন আগে তার বাসায় দেখা করতে গেলে বোনের মোবাইল থেকে মুসা বিন শমসের তার এক ঘনিষ্ঠ লোকের সাথে ৮ মিনিট কথা বলেছেন। সেখানে তিনি উল্লেখ করেছেন ‘আমার ছেলেরা আমাকে ঘরের ভিতরে আটক করে নির্যাতন করছে। আমাকে তুমি বাঁচাও। না হলে ওরা আমাকে মেরে ফেলবে। যত তাড়াতাড়ি সম্ভব আমাকে বাঁচানোর চেষ্টা করো। ওরা আমার শরীরে সিগারেটের আগুন দিয়ে ছ্যাকা দিয়েছে’। গণমাধ্যমের সাথে কথা বলার সময় প্রতিবেদক এই অডিও বার্তাটি সংগ্রহ করেছে।

গণমাধ্যমে পাঠানো লেখাগুলো হুবহু প্রকাশ করা হলোঃ

সম্মানিত, সকল প্রিন্ট ও ইলেকট্রনিক মিডিয়ার সম্পাদক ও সাংবাদিক ভাই বোনদের উদ্দেশ্যে বলছি। আজ আপনাদের সামনে এক নিদারুন ঘটনা উপস্থাপন করছি। বিশ্ব বরেণ্য ধনকুবের আন্তর্জাতিক অস্ত্র ব্যবসায়ী ও জনশক্তি রপ্তানি প্রবাদপুরুষ প্রিন্স ড. মুসা বিন শমসের জনশক্তি রপ্তানির মাধ্যমে দেশকে দিয়েছেন বেঁচে থাকার প্রেরণা। আজ তার ভয়াবহ বিপদ এবং নির্যাতনের শিকার হচ্ছেন তার জন্মদাতা দুই সন্তান যারা প্রতিনিয়ত সরকারের বিরুদ্ধে উল্টোপাল্টা নানান বাজে কথা বলছেন এবং দেশের সকল মন্ত্রী এমপিদের দুর্নীতিবাজ বলছেন। বিএনপি পান্ডা জাতীয়তাবাদী গণতান্ত্রিক আন্দোলন (এনডিএম) তিনি মাননীয় প্রধানমন্ত্রী সম্পর্কে বাজে মন্তব্য করেন। বর্তমানে তার পিতা ড. প্রিন্স মুসা বিন শমসের বঙ্গবন্ধুর একজন স্নেহাশীষ। বঙ্গবন্ধু স্মৃতি সংসদ ও বঙ্গবন্ধু স্মৃতি পাঠাগার এর প্রধান উপদেষ্টা হিসাবে বঙ্গবন্ধুর জীবনাদর্শ দর্শন বিষয়ে নতুন প্রজন্ম সর্বসাধারণকে অবগত করান। তাই তার প্রতি ক্ষিপ্ত হয়ে তার দুই সন্তান ববি হাজ্জাজ, জুবি ও মেয়ে ন্যান্সি তার পিতাকে ঘরে আটক রেখে নির্যাতন করছেন।।আপনারা সরোজমিনে গিয়ে তার কাছে জিজ্ঞেস করলে সত্য জানতে পারবেন। বর্তমানে তারা বিভিন্নভাবে তাকে হত্যার চেষ্টা করছে। সকল প্রিন্ট ও ইলেকট্রনিক মিডিয়ার সম্পাদক ও সাংবাদিক ভাই-বোনদের কাছে অনুরোধ, বিষয়টি আপনাদের লেখনীর মাধ্যমে তাকে উদ্ধার এবং নির্যাতনের হাত থেকে বাঁচান। তিনি যে বাড়িতে আটক আছেন। বাড়ি নাম্বার ২৮ রোড নাম্বার ৯৯ গুলশান-২, ঢাকা, বাংলাদেশ। তার নিজস্ব বাসভবন। বিনীত নিবেদক, মাসুদ রানা, পিএ টু ড্যাটকো।
সংবাদের সত্যতা উদঘাটনের জন্য গোপন অনুসন্ধানে জানা যায় মুসা বিন শমসেরের ব্যক্তিগত দেহের ক্ষিদের স্বেচ্ছায় চাকরীচ্যুত করা হয়েছে এবং তারা যেইসব সেল নাম্বার ব্যবহার করতেন তা বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে। উপরোক্ত সংবাদের সত্যতা যাচাইয়ের জন্য মুসা বিন শমসেরের দুই ছেলের সাথে চেষ্টা করেও কোন প্রকার যোগাযোগ করা সম্ভব হয়নি।

আপনার মতামত লিখুন :