বাবা…

সকালের সংবাদ ডেস্ক;সকালের সংবাদ ডেস্ক;
  প্রকাশিত হয়েছেঃ  ০৬:৪৭ অপরাহ্ণ, ০১ আগস্ট ২০২০

বাবা…

একটা সময় দেশের সীমান্তের অতন্দ্র প্রহরী ছিলেন।তার দুচোখে ছিল শত্রুপক্ষকে শনাক্তের তীক্ষ্ণ বিচক্ষণতা। দেশের জন্য জীবনের শ্রেষ্ঠ সময়টুকু ব্যয় করেছেন। হয়তো তার সমসাময়িক সময়ে সমাজের অনেকের কাছেই আইকন ছিলেন তিনি। আজ সময় ও অসুস্থতার নিকট অসহায় বাবা।
ছোট বেলায় যখন বাবার সাথে শহরে যেতাম ডিম সিদ্ধ, চিড়া নারকেল ভাজা, চানাচুর আরও কত কি খাওয়ার বায়না করতাম। ঠিক তেমনি করে আজ বাবু আমার কাছে বায়না করে। নিয়তির খেলায়়় হয়তো অনেক কিছুই সম্ভব হয় না কিন্তু চেষ্টা করি। সেদিন গ্রামের বাড়ি থেকে ঢাকার উদ্দেশে নিয়ে আসার সময় ঠিক আমার ছোট বেলার মতোই বাবা কেক বিস্কুট, চানাচুর, ওয়েফার খাওয়া আর গ্রীন লাইন ওয়াটার বাসে বসে না থেকে ছুটাছুটি আরও কত অসহ্য বাহানা। মনে মনে বিরক্ত হলেও তার মাঝে নিজের ছোটবেলা র প্রতিচ্ছবি দেখে বেশ ভালোই লাগে।

অসুস্থতার ভরে দুর্বল জীবন যাত্রার এই বেলায় অনেকটাই অসহায় আজ এই মানুষটা। শরীর টা ঠিকঠাক কাজ করে না আগের মত। বাস্তবতাও কম অভিশাপ দেয়নি তার জিবনে। যা হওয়ার ছিলনা জিবনে তাই ঢের পেয়েছে। শিশুদের মতোই অনেক অসম কথা বলেন বাবা। হয়তো ছোটবেলায় আমিও বাবাকে আর থেকে হাজার গুণ প্রশ্নতে আর আবদারে বিব্রত করতাম।

গত দুই দিনে ঘুরতে যাওয়ার আবদারেই ঈদের দুপুরে হাতিরঝিলে বাপ বেটার ঘুরতে আসা।

পৃথিবীর সকল মা বাবাকে সালাম ও ঈদ মোবারক ❤️❤️❤️

বাবার সাথে বাবা হয়ে একটি ঈদ একটি দিন কাটানো। তবুও কিছু পাওয়া না পাওয়ার করুন বেদনার নীল কষ্ট নিয়ে সারাজীবন পুড়তে হবে!!

আপনার মতামত লিখুন :