রিজেন্ট হাসপাতালে ষড়যন্ত্র নাকি অনিয়ম?

সকালের সংবাদ ডেস্ক;সকালের সংবাদ ডেস্ক;
  প্রকাশিত হয়েছেঃ  ০৯:৩৫ পূর্বাহ্ণ, ০৮ জুলাই ২০২০

অনলাইন ডেস্ক: এবং সাহসী মানুষদের বিপদের সম্মুখীন হতে হয় অনেক বেশি তেমনি একজন রিজেন্ট গ্রুপের চেয়ারম্যান মো: সাহেদ একটি প্রতারক চক্রের কঠিন ষড়যন্ত্রের শিকার।

মো. সাহেদ একজন গণমাধ্যম প্রিয় আলোকিত মনের মানুষ। তার এই পরিচিতি ও জনপ্রিয় মিডিয়া ব্যক্তিত্বের অন্তরালে লুকিয়ে আছে অসংখ্য মানবিক গুণ সম্মেলিত মহৎ হৃদয়ের মানুষ। ব্যাক্তি জীবনে সফল একজন মানবিক মানুষ মোঃ সাহেদ। নিজের হাতে গড়ে তুলেছেন হাসপাতাল, কলেজ, পাঠাগার, রাজনৈতিক গবেষণা কেন্দ্র, কর্মসংস্থান সৃষ্টির জন্য গড়েছেন অসংখ্য প্রতিষ্ঠান। যার মধ্যে রিজেন্ট হাসপাতাল, উচ্চ শিক্ষার জন্য গড়ে তুলেছেন ঢাকা সেন্ট্রাল কলেজ। দৈনিক নতুন কাগজ। আইটি প্রতিষ্ঠান সহ আরও অনেক প্রতিষ্ঠান। তার হাসপাতালের দুটি শাখা ও কলেজ পরিচালিত হয় সম্পূর্ণ অলাভজনক ভাবে।

** মহান একুশে বইমেলায় প্রকাশিত হয়েছে মো. সাহেদের প্রবন্ধগ্রন্থ ‘নির্বাচিত সম্পাদকীয়’। গ্রন্থটিতে স্থান পেয়েছে ৭টি গুরুত্বপূর্ণ প্রবন্ধ- ১. জঙ্গি ও সন্ত্রাসবাদ: দৃশ্যমান জিরো টলারেন্স ২. পদ্মা সেতু: দৃশ্যমান বাস্তবতা ৩. পদ্মা সেতু: বিশ্বব্যাংক বনাম বাংলাদেশ ৪. বিদ্যুৎ উৎপাদন বৃদ্ধির হার অব্যাহত থাক ৫. নবায়নযোগ্য বিদ্যুৎ: নতুন সম্ভাবনা ৬.যানজট সঙ্কট: চাই কার্যকর সমাধান এবং ৭. তথ্য প্রযুক্তির সফল সূচকে বাংলাদেশ। বোদ্ধা পাঠকদের প্রশংসা কুড়িয়েছে প্রবন্ধ গ্রন্থটি। **

** কঠিন ষড়যন্ত্রের শিকার রিজেন্ট গ্রুপের চেয়ারম্যান মোঃ সাহেদ ***

** রিজেন্ট গ্রুপের চেয়ারম্যান ও দৈনিক নতুন কাগজ সম্পাদক টকশো এবং মিডিয়া ব্যক্তিত্ব মো. সাহেদকে ২০১৯ সালের ১৮ ডিসেম্বর রাত ১২ টা ১৫ মিনিটে প্রাণে মেরে ফেলার হুমকি সহ তার পরিবারের ক্ষতির হুমকি দেয় জঙ্গিরা।

** জাতীয় দৈনিক নতুন কাগজ পত্রিকাটি অনেকদিন যাবত বন্ধ ছিল পত্রিকা অফিসের কর্মকর্তার কারণে৷ অফিসের কিছু কর্মকর্তা তার বিরুদ্ধে উল্টোপাল্টা কথা বলেছে এবং লেখালেখি করেছে৷ কিন্তু তিনি সে কর্মচারীদের চাকরীচ্যুত না করে পত্রিকা অফিস থেকে সরিয়ে রিজেন্ট হাসপাতালে নিয়োগ দিয়েছিলেন৷

** রাজধানীর উত্তরার ১১ নম্বর সেক্টরের রিজেন্ট হাসপাতালে করোনাভাইরাসের চিকিৎসার (লোক দেখানো) প্রতিবাদ দেখিয়ে ২২/৩/২০২০ রাত সাড়ে ৮টার দিকে বিক্ষোভ মিছিল ও ভাংচুর চালায় সন্ত্রাসীরা।

** বিগত বেশ কিছুদিন ধরে রিজেন্ট হসপিটাল এর পক্ষ থেকে দাবি করা হচ্ছিল তাদের হাসপাতালের নাম ভাঙ্গিয়ে একটি দুষ্টচক্র করোনা স্যাম্পল সংগ্রহ ও অনৈতিক ভাবে অর্থ আদায় করে আসছে। এসব বিষয়ে অসংখ্য অভিযোগ হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের নিকট আসলে তারা বিষয়টি নিয়ে আইনের দ্বারস্থও হয়েছেন। রিজেন্ট গ্রুপের চেয়ারম্যান মোঃ সাহেদ বারবার সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমের তার অবস্থান পরিষ্কার করেছেন। হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের বক্তব্য নিয়ে সারা দেশের প্রথম সারির সংবাদমাধ্যমেও সংবাদ প্রকাশিত হয়েছে।

প্রশাসনের কাছে সর্বসাধারণের অনুরোধ থাকবে উপরোক্ত বিষয়গুলো খতিয়ে দেখার। কোন প্রতারক বা কুচক্রী মহলের প্ররোচনায় নয় প্রকৃত অপরাধীদের কঠিন বিচারের আওতায় আনার জন্য৷

আপনার মতামত লিখুন :