দেশে করোনার নমুনা সংগ্রহ ও পরীক্ষা কিটের সঙ্কট

সকালের সংবাদ ডেস্ক;সকালের সংবাদ ডেস্ক;
  প্রকাশিত হয়েছেঃ  ০৮:২৩ অপরাহ্ণ, ২৫ জুন ২০২০

নিজস্ব প্রতিবেদক : অনেক স্থানে হঠাৎ করেই বন্ধ হয়ে যাচ্ছে করোনাভাইরাসের নমুনা সংগ্রহ। কোথাও কোথাও এক কিটে হচ্ছে দু’টি পরীক্ষা। আরটি পিসিআর ল্যাব সঙ্কট তো আছেই। পরিস্থিতি সামাল দিতে নমুনা সংগ্রহই কমিয়ে আনার নির্দেশনা দিয়েছে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর। অবশ্য মাঠ পর্যায়ের বর্তমান পরিস্থিতি অস্বীকার করে মহাপরিচালকের দাবি, দেশে কোনো কিট সঙ্কট নেই।

করোনাভাইরাস সংক্রমণের উচ্চহারে দৈনিক অন্তত ত্রিশ হাজার নমুনা পরীক্ষার লক্ষ্য ঠিক করলেও এখনও বিশ হাজারেই পৌঁছতে পারেনি স্বাস্থ্য অধিদপ্তর। উল্টো কিট সঙ্কটে নমুনা সংগ্রহ ও পরীক্ষাই হুমকির মুখে।

মহামারির মধ্যে ঢাকাসহ চারটি জেলায় ৫৪টি কিয়স্ক বুথ স্থাপন করে নমুনা সংগ্রহ করছে উন্নয়ন সংস্থা ব্র্যাক। এতদিন প্রতিটি বুথে দৈনিক ত্রিশটি নমুনা নেয়া হলেও কিট সঙ্কটে এখন নমুনা সংগ্রহ অর্ধেকে নামিয়ে আনার নির্দেশনা দিয়েছে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর। ব্র্যাক জানিয়েছে, আগামী সপ্তাহের আগে অধিদপ্তর নতুন করে কিট সরবরাহ করতে পারবে না বলে জানিয়ে দিয়েছে।

কিটের অভাবে চলতি সপ্তাহে চারদিন নমুনার পরীক্ষা করতে পারেনি নোয়াখালীর আব্দুল মালেক মেডিক্যাল কলেজ। একই জেলার বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়েও কিট সঙ্কটে এক কিটে দুটি নমুনা পরীক্ষা করা হচ্ছে। সিভিল সার্জন ডা. মাসুম ইফতেখার জানান, এমন পরিস্থিতিতে নমুনা সংগ্রহ কমিয়ে আনা হয়েছে।

সংক্রমণের চতুর্থ মাসেও দেশের ৪২টি জেলায় নেই নমুনা পরীক্ষার জন্য আরটি পিসিআর ল্যাব। ৬৬টি ল্যাবের ৩৫টিই ঢাকায়। বাকিগুলো বড় বড় শহরে। ফলে আশেপাশের জেলা বা অঞ্চলের মানুষকে নমুনা পরীক্ষার জন্য যেতে হচ্ছে দূরের নির্দিষ্ট ল্যাবে। অথচ কিট সঙ্কটে এমন অনেকগুলো ল্যাবে পরীক্ষাই কমিয়ে দেয়া হয়েছে।

তিন দিন আগে এক লাখের বেশি কিট থাকার কথা জানালেও এখন কিটের মজুদ নিয়ে কোনো তথ্য নেই খোদ স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালক ডা. আবুল কালাম আজাদের কাছে। তারপরও তিনি বলছেন, দেশে কিটের কোনো সঙ্কট নেই।

অবশ্য স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের একাধিক কর্মকর্তা জানান, নতুন কিট না আসলে বতর্মানে মজুদ থাকা কিট দিয়ে এক সপ্তাহের মত নমুনা সংগ্রহ ও পরীক্ষা করা সম্ভব।

আপনার মতামত লিখুন :